Afghanistan: কপালে নাচছিল পাথরের আঘাতে নির্মম তালিবানি মৃত্যু, চরম সিদ্ধান্তটা নিয়েই ফেললেন আফগান মহিলা

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: Amartya Lahiri

Updated on: Oct 18, 2022 | 10:07 AM

Afghan Women: তাঁর অপরাধ ছিল এক বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে পালিয়ে যাওয়া। কিন্তু, দেশে মহিলা কারাগারের অভাব। তাই, তাঁকে প্রকাশ্যে পাথর ছুড়ে আঘাত করে মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তালিবান কর্তৃপক্ষ।

Afghanistan: কপালে নাচছিল পাথরের আঘাতে নির্মম তালিবানি মৃত্যু, চরম সিদ্ধান্তটা নিয়েই ফেললেন আফগান মহিলা
প্রতীকী ছবি

কাবুল: তাঁর অপরাধ ছিল এক বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে পালিয়ে যাওয়া। কিন্তু, দেশে মহিলা কারাগারের অভাব। তাই, তাঁকে প্রকাশ্যে পাথর ছুড়ে আঘাত করে মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তালিবান কর্তৃপক্ষ। প্রকাশ্যে সেই নিষ্ঠুর মৃত্যু এড়াতে, শেষ পর্যন্ত গলায় দোপাট্টার ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী হলেন এক আফগান মহিলা। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে গত সপ্তাহে, আফগানিস্তানের ঘোর প্রদেশে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলির প্রতিবেদন অনুসারে, এই ঘটনার সূত্রপাত হয়েছিল সপ্তাহখানেক আগে। গ্রামেরই এক বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে বাড়ি থেকে পালিয়েছিলেন ওই মহিলা। কিন্তু, এই কাহিনি পৌঁছে গিয়েছিল তালিবান কর্তৃপক্ষের কানে। তারপর, ওই মহিলা এবং পুরুষ – দুজনকেই শাস্তির বিধান দেয় তালিবানিরা। গত বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর), যে বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে পালিয়েছিলেন ওই মহিলা, তাঁর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। কথা ছিল শুক্রবার, মহিলাকে পাথর ছুড়ে ছুড়ে আঘাত করে, মেরে ফেলা হবে। কিন্তু, তার আগেই আত্মঘাতী হন তিনি।

ঘোর প্রদেশের তালিবানি প্রাদেশিক পুলিশের মুখপাত্র আব্দুর রহমান বলেছেন, “আমাদের এখানে মহিলা কারাগার না থাকার কারণেই, ওই মহিলাকে প্রকাশ্যে পাথর মারার শাস্তি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু, শাস্তি পাওয়ার আগেই, তিনি একটি দোপাট্টা দিয়ে শ্বাসরোধ করে নিজের জীবন শেষ করে দেন।” সূত্রের খবর, সম্প্রতি আফগান দেশের বিভিন্ন প্রদেশে মহিলাদের বাড়ি থেকে পালিয়ে যাওয়ার প্রবণতা বেড়েছে। আর এই প্রবণতা রুখতে, তালিবান সরকার তাঁদের পাথর মেরে হত্যা বা প্রকাশ্যে বেত্রাঘাত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

২০২১ সালের অগস্টে আফগানিস্তানের ক্ষমতা পুনর্দখল করেছিল তালিবানরা। তারপর থেকে তালিবানি শাসনে ক্রমেই মহিলাদের অধিকার ও স্বাধীনতা খর্ব করা হয়েছে। বিধিনিষেধের কারণে শিক্ষা থেকে কাজ, বাদ পড়েছে মহিলারা। শিক্ষার উপর বিধিনিষেধ আরোপ করা দিয়ে শুরু হয়েছিল। ষষ্ঠ শ্রেণির উপরে মহিলা শিক্ষার্থীদের স্কুলে যাওয়া নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ফলে, আফগান মহিলারা এখন চরম মানবাধিকার সংকটের মুখোমুখি। শিক্ষা, কাজ, সামাজিক অংশগ্রহণ এবং স্বাস্থ্যের মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla