শ্রেয়াস তলপড়ে বিয়ে করুক, তা নাকি চাননি নাগেশ কুকনুর!

‘ইকবাল’-এর শুটিংয়ের আগে বিয়ে করা সত্ত্বেও তা নাকি প্রকাশ করেননি অভিনেতা। এতদিন পরে সেই গোপন কথা প্রকাশ করেছেন শ্রেয়াস।

শ্রেয়াস তলপড়ে বিয়ে করুক, তা নাকি চাননি নাগেশ কুকনুর!
শ্রেয়াস তলপড়ে এবং নাগেশ কুকনুর।

‘ইকবাল’। এ ছবির কথা মনে হতেই সিনে প্রেমীদের মনে পড়ে যায় বলিউড (bollywood) অভিনেতা (Actor) শ্রেয়াস তলপড়ের (Shreyas Talpade) মুখ। ২০০৫-এ মুক্তি পেয়েছিল ছবিটি। শ্রেয়াসের পারফরম্যান্স নিয়ে আজও চর্চা হয় বিভিন্ন মহলে। কিন্তু সে ছবির পরিচালক নাগেশ কুকনুর (Nagesh Kukunoor) নাকি শ্রেয়াসকে বিয়ে করতে বারণ করেছিলেন। সে কারণেই ‘ইকবাল’-এর শুটিংয়ের আগে বিয়ে করা সত্ত্বেও তা নাকি প্রকাশ করেননি অভিনেতা। এতদিন পরে সেই গোপন কথা প্রকাশ করেছেন শ্রেয়াস।

শ্রেয়াসের কথায়, “আমি আর আমার স্ত্রী দীপ্তি অনেকদিন ধরেই ডেট করেছিলাম। ওর পরিবারের সকলে চেয়েছিলেন, সে সময় বিয়েটা হোক। আমার অসুবিধে ছিল না। কিন্তু ওকে কীভাবে সাপোর্ট করব জানতাম না। কারণ আমার কাজের কোনও স্থায়িত্ব ছিল না। ও ভরসা দিয়েছিল। ২৮ ডিসেম্বর নাগেশ আমাকে জানায়, পরের দিন থেকে হায়দরাবাদে শুটিং। আমি জানতে চেয়েছিলাম, ৩১ ডিসেম্বর ছুটি পাব কি না। নাগেশ অসন্তুষ্ট হয়েছিল। ভেবেছিল, বছরের শেষ দিনটা পার্টি করার জন্য ছুটি চাইছি। কিন্তু ওই দিন আমার বিয়ে ছিল।”

শ্রেয়াসের বিয়ে ঠিক হয়ে গিয়েছে জানার পরও তাঁকে নাকি ছাড়তে চাননি নাগেশ। পরিচালক নাকি জানিয়েছিলেন, তাঁর ‘ইকবাল’ বিয়ে করতে পারে না। “আমি মধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলে। বিয়ের কার্ড ছাপা হয়ে গিয়েছে। তিন দিন আগে বিয়ে বাতিল করাটা সম্ভব ছিল না। অনেক বোঝানোর পর নাগেশকে রাজি করাতে পেরেছিলাম। কিন্তু একটা শর্ত ছিল। ইকবাল মুক্তি না পাওয়া পর্যন্ত, আমি যে বিবাহিত সেটা কোথাও প্রকাশ করা যাবে না”, শেয়ার করেছেন শ্রেয়াস।

নাগেশের শর্ত মেনে নিয়েছিলেন শ্রেয়াস। তারপর একদিনের ছুটি নিয়ে বিয়ে করে ফের ‘ইকবাল’-এর শুটিং করতে ফিরে গিয়েছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন, আর কত বছর বলিউডে কাজ করবেন, জানিয়ে দিলেন অর্জুন কাপুর