করোনা কড়চা: বিপদের ঝুঁকি এড়াতে ভ্যাকসিনের লাইনে সারি সারি ইটের টুকরো!

মঙ্গলবার রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, একদিনে করোনা (COVID-19) আক্রান্ত হয়েছেন ৯ হাজার ৮১৯ জন।

করোনা কড়চা: বিপদের ঝুঁকি এড়াতে ভ্যাকসিনের লাইনে সারি সারি ইটের টুকরো!
নিজস্ব চিত্র।

মেদিনীপুর: করোনা (COVID-19) পরিস্থিতি ক্রমেই উদ্বেগ বাড়াচ্ছে। আগাম সতর্কতা হিসাবে টিকা নিতে তাই হাসপাতালগুলিতে লম্বা লাইন। ভোর হতে না হতেই ইট পেতে লাইন রাখছেন সাধারণ মানুষ। বুধবার এমনই ছবি ধরা পড়ল মেদিনীপুরের একাধিক হাসপাতালে।

বেলাগাম করোনা সংক্রমণ দেশজুড়ে। আগাম সতর্কতা হিসাবে মাস্ক-স্যানিটাইজার ব্যবহারের পাশাপাশি টিকা নেওয়ার জন্যও আবেদন জানাচ্ছেন চিকিৎসকরা। প্রথম দিকে টিকাগ্রহণে সাধারণ মানুষের কিছু অনীহা থাকলেও বর্তমান পরিস্থিতির দিকে তাকিয়ে এখন সকলেই চাইছেন টিকা নিতে। ফলে বাড়ছে টিকার চাহিদা। এদিকে একাধিক জায়গায় টিকার ঘাটতির অভিযোগ উঠছে। অন্যদিকে মানুষও দ্রুত টিকা পেতে মরিয়া।

জেলায় জেলায় সরকারি হাসপাতাল, স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলিতে তাই সকাল থেকে লম্বা লাইন। এদিন সকাল থেকে মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোণা ও ঘাটাল হাসপাতালে করোনা ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য। বেলা বাড়তেই লাইনে মানুষের জায়গায় দেখা গেল সারি সারি ইটের টুকরো।

আরও পড়ুন: ভয়ঙ্কর গতিতে এগোচ্ছে করোনা, ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত প্রায় ৩ লাখ, মৃত্যু ২,০২৩ জনের

টিকা নিতে আসা সাধারণ মানুষ জানান, জমায়েত এড়াতে এবং প্রচণ্ড রোদের হাত থেকে নিজেকে বাঁচাতেই এই উদ্যোগ। ঘাটাল হাসপাতালে প্রতিদিন ১৫০ জন মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়। তবে বর্তমানে যা কোভিড-পরিস্থিতি, তাতে এই সংখ্যক ভ্যাকসিন প্রয়োজনের থেকে কম বলেই মনে করছেন ঘাটালবাসী।