Vitamin K: সামান্য কেটে গেলে রক্ত ক্ষরণ বন্ধ হয় না? হতে পারে ভিটামিন কে-এর অভাব রয়েছে আপনার শরীরে

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: megha

Updated on: Oct 26, 2021 | 11:44 AM

ভিটামিন কে রক্ত জমাট বাঁধার প্রক্রিয়ায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। রক্ত জমাট বাঁধা এমন একটি প্রক্রিয়া যা শরীরের ভিতরে এবং বাইরে অতিরিক্ত রক্তপাত প্রতিরোধ করে। রক্ত জমাট বাঁধার প্রক্রিয়ার সাথে কাজ করা প্রোটিন উৎপাদন করতে শরীরের ভিটামিন কে প্রয়োজন।

Vitamin K: সামান্য কেটে গেলে রক্ত ক্ষরণ বন্ধ হয় না? হতে পারে ভিটামিন কে-এর অভাব রয়েছে আপনার শরীরে
ভিটামিন কে

ভিটামিন এ, ডি, সি, কার্ব‌োহাইড্রেট, প্রোটিন ইত্যাদির মত, ভিটামিন কে আমাদের শরীরের পাশাপাশি অন্যান্য সমস্ত পুষ্টির জন্যও সমান গুরুত্বপূর্ণ। ভিটামিন কে রক্ত জমাট বাঁধার প্রক্রিয়ায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। রক্ত জমাট বাঁধা এমন একটি প্রক্রিয়া যা শরীরের ভিতরে এবং বাইরে অতিরিক্ত রক্তপাত প্রতিরোধ করে। রক্ত জমাট বাঁধার প্রক্রিয়ার সাথে কাজ করা প্রোটিন উৎপাদন করতে শরীরের ভিটামিন কে প্রয়োজন।

যদি আপনার শরীরে ভিটামিন কে-এর পরিমাণ স্বাভাবিকের চেয়ে কম থাকে, তাহলে আপনার শরীরে প্রোটিন হ্রাস পায়। এই প্রয়োজনীয় ভিটামিনের অভাব সাধারণত খারাপ খাদ্যাভ্যাসের কারণে হয়। সিস্টিক ফাইব্রোসিস, পিত্তথলির সমস্যা এবং যকৃতের রোগের মত ইত্যাদি নানা অবস্থার কারণে ভিটামিন কে হ্রাস পেতে পারে।

ভিটামিন কে হ্রাসের সবচেয়ে সাধারণ লক্ষণ হল রক্ত জমাট না বাঁধার কারণে অতিরিক্ত রক্তপাত। অন্যান্য উপসর্গ গুলি হল যেমন রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি, ত্বক নীল হয়ে যাওয়া, ঋতুস্রাবের সময় অতিরিক্ত রক্তপাত এবং প্রদাহজনক অন্ত্রের রোগের লক্ষণ, যেমন মলের সঙ্গে রক্তপাত, বদহজম এবং ডায়রিয়া ইত্যাদি।

ভিটামিন কে এর অভাব সাধারণত প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে খুব কম দেখা যায়, তবে শিশুদের মধ্যে এই ভিটামিন কে-এর অভাব খুব বেশি থাকে। বেশিরভাগ প্রাপ্তবয়স্করা তাদের খাবার থেকে এই ভিটামিনের পর্যাপ্ত পরিমাণ অর্জন করে। কিন্তু সব সময় শিশুদের ক্ষেত্রে তা হয় না। তবে এমনটা নয় যে প্রাপ্তবয়স্কদের এই ভিটামিনের অভাব হয় না। শরীরে ভিটামিন কে-এর পরিমাণ হ্রাস পেলে কী কী রোগ হয় দেখে নিন-

  • সহজেই ত্বকে নীল দাগ হওয়া
  • নাক দিয়ে রক্তক্ষরণ
  • ক্ষত, ত্বকের গর্ত, ইনজেকশন এবং অস্ত্রোপচারের জায়গা থেকে অস্বাভাবিক রক্তপাত
  • অত্যধিক ঋতুস্রাব
  • গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল ট্র্যাক্ট থেকে রক্তপাত
  • প্রস্রাবে রক্ত বা মল রক্তপাত

শিশুদের ক্ষেত্রে উপসর্গগুলি একটু আলাদা হয়। যেমন-

  • যেখানে আম্বিলিক্যাল কর্ড অপসারণ করা হয়েছিল সেখান থেকে রক্তপাত
  • ত্বক, নাক, গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল ট্র্যাক্ট বা অন্য কোনও জায়গা থেকে রক্তপাত
  • মস্তিষ্কে হঠাৎ রক্তপাত

শরীরে কীভাবে পূরণ করবেন ভিটামিন কে-এর অভাব?

জন্মের সময়, ভিটামিন কে এর একটি ভ্যাকসিন নবজাতকদের মধ্যে এই সমস্যা তৈরি হওয়া থেকে প্রতিরোধ করতে সাহায্য করতে পারে। অন্যদিকে, পুষ্টিবিদরা বিশ্বাস করেন যে পুরুষদের সাধারণত ১২০ মিলিগ্রাম ভিটামিন কে থাকে এবং ৯০ মিলিগ্রাম ভিটামিন কে মহিলাদের জন্য যথেষ্ট। সবুজ শাকসবজি সহ কিছু খাবার রয়েছে, যেখানে ভিটামিন কে এর পরিমাণ বেশি। সেখান থেকেই আপনি এই ভিটামিন কে-এর চাহিদা পূরণ করতে পারবেন। এর জন্য পালং শাক, ব্রকোলি, বাঁধাকপি, অ্যাভোকোডা, শুকনো বেরি, টমেটো, আঙুর, সবুজ কড়াই, মটরশুটি, কাজু, আখরোটের মত খাদ্যকে ডায়েটে অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন।

আরও পড়ুন: শরীরে ভিটামিন কে-এর অভাব থাকলে কী কী রোগ হতে পারে, দেখে নিন এক নজরে…

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla