Akshay Kumar: ‘কী সব দিন ছিল বন্ধু…’, অজয়ের সৌজন্যে ৩০ বছর আগে ফিরে গেলেন অক্ষয়

ইন্ডাস্ট্রিতে প্রায় একই সঙ্গে কেরিয়ার শুরু করেছিলেন দুজনে। সেই অর্থে দুজনেই আউটসাইডার। অজয়ের বাবা ছিল স্টান্টম্যান।

Akshay Kumar: 'কী সব দিন ছিল বন্ধু...', অজয়ের সৌজন্যে ৩০ বছর আগে ফিরে গেলেন অক্ষয়
অজয়ের সৌজন্যে ৩০ বছর আগে ফিরে গেলেন অক্ষয়

ইন্ডাস্ট্রিতে ৩০টা বছর কাটিয়ে ফেললেন অজয় দেবগণ। সেই ‘ফুল অউর কাঁটে’ দিয়ে শুরু। ২০২১-এ সূর্যবংশীতেও সেই হিট মেশিন জারি। অজয়ের বিশেষ দিনে স্মৃতিমেদুর আরও এক অভিনেতা। তিনি অক্ষয় কুমার। ফিরে গেলেন ৩০ বছর আগে। হেঁটে দেখলেন জুহুর চারিপাশ। যেখানে সুপারস্টার অক্ষয়-অজয় নয়, বরং ছাপোষা দুই যুবক স্বপ্ন দেখত বিশ্বজয়ের।

ইন্ডাস্ট্রিতে প্রায় একই সঙ্গে কেরিয়ার শুরু করেছিলেন দুজনে। সেই অর্থে দুজনেই আউটসাইডার। অজয়ের বাবা ছিল স্টান্টম্যান। অক্ষয়ের আবার ছোট থেকেই শখ ছিল মার্শাল আর্টের। অজয়ের বাবার কাছেই মার্শাল আর্ট শিখতেন তিনি। তখন ৯০-এর দশক। অক্ষয় লিখছেন, “মনে আছে তখন আমরা নতুন। আমি আর তুই একসঙ্গে জুহুর বিচে মার্শাল আর্ট শিখতাম। তোর বাবা আমাদের শেখাত। সেখান থেকে দেখতে দেখতে ৩০টা বছর চলে গেল… সময় চলে যায়। বন্ধুত্ব থেকে যায়…”।

১৯৯১ সালে মুক্তি পেয়েছিল ফুল অউর কাঁটে। অজয় দেবগণ ছাড়াও ওই ছবিতে ছিলেন অমরেশ পুরী, মধু, রাজা মুরাদসহ অনেকেই। বক্স অফিসে সেই সময়ে ওই ছবি অরায় ১২ কোটির মতো ব্যবসা করেছিল। অজয় আর অক্ষয়ের বন্ধুত্ব যে দৃঢ় সে খবর বলিপাড়ার কারও অজানা নয়। অনেক ছবিতেই একসঙ্গে কাজ করেছেন তাঁরা। ১৯৯৪ সালে সুহাগ ছবিতে প্রথমবার একসঙ্গে দেখা যায় তাঁদের। ছবিতে তাঁরা ছাড়াও দেখা গিয়েছিল করিশ্মা কাপুর ও নাগমাকে।

 

 

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Akshay Kumar (@akshaykumar)

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla