Malda: বাম আমলে পাওয়া পাট্টা কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে, বাধা দেওয়ায় সস্ত্রীক বৃদ্ধকে মার

Malda: হরিশ্চন্দ্রপুরের রশিদাবাদ গ্রাম পঞ্চায়েতের বিরুয়া গ্রামের ঘটনা। ঘটনায় দুই পক্ষ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

Malda: বাম আমলে পাওয়া পাট্টা কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে, বাধা দেওয়ায় সস্ত্রীক বৃদ্ধকে মার
পাট্টার জমি দখল তৃণমূলের বিরুদ্ধে (নিজস্ব ছবি)
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অবন্তিকা প্রামাণিক

May 31, 2022 | 1:10 PM

মালদা: পাট্টার জমি কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠল এক বৃদ্ধের কাছ থেকে। শুধু তাই নয়, মারধর করে কেড়ে নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। আর এই কাজে নাম জড়িয়েছে এক তৃণমূল নেতার। শুধু তাই নয়, একই সঙ্গে ভূমি সংস্কার আধিকারিকের বিরুদ্ধে মোটা টাকার বিনিময়ে পাট্টার জমি হস্তান্তরেরও অভিযোগ উঠেছে।

একদিকে যেখানে পুরুলিয়ায় প্রশাসনিক সভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভূমি সংস্কার দফতরের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। সেখানেই মালদার হরিশ্চন্দ্রপুরে আবার ভূমি সংস্কার দফতরের বিরুদ্ধে বেআইনি ভাবে এবং অর্থের বিনিময়ে পাট্টা জমি হস্তান্তর করার অভিযোগ উঠল।

হরিশ্চন্দ্রপুরের রশিদাবাদ গ্রাম পঞ্চায়েতের বিরুয়া গ্রামের ঘটনা। ঘটনায় দুই পক্ষ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। তদন্তে নেমেছে পুলিশ। জানা গিয়েছে, মালদার রশিদাবাদ গ্রাম পঞ্চায়েতের বীরুয়া গ্রামের বাসিন্দা সাবেরা খাতুনের নামে বাম আমলে ১৫ কাঠা জমির পাট্টা দেওয়া ছিল। সেই জমিতে সাবেরা খাতুন ও তাঁর পরিবার চাষবাস করে সংসার চালাচ্ছিলেন। অভিযোগ, গত বছর থেকেই এই জমি দখল নিতে চায় স্থানীয় তৃণমূল নেতা মুক্তার ও তার দলবল। দখলের জেরে, মুক্তার সাবেরা খাতুন ও তাঁর পরিবারের উপর হামলা চালাচ্ছিল বলেও অভিযোগ।

বৃদ্ধের মেয়ে বলেন, ‘আমাদের কোনও জায়গা জমি নেই। ওইটাই জমি ছিল। দীর্ঘ তিরিশ-একত্রিশ বছর ধরে আমার বাবা ওই জায়গায় চাষবাস করে সংসার চালায়। সেই জমিটাও দখল করে নিয়েছে। টিনের বেড়া দিয়ে ঘিরে দিয়েছে। ওই জমিতে এখন ঘর তুলছে।’

এমনকী জমি ছেড়ে দেওয়ার জন্য অস্ত্রসস্ত্র লাঠি-সোঁটা নিয়ে একাধিকবার আক্রমণ চালায় বলে অভিযোগ উঠেছিল। এরপর গত শনিবার দুপুর বেলায় দলবল নিয়ে মুক্তার সবেরার পাট্টার সেই জমি দখল করে নেয়। সেখানে টিনের ঘর তুলতে শুরু করে। এবার নিজেদের জমি সাবেরা ও তাঁর স্বামী ফায়েদ বাধা দিতে গেলে মুক্তারের দলবল তাদের ব্যাপক মারধর করেছে বলে অভিযোগ উঠছে। এমনকী অস্ত্র উঁচিয়ে হুমকি দিয়েছে বলেও খবর। মারের চোটে গুরুতর আহত হয়ে পড়ে সাবেরার বৃদ্ধ স্বামী। তাঁকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হরিশচন্দ্রপুর গ্রামে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এই খবরটিও পড়ুন

গোটা ঘটনায় হরিশ্চন্দ্রপুর ভূমি সংস্কার আধিকারিকের দিকেও অভিযোগের আঙুল উঠেছে। আক্রান্ত পরিবারের অভিযোগ, মোটা টাকার বিনিময়ে ভূমি সংস্কার আধিকারিক ওই প্রভাবশালী তৃণমূল নেতার মদত করেছে। বেআইনিভাবে রাতের অন্ধকারে পাট্টা জমি ওই তৃণমূল নেতার নামে রেকর্ড করিয়ে দিয়েছে। যদিও গোটা ঘটনা অস্বীকার করেছেন ওই তৃণমূল নেতা। মোক্তার জানিয়েছেন, ‘এই সকল অভিযোগ মিথ্যে। জমি আমার বাবার নামে আছে । জমি কোনও পাট্টা হয়নি। জমির ভাগ নিতে গেলে শুধু পুলিশ চলে আসে। আমারা কাগজপত্রও দেখিয়েছি। আমরা এমএলএ-কে কাগজ দেখিয়েছি। উনি কিছু বোঝে না। বলেন পাট্টা রয়েছে। যেখানে ভূমি সংস্কার আধিকারিক লিখে দিয়েছে এই জমিতে কোনও পাট্টা নেই। বিধায়ক চাইছেন ঝগড়া বাড়ুক। প্রশাসন তদন্ত করুক।’ অপরদিকে, স্থানীয় আরও এক তৃণমূল নেতা বলেন, ‘এর আগেও জায়গা-জমি নিয়ে ঝামেলা হয়েছে।এরা বিধানসভা ভোটের আগে তৃণমূলে যোগদান করে। কেউ যদি এমন কাজ করে অবশ্যই দল ব্যবস্থা নেবে। এর বেশি কিছু বলতে পারব না।’

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla