Salman Khan: পোস্টারে দুধ না ঢেলে দরিদ্র শিশুদের দিন: সলমন খান

Salman Khan: পোস্টারে দুধ ঢেলে তা নষ্ট করা একেবারেই পছন্দ করেন না সলমন। তিনি অনুরাগীদের অনুরোধ করেছেন, তাঁর পোস্টারে দুধ না ঢেলে সেই দুধ যেন দরিদ্র শিশুদের মধ্যে বিতরণ করা হয়।

Salman Khan: পোস্টারে দুধ না ঢেলে দরিদ্র শিশুদের দিন: সলমন খান
সলমন খান।

সদ্য মুক্তি পেয়েছে সলমন খানের ছবি ‘অন্তিম: দ্য ফাইনাল ট্রুথ’। বহুদিন পরে ভাইজানের ছবি রিলিজ। অনুরাগীদের উৎসাহ তো আকাশছোঁয়া। কেউ অতি উৎসাহে সিনেমাহলের ভিতরে বাজি ফাটাচ্ছেন তো কেউ সলমনের পোস্টারে দুধ ঢালছেন! এ বার তারই প্রতিবাদ করলেন স্বয়ং অভিনেতা।

পোস্টারে দুধ ঢেলে তা নষ্ট করা একেবারেই পছন্দ করেন না সলমন। তিনি অনুরাগীদের অনুরোধ করেছেন, তাঁর পোস্টারে দুধ না ঢেলে সেই দুধ যেন দরিদ্র শিশুদের মধ্যে বিতরণ করা হয়। তিনি তাতেই খুশি হবেন। এর আগে সিনেমাহলের ভিতরে বাজি ফাটানোর বিরুদ্ধেও নিজের মত জানিয়েছিলেন তিনি।

অনুরাগীদের এই কীর্তির ভিডিয়ো নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন সলমন। তিনি লিখেছেন, ‘কত মানুষ জল পর্যন্ত পান না। আর আপনারা এখানে দুধ নষ্ট করছেন। আমি আমার অনুরাগীদের কাছে অনুরোধ করব, আপনারা দুধ দিতে চাইলে দরিদ্র শিশু যারা দুধ পায় না, তাদের দিন’।

‘অন্তিম: দ্য ফাইনাল ট্রুথ’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য বলিউড অভিনেতা আয়ুশ শর্মা যে শারীরিক পরিবর্তন করেছেন, তাতে মুগ্ধ দর্শকের বড় অংশ। সলমন খানের বোন অর্পিতা খানের স্বামী আয়ুশ। ফলে তাঁর ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ যে পুরোটাই সলমন খানের বদান্যতায়, এ হেন বক্তব্য ছিলই। তবে এ ছবিতে আয়ুশ নিজেকে প্রমাণ করতে পারবেন বলে মনে করেন তাঁর অনুরাগীরা। সলমন খান যে তাঁর উপর বড় টাকা লগ্নি করেছেন, এ কথা আয়ুশের অজানা নয়। তিনি বলেন, “আমার উপর চাপ আছে। দায়িত্ব রয়েছে। কিন্তু সব কিছুর থেকে বেশি, আমি আশা করছি, সলমন ভাইকে ডোবাবো না। ও আমার জন্য ছিল। এ বার ওর সম্মান রক্ষা করা, যাতে অসম্মান না হওয়া, সে দিকে খেয়াল রাখা আমার ব্যক্তিগত দায়িত্ব। অনেকেই ভাবেন এটা পারিবারিক ব্যাপার। কিন্তু কঠিন পরিশ্রম দিয়ে সে সবের জবাব দিতে হয়।”

সলমন খান প্রতি পদে অভিনয়ের খুঁটিনাটি নিয়ে তাঁকে সাহায্য করেছেন বলে জানিয়েছেন আয়ুশ। “অভিনয় করতে শুরু করার আগে পাঁচ বছর সলমন ভাই আমাকে ট্রেনিং দিয়েছেন। ফলে ওঁকে রিপ্রেজেন্ট করছি আমি। যদি কাজ করতে না পারি, তা হলে হয়তো লোকে বলবে কোচিং বা ট্রেনিং ঠিক ছিল না। এগুলো মাথায় কাজ করতে থাকে”, শেয়ার করেছেন আয়ুশ।

আয়ুশ আরও জানান, সলমন তাঁর উপর ভরসা করেছেন। নিজের কষ্ট করে উপার্জন করা টাকা তাঁর উপর ঢেলেছেন। সেই বিশ্বাসের মর্যাদা দেওয়া এ বার তাঁর দায়িত্ব। এই অ্যাকশন থ্রিলার ছবিটি পরিচালনা করেছেন মহেশ মঞ্জরেকর। ছবি প্রযোজনার দায়িত্বে রয়েছে সলমন খান ফিল্মস। ২০১৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত মারাঠি ছবি ‘মালশি প্যাটার্ন’-এর গল্প অবলম্বনে নির্মিত।

আরও পড়ুন, Tollywood News: ‘আবার কাঞ্চনজঙ্ঘা’র গল্প লেখার সময় ঋতুদার ইনফ্লুয়েন্স বেশি ছিল: রাজর্ষি দে

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla