Tokyo Olympics 2020: টোকিওয় বক্সিংয়ে মেরির অস্ত, সতীশের উদয়

Summer Olympics 2020: কেরিয়ারের শেষ অলিম্পিকে খালি হাতে ফিরতে হল ভারতের সুপারস্টার বক্সার মেরি কমকে। যা তাঁর পাশাপাশি গোটা দেশবাসীকে হতাশ করছে।

Tokyo Olympics 2020: টোকিওয় বক্সিংয়ে মেরির অস্ত, সতীশের উদয়
Tokyo Olympics 2020: টোকিওয় বক্সিংয়ে মেরির অস্ত, সতীশের উদয় (সৌজন্যে-টুইটার)

টোকিও: লক্ষ্মীবারে টোকিওয় বক্সিং (Boxing) থেকে ভারতের প্রাপ্তি আশা-হতাশা দুটিই। একদিকে মেয়েদের বক্সিংয়ের প্রিকোয়ার্টারেই (pre quarter final) টোকিও যাত্রা শেষ হল ভারতের তারকা বক্সার মেরি কমের (Mary Kom)। অন্যদিকে পদক জয়ের জন্য একধাপ এগোলেন সতীশ কুমার (Satish Kumar)। কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে গিয়েছেন সতীশ।

লন্ডন অলিম্পিকে ব্রোঞ্চ পদকপ্রাপ্ত মেরি কম প্রিকোয়ার্টার ফাইনালে হেরে গেলেন রিও অলিম্পিকে ব্রোঞ্চ পাওয়া কলম্বিয়ার বক্সার ইনগ্রিট ভ্যালেন্সিয়ার (Ingrit valencia) কাছে। কলম্বিয়ান প্রতিপক্ষের কাছে ২-৩ ব্যবধানে হেরে শেষ হল মেরির টোকিও সফর। মেয়েদের ফ্লাইওয়েট ৫২ কেজি বিভাগের প্রথম রাউন্ডে পাঁচ বিচারকের মধ্যে ৪ জন এগিয়ে রাখেন ভ্যালেন্সিয়াকে। একজন রায় দেন মেরির পক্ষে। দ্বিতীয় এবং তৃতীয় রাউন্ডে তিনজন বিচারক মেরিকে এগিয়ে রাখেন। ২ জন ভ্যালেন্সিয়ার পক্ষে বলেন। শেষের দুই রাউন্ডে এগিয়ে ছিলেন মেরি। তা সত্ত্বেও তিন রাউন্ড মিলিয়ে পয়েন্টের নিরিখে তিন বিচারককে ভ্যালেন্সিয়া পাশে পেয়ে যান।

তিন রাউন্ডের বাউটের মধ্যে ২ রাউন্ড মেরি কম জিতেও কোয়ার্টার ফাইনালে উঠলেন না। বাউটের শেষে মেরি বলেন, “আমি জানি না কী হল। আমি মনে করি প্রথম রাউন্ডে আমরা দু’জনই আমাদের স্ট্র্যাটেজি কাজে লাগানোর চেষ্টা করেছিলাম এবং পরের দুটো রাউন্ডে আমি জিতেছিলাম।”

প্রিকোয়ার্টারের বাউটের শেষে মেরির ব্যক্তিগত কোচ ও জাতীয় স্তরের অ্যাসিস্ট্যান্ট কোচ ছোটে লাল যাদব বলেন, “আমি এই পয়েন্ট সিস্টেমটা বুঝতে পারলাম না। ও যখন প্রথম রাউন্ডে ১-৪ ব্যবধানে হেরে গেল তারপর কী করে আরও দুভাগে ভাগ করা হল। এটা খুবই হতাশাজনক। কিন্তু কিছু করার নেই। ধরে নিতে হবে এটাই কপালে ছিল।”

অন্যদিকে ছেলেদের সুপার হেভিওয়েট বক্সিংয়ে (৯১+কেজি) বিভাগের কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে গেছেন ভারতীয় বক্সার সতীশ কুমার। জামাইকান প্রতিপক্ষ রিকার্ডো ব্রাউনকে ৪-১ ব্যবধানে হারাল সতীশ। পদক জয়ের জন্য একধাপ এগোলেন এই ভারতীয় বক্সার। কোয়ার্টার ফাইনালে সতীশ উজবেক প্রতিপক্ষ জালোলভের মুখে নামবেন। সেখানে জিততে পারলেই ভারতের পদক জয় নিশ্চিত। সতীশ ছাড়াও ভারতকে আশা দেখাচ্ছেন লভলিনা ও পূজা রানি। এই দুই মহিলা বক্সারও কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছেন।

কেরিয়ারের শেষ অলিম্পিকে খালি হাতে ফিরতে হল ভারতের সুপারস্টার বক্সার মেরি কমকে। যা তাঁর পাশাপাশি গোটা দেশবাসীকে হতাশ করছে। তাঁর প্রতি আশায় বুক বেঁধেছিল পুরো দেশ। একদিকে মেরির অলিম্পিক সফর যেখানে শেষ হল, সেখানে তিন তাঁরার উদয় হল। এই তাঁরারা ভারতকে পদক এনে দিতে পারে কি না সেটা দেখারই অপেক্ষা।

অলিম্পিকের আরও খবর পড়তে ক্লিক করুনঃ টোকিও অলিম্পিক ২০২০

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla