Fake Vaccination: ‘বাংলার নগ্ন অবস্থা প্রকাশ্যে,’ মন্ত্রীদের তুলোধোনা অধীরের

অধীরের (Adhir Ranjan Chowdhury) কথায়, মুখ্যমন্ত্রীর বাংলার মানুষের সামনে এসে বলা উচিত সারা বাংলা জুড়ে ভ্যাকসিন প্রক্রিয়া কীভাবে চলছে। ব্যাখ্যা দেওয়া উচিত।

Fake Vaccination: 'বাংলার নগ্ন অবস্থা প্রকাশ্যে,' মন্ত্রীদের তুলোধোনা অধীরের
ফাইল চিত্র।

মুর্শিদাবাদ: কলকাতার টিকা (COVID Vaccine) জালিয়াতিকাণ্ডে রাজ্যের মন্ত্রীদের তুলোধোনা করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী (Adhir Ranjan Chowdhury)। বললেন, ভুয়ো ভ্যাকসিন কলকাতার মত শহরেও যে দেওয়া সম্ভব সেটাই প্রমাণ হয়ে গেল।

“বাস্তবে আজ বাংলার যে অবস্থা তার নগ্ন ভাবে সামনে এল। পুলিশ প্রশাসন বলছে আমরা জানি না, বাংলার মানুষকে কি গিনিপিগে রূপান্তরিত করা হচ্ছে?” কসবা টিকা (COVID Vaccine) জালিয়াতি কাণ্ডের মূল অভিযুক্ত দেবাঞ্জন দেবের (Debanjan Deb) এর বিরুদ্ধে উঠে আসছে একের পর এক তথ্য। তাঁর সঙ্গে রাজ্যের একাধিক মন্ত্রী থেকে কলকাতা পুরসভার আধিকারিকদের ছবিতে দেখা গিয়েছে। এ নিয়ে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। আর এই কাণ্ড নিয়ে রাজ্যের শাসক দলকে তীব্র কটাক্ষ করলেন বহরমপুরের কংগ্রেস সাংসদ।

অধীরের কথায়, মন্ত্রীদের নাম নিয়ে কীভাবে কলকাতার বুকে শিবির চলছে? কেন মানুষের দেহে ভ্যাকসিনের নামে অন্য কিছু প্রবেশ করানো হল? কে এর দায় নেবে?” তিনি যোগ করেন, এ বিষয়ে বিচারবিভাগীয় তদন্ত দরকার। সিআইডি, সিবিআই-এর উপর আস্থা নেই। তাই কলকাতার বিচারপতিকে দায়িত্ব দেওয়া হোক তদন্তের। এই জালিয়াতি কাণ্ড যাতে ধামাচাপা না পড়ে তা দেখা জরুরি।

এদিকে ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ডে দেবাঞ্জন দেবকে গ্রেফতার করে নানা তথ্য পাচ্ছে পুলিশ। ভুয়ো আইএএস অফিসারের পরিচয় দেওয়া ওই ব্যক্তির ঘনিষ্ঠকেও আটক করা হয়েছে। এই প্রেক্ষিতে অধীর চৌধুরীর প্রশ্ন, “এই ভ্যাকসিনের নামে যা দেওয়া হয়েছে, তার জেরে যদি কেউ যদি মারা যান তার দায়িত্ব কে নেবে? মেডিকেল কলেজ থেকে দামি ওষুধ উধাও হয়ে যাচ্ছে কীভাবে হচ্ছে? কলকাতার মত মহানগরীতে ভ্যাকসিনশনের নামে যদি এই সব চলে তাহলে বিশ্বের দরবারে বাংলার ভাবমূর্তি কোথায় যাবে? কেন এ বিষয়ে এখনও মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিক্রিয়া আসেনি?”

অধীর আরও যোগ করেন, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর বাংলার মানুষের সামনে এসে বলা উচিত সারা বাংলা জুড়ে ভ্যাকসিন প্রক্রিয়া কীভাবে চলছে। ব্যাখ্যা দেওয়া উচিত। এই ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ডে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। এমনিতেই গ্রামগঞ্জের মানুষ ভ্যাকসিন নিতে চায় না। তারা মনে করে ভ্যাকসিন নিলে বিপদ হবে। তার মধ্যে এই ঘটনা! মন্তব্য অধীরের।

আরও পড়ুন: ভাইপোর হাতে বিশ্বাস করে চাবি দিয়েছিলেন পরিযায়ী শ্রমিক, ফিরে এসে দেখলেন আস্ত বাড়িটাই উধাও!

প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বলেন, করোনা ভ্যাকসিন ভারতবর্ষের অনেক জায়গায় নিতে চাইছে না মানুষ। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে যদি মানুষ শোনে ভ্যাকসিনের নামে এসব দেওয়া হচ্ছে, তবে ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য দ্বিধা আরও বেড়ে যাবে। মমতা শুধু বাংলার মুখ্যমন্ত্রীই নন, তিনি রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রীও। তিনি তো টিভির সামনে প্রত্যেকদিনই বলেন। তাই এটা নিয়েও কিছু বলুন। দাবি অধীরের।

 আরও পড়ুন: ভুয়ো টিকাকাণ্ডে আটক আরও এক, পুলিশের জালে দেবাঞ্জন ঘনিষ্ঠ 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla