নেটফ্লিক্স থ্রিলারের শুটিং শেষ করে স্বস্তির আমেজ শ্বেতা ত্রিপাঠির

পরিচালক সিদ্ধার্থ সেনগুপ্তের নেতৃত্বে এই ইউনিটটি সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ছিল মে মাসের এই ২০ দিনের শুটিং।

নেটফ্লিক্স থ্রিলারের শুটিং শেষ করে স্বস্তির আমেজ শ্বেতা ত্রিপাঠির
শ্বেতা ত্রিপাঠি
শুভঙ্কর চক্রবর্তী

|

Jun 01, 2021 | 5:24 PM

গত বছর নভেম্বরে, ‘ইয়ে কালি কালি আঁখে’-র ছবির শুটিংম শুরু করেছিলেন শ্বেতা ত্রিপাঠি। দেশের বহু লোকেশনে শুরু হয়েছিল শুটিং। সেটে সুরক্ষার কড়া বিধিনিষেধ অনুসরণ করে শুটিং হয়েছিল, বোঝা যাচ্ছিল সামনে আরও কঠিন পথ অতিক্রম করতে হবে।

মানালি এবং মুক্তেশ্বরে শুটিংয়ের পর মে মাসের গোড়ার দিকে নেটফ্লিক্স থ্রিলারটির শুটিং শেষ করে স্বস্তি পেলেন অভিনেত্রী শ্বেতা। “এটি করা গিয়েছে কারণ সেটের প্রত্যেকে তাদের ১০০ শতাংশ পরিশ্রম দিয়েছেন। সময়কে মেনে চলাই ছিল সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মাপদণ্ড—এটি তা রিপোর্টিংয়ের টাইম, পোশাক পরিবর্তনের জন্য বরাদ্দ সময়, বা প্যাক-আপের সময় হোক, ” শ্বেতা বলেন।

আরও পড়ুন এক হাসিতে কাবু! ‘ম্যাডি’ মাধবনের জন্মদিনে জেনে নিন কিছু অজানা গল্প

শুটিংয়ের এক দৃশ্য।

তিনি আরও বলেন যে পরিচালক সিদ্ধার্থ সেনগুপ্তের নেতৃত্বে এই ইউনিটটি সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ছিল মে মাসের এই ২০ দিনের শুটিং। উত্তর ভারতে করোনা আক্রান্তদের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ার সঙ্গে এ জল্পনা ছড়িয়েছিল যে হিমাচল প্রদেশ সরকার শীঘ্রই লকডাউন ঘোষণা করতে চলেছে।

“আমাদের কাছে কোনও নির্দিষ্ট সময়সীমা ছিল না। আনুগত্যের অভাবে বাজেট বৃদ্ধি কিংবা অভিনেতাদের শিডিউল সম্পর্কিত সমস্যা তৈরি করতে পারত। আমরা জানতাম যে কোনও কার্ফিউয়ের সময় আমাদের কাছে কোনওভাবে অতিরিক্ত দিন পাওয়ার সুযোগ থাকবে না। যেহেতু সময়ে সঙ্কট ছিল, তাই আমরা বেশিরভাগ দিন ওভারটাইম শুট করেছি। শেষ দিনে আমাদের একটি নাইট শুট নির্ধারিত ছিল। আমরা ভোরের আগেই আমাদের অংশগুলি শেষ করতে পেরেছি, ৭ মে লকডাউন হওয়ার আগে আমরা ফিরে আসি।”

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla