মহাকাশ অভিযানে এবার আগ্রহী অ্যাপেলের সহ-প্রতিষ্ঠাতা Steve Wozniak, তৈরি করছেন প্রাইভেট স্পেস কোম্পানি Privateer

জেফ বেজোস, ইলন মাস্ক, রিচার্ড ব্র্যানসনের এবার তালিকায় অ্যাপেলের সহ-প্রতিষ্ঠাতা Steve Wozniak। স্টিভ তৈরি করছেন প্রাইভেট স্পেস সংস্থা Privateer।

মহাকাশ অভিযানে এবার আগ্রহী অ্যাপেলের সহ-প্রতিষ্ঠাতা Steve Wozniak, তৈরি করছেন প্রাইভেট স্পেস কোম্পানি Privateer

এতদিন পর্যন্ত সাধারণ মানুষের মধ্যে এই ছবিটাই স্পষ্ট ছিল যে, মহাকাশ অভিযানে যান নভশ্চররা। আর বিভিন্ন দেশের স্পেস এজেন্সিই মূলত এইসব অভিযানের আয়োজন করে। তবে বিগত কয়েক বছর ধরে এই ধারণা বদলাতে শুরু করেছে। কারণ স্পেস মিশন বা মহাকাশ অভিযানে আগ্রহ দেখিয়েছেন বিশ্বের তাবড় ধনকুবের এবং tech entrepreneur- রা। ইতিমধ্যেই জেফ বেজোস, ইলন মাস্ক, রিচার্ড ব্র্যানসনের নাম জুড়েছে এই তালিকায়। এবার এই একই দলে নাম লেখাতে চলেছে কুপার্টিনোর টেক জায়ান্ট অ্যাপেল সংস্থার সহ-প্রতিষ্ঠাতা স্টিভ উজনিয়াক (Steve Wozniak)।

গত ১৩ সেপ্টেম্বর স্টিভ ঘোষণা করেছেন যে, তিনি একটি প্রাইভেট স্পেস কোম্পানি তৈরি করতে চলেছেন। টুইট করে Steve Wozniak জানিয়েছেন যে, বাকিদের মতো তিনিও এবার স্পেস মিশন নিয়ে ভাবনাচিন্তা শুরু করেছেন। শোনা গিয়েছে, নতুন এই কোম্পানির নাম হবে Privateer। আর এই সংস্থার মূল লক্ষ্য হবে মানজাতির জন্য মহাকাশ অভিযান নিরাপদ এবং সহজলভ্য করে তোলা। তবে স্টিভ একা এই সংস্থা নির্মাণ করবেন না। Ripcord- এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা Alex Fielding- এর সঙ্গে একত্রিত হয় Privateer Space সংস্থা তৈরি করতে চলেছেন Steve Wozniak। টুইটারে একটি ইউটিউব ভিডিয়ো শেয়ার করে স্টিভ বলেছেন, ‘একসঙ্গে আমরা অনেক দূর যাব।’

Steve Wozniak- এর টুইট 

টুইটারে নিজের আসন্ন সংস্থা সম্পর্কে ধারণা দেওয়ার জন্য স্টিভ যে ভিডিয়ো শেয়ার করেছেন, তা এর মধ্যেই দেখে ফেলেছেন অসংখ্য মহাকাশপ্রেমী। সত্যিই ওই ভিডিয়ো মনোমুগ্ধকর। আর সবচেয়ে আকর্ষণীয় ওই ভিডিয়োর সঙ্গে দেওয়া বিশেষ বার্তা। ভিডিয়োর ব্যাকগ্রাউন্ডে ভয়েস ওভারে বলা হয়েছে ‘একসঙ্গে আমরা অনেক দূর যাব। একে অন্যের খেয়াল রাখব। সমস্যার সমাধান করব। এটা কোনও প্রতিযোগিতা, দৌড় বা খেলা নয়। আমরা কেবল একজন মানুষ বা একটি কোম্পানি কিংবা একটি জাতি নয়। আমরা একটা গ্রহ। আমরা আবিষ্কারক। আমরা স্বপ্ন দেখি, ঝুঁকি নেই। আমাদের মধ্যে রয়েছে ইঞ্জিনিয়ার এবং তারা দেখা আগ্রহী মানুষরা। আমরা মানুষ এবং এটা আমাদের উপরেই নির্ভর করে যে কোনটা সঠিক, কোনটা ভাল। তাই আমাদের যা আছে তার যত্ন নেওয়া প্রয়োজন, যাতে আগামী প্রজন্মে একসঙ্গে আরও ভাল থাকে।’

দেখুন সেই ইউটিউব ভিডিয়ো

Privateer কোম্পানি সম্পর্কে বিশদে এখনও কিছু জানা যায়নি। শুধু সংস্থার ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, ‘আকাশের কোনও সীমানা নেই।’ এর পাশাপাশি জানা গিয়েছে যে ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জে শুরু হতে Maui Optical and Space Surveillance Technologies conference। সেখানে উপস্থিত থাকবে Privateer কোম্পানি।

আরও পড়ুন- Unity 23: ভার্জিন গ্যালাকটিক সংস্থার অভিযানে বাধা, পিছিয়ে গেল ‘স্পেস মিশন’

আরও পড়ুন- Inspiration 4: স্পেস এক্সের ‘অল সিভিলিয়ান ক্রু মিশন’ শুরু হচ্ছে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla