Punjab CM’s Brother Joins BJP: নির্বাচনের আগেই বড় ধাক্কা কংগ্রেসে, বিজেপিতে যোগ দিলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রীর ভাই!

Punjab Assembly Election 2022: মঙ্গলবারই বিজেপিতে যোগ দেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চন্নির খুড়তুতো ভাই জসবিন্দর সিং ঢালিওয়াল। এছাড়াও প্রাক্তন বিধায়ক অরবিন্দ খান্না, শিরোমণি আকালি দলের নেতা গুরদীপ সিং গোঁসা ও অমৃতসরের প্রাক্তন কাউন্সিলর ধরমবীর সারিন বিজেপিতে যোগ দেন।

Punjab CM's Brother Joins BJP: নির্বাচনের আগেই বড় ধাক্কা কংগ্রেসে, বিজেপিতে যোগ দিলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রীর ভাই!
বিজেপিতে যোগদান করলেন মুখ্যমন্ত্রীর ভাই। ছবি:ANI

চণ্ডীগঢ়: নির্বাচনের দিন ঘোষণা হতেই শুরু হয়ে গিয়েছে দলবদলের খেলাও। খোদ মুখ্যমন্ত্রীর পরিবারের সদস্যই যোগ দিলেন বিরোধী দলে। বিধানসভা নির্বাচনের এক মাস আগেই পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চন্নি(Charanjit Singh Channi)-র খুড়তুতো ভাই জসবিন্দর সিং ঢালিওয়াল (Jaswinder Singh Dhaliwal) যোগ দিলেন বিজেপি(BJP)-তে। মঙ্গলবার চণ্ডীগঢ়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গজেন্দ্র সিং শেখাওয়াত(Gajendra Singh Shekhawat)-র হাত ধরে তিনি নতুন দলের পতাকা ধরেন।   

বিজেপিতে যোগদান একাধিক কংগ্রেস নেতার:

গত সপ্তাহেই জাতীয় নির্বাচন কমিশনের তরফে পঞ্জাব, উত্তর প্রদেশ, উত্তরাখণ্ড সহ ৫ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের (Assembly Election 2022) দিন ঘোষণা করা হয়। পঞ্জাবে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি এক দফাতেই নির্বাচন হতে চলেছে। আগামী ১০ মার্চ ভোটের ফল প্রকাশ হবে।

একদিকে যেমন আসন ধরে রাখার লড়াই চালাচ্ছে শাসক দল কংগ্রেস, অন্যদিকে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংয়ের সঙ্গে জোট বেঁধে গদি দখলের লড়াইয়ে নেমেছে বিজেপি। কংগ্রেস যেখানে অন্তর্দ্বন্দ্ব সামলাতেই হিমশিম খাচ্ছে, সেখানেই একাধিক দলের নেতারা বিজেপিতে যোগ দেওয়ায়, তাদের শক্তি বৃদ্ধি হচ্ছে। মঙ্গলবারই বিজেপিতে যোগ দেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চন্নির খুড়তুতো ভাই জসবিন্দর সিং ঢালিওয়াল। এছাড়াও প্রাক্তন বিধায়ক অরবিন্দ খান্না, শিরোমণি আকালি দলের নেতা গুরদীপ সিং গোঁসা ও অমৃতসরের প্রাক্তন কাউন্সিলর ধরমবীর সারিন বিজেপিতে যোগ দেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী ও গজেন্দ্র সিং শেখাওয়াতের উপস্থিতিতেই তাঁরা দিল্লিতে বিজেপির সদর কার্যালয়ে যোগদান করেন।

ক্ষমতা দখলের লড়াই:

শিরোমণি আকালি দল-বিজেপি জোটে ১০ বছর ধরে যে সরকার ছিল পঞ্জাবে, তা হটিয়ে ২০১৭ সালের বিধানসভা নির্বাচনে জয়ী হয় কংগ্রেস। মোট আসনের মধ্যে ৭৭ টি আসনই তাদের দখলে ছিল। দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসে আম আদমি পার্টি, ২০টি আসনে জয়ী হয় তারা। শিরোমণি আকালি দল পায় ১৫টি আসন এবং বিজেপি ৩টি আসনে জয়ী হয়।

এবারের নির্বাচনে কড়া টক্কর হতে চলেছে কংগ্রেস-বিজেপির মধ্যে। কৃষি আইন নিয়ে বিতর্ক ও কৃষক আন্দোলনের জেরে বিজেপির সঙ্গে জোট ভেঙে বেরিয়ে যায় শিরোমণি আকালি দল। তবে ইতিমধ্যেই নতুন জোটসঙ্গী পেয়ে গিয়েছে বিজেপি, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংয়ের সদ্য গঠিত দল পঞ্জাব লোক কংগ্রেসের সঙ্গেই জোট বেধে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে লড়ার কথা। তবে আসন ভাগাভাগি নিয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

অন্যদিকে, কংগ্রেস দলের অন্দরের বিরোধ মেটাতেই ব্যস্ত। সিধু বনাম অমরিন্দরের যে লড়াই শুরু হয়েছিল, তা বর্তমানে আরও বড় আকার ধারণ করেছে। নতুন মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চন্নির সঙ্গেও বিরোধে জড়িয়েছেন নভজ্যোত সিং সিধু। মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী ঘোষণা নিয়েও চলছে তুমুল তরজা।

Published On - 9:05 am, Wed, 12 January 22

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla