অডিয়ো: ‘এসপি ও আইসিকে ফাঁসাতে হবে’, শীতলকুচি কাণ্ডে মমতার ফোনালাপ প্রকাশ্যে আনল বিজেপি

বিজেপির আরও দাবি, "এই অডিয়ো ক্লিপ নিয়ে নির্বাচন কমিশনে যাওয়া হবে। সবাইকে সর্তক করছি মুখ্যমন্ত্রীর বদ উদ্দেশ্য নিয়ে। আগামিদিনে অশান্তি করতে পারে তিনি।"

অডিয়ো: 'এসপি ও আইসিকে ফাঁসাতে হবে', শীতলকুচি কাণ্ডে মমতার ফোনালাপ প্রকাশ্যে আনল বিজেপি
ছবি- টুইটার


কলকাতা: ভোটের বাজারে আবারও অডিয়ো বোমা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ে ফোনালাপের বিস্ফোরক ক্লিপ প্রকাশ্যে আনল বিজেপি। TV9 বাংলা যদিও সেই অডিয়ো ক্লিপের সত্যতা যাচাই করেনি। তবে বিজেপির দাবি, সেই ফোন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করেছিলেন শীতলকুচির প্রার্থী পার্থপ্রতিম রায়কে। ১২৬ নম্বর বুথে আধাসেনা গুলি চালানোর জেরে ৪ জনের মৃত্যুর পর এই ফোনটি মমতা করেছিলেন বলে দাবি বিজেপির। সেখানে মৃত ওই চারজনের দেহ নিয়ে মিছিল করার পাশাপাশি পুলিশ আধিকারিকদের ফাঁসানোর কথা মমতা তৃণমূল প্রার্থীকে বলেছেন বলে অভিযোগ।

ঠিক কী শোনা গিয়েছে ওই কথোপকথনে? তা নিচে রইল লিখিত আকারে…

পার্থপ্রতিম: হ্যাঁ দিদি হ্যালো
নারী কণ্ঠ: মাথা ঠান্ডা করে ভোটটা করো তারপর এর বিচার আমরা করে দেব।
পার্থ প্রতিম: একদম
নারী কণ্ঠ: সবকটাকে অ্যারেস্ট করাব, সবকটা সিআরপিএফকে। ডেড বডিগুলোকে এখন রেখে দাও। কালকে ডেডবডিগুলো নিয়ে র‍্যালি হবে। আজকে পরিবারগুলোকে বলবে কেউ ডেড বডি নেবে না।
পার্থপ্রতিম: ঠিক ঠিক
নারী কণ্ঠ: সব পড়ে থাকবে, আজকে আগে ভোটটা করে নাও মাথা ঠান্ডা করে।
পার্থপ্রতিম: একদম একদম দিদি।
নারী কণ্ঠ: চালাকি হচ্ছে যাতে তুমি ভোটটা না করতে পারো, হেরে যাও।
পার্থপ্রতিম: একদম একদম আমি ফিল্ডে পড়ে আছি।
নারী কণ্ঠ: এটা কারা করেছে? সিআরপিএফ?
পার্থপ্রতিম: সিআরপিএফ সিআরপিএফ
নারী কণ্ঠ: ওই লোকগুলো কারা?
পার্থপ্রতিম: আমাদেরই লোক আমাদেরই লোক
নারী কণ্ঠ: তুমি এক কাজ করো পুরো এফআইআর করবে। ল ইয়ারকে দিয়ে, নিজের ইচ্ছামত করবে না।
পার্থপ্রতিম: ওকে ওকে দিদি
নারী কণ্ঠ: এফআইআর বাড়ির লোক যেটা করবে সেটা আমি বলে দেব আফটার ইলেকশন
পার্থপ্রতিম: ঠিক ঠিক
নারী কণ্ঠ: এখনই পুলিশ স্টেটমেন্ট নিতে গেলে নেবে না। ভালো করে এফআইআর করতে হবে ল’ইয়ার-এর সাথে কনসাল্ট করে।
পার্থপ্রতিম: ঠিক আছে
নারী কণ্ঠ: যাতে কম্যান্ড জোন থেকে শুরু করে এসপি থেকে শুরু করে সব কটা ফাঁসে ।
পার্থপ্রতিম: হ্যাঁ হ্যাঁ।
নারী কণ্ঠ: এসপিকেও ফাঁসাতে হবে আইসিকেও ফাঁসাতে হবে
পার্থপ্রতিম: ঠিক ঠিক
নারী কণ্ঠ: এখন মাথা ঠান্ডা করে ভোট করে দাও এজেন্টের স্ট্রেন্থ দাও।
পার্থপ্রতিম: একদম।
নারী কণ্ঠ: নিশ্চিন্তে কাজ করো।
পার্থপ্রতিম: সব বুথে এজেন্টরা যাতে থাকে।
নারী কণ্ঠ: তুই দু’একবার করে যা আর গিয়ে বলে দে।
পার্থপ্রতিম: আমি যাচ্ছি প্রত্যেক জায়গায় যাচ্ছি।
নারী কণ্ঠ: চারদিকে মানুষকে গিয়ে বলে দে চিন্তা করার কোনও কারণ নেই, ভোট যাতে না দিতে পারেন তার জন্য এরা এমন করছে।
পার্থপ্রতিম: একদম একদম দিদি কোন চিন্তা নেই।
নারী কণ্ঠ: ওরা এনপিআর করবে ডিটেনশন ক্যাম্প করবে তাই এরকম করছে ।
পার্থপ্রতিম: ঠিক আছে আমি দেখে নিচ্ছি।
নারী কণ্ঠ: হ্যাঁ।

এই অডিয়ো ক্লিপ প্রকাশ করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে একের পর তোপ দাগা হয় বিজেপির পক্ষ থেকে। বিজেপির আইটি সেল প্রধান অমিত মালব্য দাবি করেন, “মৃতদেহ নিয়ে রাজনীতি করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একই সঙ্গে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের পক্ষে সওয়াল না করে সিআরপিএফ-কে গ্রেফতারির হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।” ধর্মীয় মেরুকরণের মাধ্যমে তিনি পুলিশকেও ফাঁসাতে চাইছেন বলে দাবি করেছেন মালব্য। অন্যদিকে, বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়কে বলতে শোনা যায়, “এটা মুখ্যমন্ত্রীর মতো কথা নয়, এটা একটা গুন্ডা, মাফিয়ার মত কথা বলেছেন। উনি ডেডবডির উৎসব করতে চাইছেন। উনি ডেডবডি নিয়ে রাজনীতি করেছেন অনেক আগে থেকেই।”

আরও পড়ুন: ৮ দফাতেই ভোট, তবে মানতে হবে কোভিড বিধি, সর্বদল বৈঠক শেষে ভিন্ন মেজাজে ঘাস-পদ্ম

বিজেপির আরও দাবি, “এই অডিয়ো ক্লিপ নিয়ে নির্বাচন কমিশনে যাওয়া হবে। সবাইকে সর্তক করছি মুখ্যমন্ত্রীর বদ উদ্দেশ্য নিয়ে। আগামিদিনে অশান্তি করতে পারে তিনি। বড় কোনও গণ্ডগোল আগামী কয়েক দফায় করতে পারে তৃণমূল। নির্বাচন কমিশনকে আমরা সতর্ক করবো।”

এই অডিয়ো ক্লিপের পর তৃণমূলের পক্ষ তাপস রায় বলেন, “বিজেপি বুঝতে পেরে গেছে কত ধানে কত চাল। ওদের আর কিছু করার নেই। এখনও ওরা এই অডিয়ো এবং ভিডিয়ো টেপ তৈরি করছে। আগে ওরা বলুক শীতলকুচিতে পরিকল্পিতভাবে কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে হত্যা করানো হল কেন।”

তবে শীতলকুচি নিয়ে যে রাজনৈতিক চাপানউতোর ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছিল, তা এখন আরও কয়েকগুণ বেড়ে গেল। ঠিক পঞ্চম দফা ভোটের আগে সেই অডিয়ো ক্লিপ প্রকাশ করে তৃণমূলের উপর চাপ বাড়িয়ে রাখল বিজেপি। এর আগে নন্দীগ্রামে ভোটের আগেও মুখ্যমন্ত্রীর একই ধরনের অডিয়ো ক্লিপ প্রকাশে এনেছিল বিজেপি। যেখানে শুভেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠ বিজেপি নেতা ও প্রাক্তন তৃণমূল নেতাকে ফোন করে ভোটের সময় সাহায্য চেয়েছিলেন মমতা। পরে যদিও তৃণমূল নেত্রী নিজেই সেই অডিয়োর সত্যতা স্বীকার করে নেন। এ বার নতুন অডিয়ো ক্লিপ নিয়ে মমতা মুখ খোলেন কি না সেটাই দেখার।

আরও পড়ুন: শীতলকুচির ঘটনায় স্বজনহারা পরিবারগুলিকে ক্ষতিপূরণ দেবে কমিশন

রইল সেই অডিয়ো ক্লিপ

 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla