Hardik Pandya:টেস্ট থেকে অবসর নিতে পারেন হার্দিক? গুঞ্জন তুঙ্গে

২০১৮ সালের পর আর টেস্ট খেলেননি হার্দিক। তাঁকে নিয়ে বোর্ডের এক কর্তা বলে দিচ্ছেন, 'বেশ কিছুদিন ও চোটের মধ্যে রয়েছে। ওর চোটের কী হাল, তা আমরা জানি না। অবশ্য সরকারি ভাবে হার্দিক বোর্ডকে কিছু না জানালেও টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার কথা ভাবছে।'

Hardik Pandya:টেস্ট থেকে অবসর নিতে পারেন হার্দিক? গুঞ্জন তুঙ্গে
সাদা বলের ক্রিকেটেই ফোকাস সরছেন হার্দিক। সৌ: টুইটার

মুম্বই: টেস্ট ক্রিকেট (test cricket) থেকে কি অবসর নিতে পারেন হার্দিক পান্ডিয়া (Hardik Pandya)? ক্রিকেটমহলে কিন্তু ঘুরপাক খাচ্ছে এমনই গুঞ্জন। বছর দুয়েক চোট-বিপর্যয়ের কারণে ভারতীয় (India) অলরাউন্ডারকে নিয়ে বারবার প্রশ্ন উঠেছে। শুধু তাই নয়, লাল বলের ক্রিকেটে তাঁর ফেরার সম্ভাবনাও ক্রমশ ক্ষীণ হয়ে আসছে। সেই কারণেই সাদা বলের ক্রিকেটকেই ফোকাস করতে চাইছেন তিনি। আর তাই নাকি টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার কথা ভাবছেন হার্দিক।

২০১৮ সালের পর আর টেস্ট খেলেননি হার্দিক। তাঁকে নিয়ে বোর্ডের এক কর্তা বলে দিচ্ছেন, ‘বেশ কিছুদিন ও চোটের (injury) মধ্যে রয়েছে। ওর চোটের কী হাল, তা আমরা জানি না। অবশ্য সরকারি ভাবে হার্দিক বোর্ডকে কিছু না জানালেও টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার কথা ভাবছে। যাতে সাদা বলের ক্রিকেটে আরও বেশি ফোকাস করতে পারে। অবশ্য টেস্ট টিমে ওকে নেওয়ার ভাবনা বোর্ডের ছিল না। টিমের পক্ষে বিরাট ক্ষতি হলেও হার্দিকের বিকল্প আমাদের দ্রুত তৈরি করে নিতে হবে।’

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের (T20 World Cup) সময় থেকেই প্রবল বিতর্কের মধ্যে হার্দিক। চোট লুকিয়ে ভারতের হয়ে বিশ্বকাপ খেলেছিলেন কিনা, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছিল খোদ বিসিসিআই। আর সেই কারণে বিশ্বকাপের পরই টিম ম্যানেজমেন্টের কাছে হার্দিকের চোট নিয়ে রিপোর্ট চেয়েছিল বোর্ড। কর্তাদের তরফে বলাও হয়েছিল, যদি চোটই থাকে, তা হলে রিহ্যাবের জন্য জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে গেলেন না কেন? বিশ্বকাপের পরই ভারতীয় টিম থেকে বাদ পড়েছিলেন তিনি। অনেকেই হার্দিকের ভবিষ্যত্‍ নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন।

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ভারতীয় টিমে তিনি সুযোগ পাবেন কিনা, তা নিয়ে যখন আলোচনা চলছে, তখন তিনি বিজয় হাজারে ট্রফি থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন হার্দিক। বরোদার হয়ে গত তিন বছরে খুব একটা খেলতে দেখা যায়নি তাঁকে। বিজয় হাজারে ট্রফির আগে বরোদা ক্রিকেট সংস্থার তরফে একটি মেল করে জানতে চাওয়া হয়েছিল, তিনি খেলবেন কিনা। যার উত্তরে হার্দিক লিখেছেন, মুম্বইয়ে আপাতত রিহ্যাব করছেন তিনি। এই উত্তরেই পরিষ্কার, এখনও চোট সারেনি তাঁর। ফলে, দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে তাঁর টিমে সুযোগ পাওয়ার সম্ভাবনা নেই।

বোর্ডের ওই কর্তা বলছেন, ‘হার্দিকের মাত্র ২৮ বছর বয়স। এই বয়সে ও যদি টেস্ট ক্রিকেট থেকে সরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়, ভারতের পক্ষে বিরাট ক্ষতির, কোনও সন্দেহ নেই। সাম্প্রতিক কালে হার্দিকের থেকে ভালো অলরাউন্ডার ভারত তৈরি করতে পারেনি। কিন্তু বোর্ড একই সঙ্গে অলরাউন্ডার হার্দিককে সাদা বলের ক্রিকেটে ফেরত পেতে চায়। ভুলে গেলে চলবে না, আগামী দু’বছরে পর পর দুটো বিশ্বকাপ খেলতে হবে। বোলার হার্দিক ফিরলে টিমের পক্ষে খুব ভালো হবে।’

টেস্টে হার্দিকের বিকল্প অলরাউন্ডার কে হতে পারেন? শার্দূল ঠাকুরের পাশাপাশি ভেঙ্গটেশ আইয়ারকেও ভাবনায় রাখছেন নির্বাচকরা। ওই কর্তার কথায়, ‘শার্দূল তো বিকল্প হিসেবে আছেই। তবে নির্বাচক ও টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে এ নিয়ে আমাদের আলোচনাও হয়েছে। শার্দূলের সঙ্গে বেঙ্গটেশ আইয়ারকেও তৈরি করে নিতে চাইছি আমরা। অন্য বিকল্পের দিকেও চোখ রাখা হবে।’

আরও পড়ুন : IPL 2022: কোনও চার ভারতীয় ক্রিকেটার ‘আনসোলড’ থেকে যেতে পারেন আইপিএলে?

Published On - 7:14 pm, Tue, 7 December 21

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla