‘আরও এক প্রেমিকাকে পুঁতে দিয়েছি,’ এক খুনের তদন্তে বেরিয়ে এল চাঞ্চল্যকর কাহিনি!

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: সৈকত দাস

Updated on: Sep 13, 2021 | 6:57 PM

Murder Casea: এক অজ্ঞাত পরিচয় মহিলার খুনের তদন্তে নেমে মূল অভিযুক্তের কাছে পৌঁছে গিয়েছিল পুলিশ। কিন্তু তাকে পাকড়াও করতে বেরিয়ে এল আরেক বিস্ফোরক তথ্য।

'আরও এক প্রেমিকাকে পুঁতে দিয়েছি,' এক খুনের তদন্তে বেরিয়ে এল চাঞ্চল্যকর কাহিনি!
অভিযুক্তকে সঙ্গে নিয়ে তার প্রেমিকার দেহ খুঁজছে পুলিশ। নিজস্ব চিত্র

শিলিগুড়ি: এক অজ্ঞাত পরিচয় মহিলার খুনের তদন্তে নেমে মূল অভিযুক্তের কাছে পৌঁছে গিয়েছিল পুলিশ। কিন্তু তাকে পাকড়াও করতে বেরিয়ে এল আরেক বিস্ফোরক তথ্য। দুই প্রেমিকাকে খুনের অভিযোগে পুলিশ গ্রেফতার করল জনৈক মহম্মদ আখতারকে। ঘটনাটি ঘটেছে শিলিগুড়ির মাটিগাড়া থানা এলাকায়।

দুই প্রেমিকাকে খুন করে দেহ লোপাটের চেষ্টা করেছিল প্রেমিক। এক অজ্ঞাত পরিচয় মহিলার দেহ উদ্ধারের পর অন্য একজনের খোঁজ পেল পুলিশ। চারমাস পর কবর থেকে এক প্রেমিকার দেহ উদ্ধার করল তর। আর অন্য প্রেমিকার দেহ উদ্ধার হল কম্বলে মোড়া অবস্থায় একটি পরিত্যক্ত জমিতে। ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়াল শহরে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে,  গত ৩১ অগস্ট চাঁদমণির এক যুবতীর দেহ মাটিগাড়া রেলগেট সংলগ্ন এলাকায় উদ্ধার হয়। মাসখানেক ধরে ওই যুবতী নিখোঁজ ছিলেন। তদন্তে নেমে মাটিগাড়া থানা ও মেডিকেল ফাঁড়ির পুলিশ বেশ কিছু তথ্য হাতে পান। তার সূত্র ধরে তারা পৌঁছে যায় মহম্মদ আখতার নামে এক যুবকের কাছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে একাধিক অসঙ্গতি পায় পুলিশ। দীর্ঘ জেরায় সে স্বীকার করে ওই মহিলাকে খুন করেছে সেই-ই। তার পর জানায় আরও এক মহিলাকে খুন করেছে সে!

মহম্মদ আখতারকে জেরা করে পুলিশ জানতে পারে বিবাহ বহির্ভূত অন্য সম্পর্ক থাকায় সে জেনে গিয়েছিল এক প্রেমিকা। তাই তাকে মদপান করিয়ে খুন করা হয়। এরপর তদন্তকারী পুলিশ আধিকারিকরা জেরায় আরও চাপ বাড়ালে চার মাস আগে একইভাবে আরেক প্রেমিকাকে খুন করে দেহ লোপাটের কথাও স্বীকার করে অভিযুক্ত। এরপর তার দেওয়া বয়ান অনুযায়ী সোমবার দুপুরে মাটিগাড়ার কবরস্থান আরেক প্রেমিকার কঙ্কালসার দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর দেহ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। ঘটনায় দুই যুবতীর পরিবারের সদস্যদের তলব করা হয়েছে। তাদেরকেও জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

অভিযুক্ত যুবক শিলিগুড়ি সংলগ্ন মাটিগাড়ার শুটকিহাটের বাসিন্দা। সে যে দুই যুবতীকে খুন করেছে তার মধ্যে এক যুবতী বিবাহিত ছিল বলে পুলিশ সূত্রে খবর। বিবাহিত ওই যুবতী মাটিগাড়ার টুম্বাজোতের বাসিন্দা। আরেক যুবতী মাটিগাড়ার চাঁদমণি এলাকার বাসিন্দা। অভিযুক্তকে পুলিশ প্রাথমিক জেরা করে জানতে পেরেছে, সে নিজেও বিবাহিত। তার স্ত্রী ও এক সন্তান রয়েছে। বহুদিন ধরেই ওই অভিযুক্তের বিবাহ বহির্ভূত একাধিক সম্পর্ক ছিল বলে জানতে পারে পুলিশ। প্রাথমিক ভাবে পুলিশ মনে করছে, একাধিক সম্পর্কে জড়িয়ে ঝামেলা থেকেই এই খুন করেছে অভিযুক্ত।

শিলিগুড়ি পুলিশ কমিশনারেটের ডিসিপি (পূর্ব, জোন ১) জয় টুডু বলেন, “ঘটনায় ওই মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। দেহ দুটির ময়নাতদন্তের জন্য উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে ইতিমধ্যে অভিযুক্তকে পাঁচদিনের পুলিশি হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ঘটনায় আর কেউ জড়িত রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।”

আরও পড়ুন: মুখ থুবড়ে পড়ে রয়েছে শরীরটা, পাশেই পড়ে মাছ! মহিলার মৃত্যুতে উঠে এল অন্য তত্ত্ব 

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla