Crime News: ‘একটা খুন করেছি, আরও ২ খুন করব!’ স্ত্রীকে একের পর এক ধারাল অস্ত্রের কোপ প্রাক্তন স্বামীর

Birbhum: ২০২০ সালে তাদের বিবাহবিচ্ছেদ হয়।

Crime News: 'একটা খুন করেছি, আরও ২ খুন করব!' স্ত্রীকে একের পর এক ধারাল অস্ত্রের কোপ প্রাক্তন স্বামীর
ধারালো অস্ত্রের কোপে মহিলার মৃত্যু

বীরভূম: বিয়ের পর থেকেই সংসারে চলছিল একের পর অশান্তি। কিছুতেই থামছিল না। সেই কারণে বিবাহবিচ্ছেদও হয়ে যায় দু’জনের মধ্যে। কিন্তু এরপরও মুক্তি নেই। বিবাহবিচ্ছেদের পরও চলছে ঝামেলা। এরপরই হঠাৎ প্রাক্তন স্ত্রীর উপর হামলা চালায় প্রাক্তন স্বামী। ঘটনায় গুরুতর জখম হয়ে যান তিনি।

ঘটনাস্থান বীরভূমের নলহাটি। অভিযুক্ত স্বামীর নাম আজমির শেখ। জানা গিয়েছে,নলহাটি থানার গোপালপুর গ্রামের আজমীর সেখের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল জুলেখা খাতুনের । তবে বিয়ের পর থেকে খুশি ছিলেন না স্বামী-স্ত্রী। ঘরের মধ্যে অশান্তি লেগেই থাকত। এরপর ২০২০ সালে তাদের বিবাহবিচ্ছেদ হয়। বিবাহ বিচ্ছেদের পর থেকেই জুলেখা দেবী তার বাপের বাড়িতে থাকতে শুরু করেন।

অভিযোগ, গতকাল সন্ধেয় হঠার প্রাক্তন স্বামী আজমীর গোপালচক গ্রামে জুলেখার বাড়িতে এসে জুলেখাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে বেশ কয়েকবার কোপ মারে বলে অভিযোগ। এরপরই যন্ত্রণায় চিৎকার করতে থাকেন জুলেখা।তার চিৎকার শুনে তার বাবা মা ও প্রতিবেশিরা ছুটে আসেন ।

এক এলাকাবাসী বলেন, “আজ ভোর নাগাদ আজমীর বাড়িতে আসে। এরপর হঠাৎই সে মেয়েকে কোপ মারে। ধারালো অস্ত্র দিয়ে একের পর এক কোপ মারতে থাকে। রক্তে ভেসে যায় গোটা ঘর। এরপর আজমীর বলে যে একজনকে মেরেছি আরও দুটো খুন করব। এরপর ওকে গাছে বেঁধে রাখে প্রতিবেশীরা।”

রক্তাক্ত অবস্থায় প্রথমে পাঁচগ্রাম ও পরে বহরমপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই তার মৃত্যু হয় । এদিকে প্রতিবেশিদের হাতে ধরা পড়ে যায় আজমীর । তাকে দড়িতে বেঁধে রেখে পুলিশে খবর দেয় গ্রামবাসীরা । খবর পেয়ে নলহাটি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে ।

প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগেই পূর্ব মেদিনীপুরে এমনই এক খবর এসেছিল। পরকীয়ায় বাধা পেয়ে স্ত্রী ও ছোট্ট ছেলেকে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাকে কেন্দ্র কেরে তীব্র উত্তেজনা ছড়াল পূর্ব মেদিনীপুরের এগরা এলাকায়।বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে স্ত্রী ও সন্তানকে মারধর করার অভিযোগ উঠল স্বামীর বিরুদ্ধে। আক্রান্ত স্ত্রী কেকা মাইতির অভিযোগের ভিত্তিতে স্বামীকে আটক করল এগরা থানার পুলিশ (Police)। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার এক নম্বর ওয়ার্ডের দিঘা মোড় এলাকায়। অভিযুক্ত স্বামী ইন্দ্রজিৎ মাইতিকে নিজেদের হেেফাজতে নিজে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে এগরা থানার পুলিশ।

এগরা দিঘা মোড় সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দা ইন্দ্রজিৎ মাইতি দীর্ঘদিন ধরে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কের সঙ্গে যুক্ত বলে অভিযোগ স্ত্রীয়ের। এ নিয়ে রোজকার অশান্তি লেগে থাকত সংসারে। কয়েক দিন ধরে সেই ঝামেলা আরও বাড়ছিল। স্ত্রীয়ের অভিযোগ, গত একমাস ধরে স্বামী আরেকটি মেয়েকে  বিয়ে করবে বলে তাঁর উপর অত্যাচার করত। এদিন এ নিয়ে ফের একপ্রস্থ ঝামেলা হয় স্বামীর সঙ্গে। আর তার মধ্যেই ছেলে ও তাঁকে প্রাণে মেরে ফেলার চেষ্টা করেন স্বামী বলে অভিযোগ তাঁর।

আরও পড়ুন: KMC Election 2021: পুরভোটে বেশির ভাগ আসনেই মুখোমুখি লড়বে বাম-কংগ্রেস!

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla