Fertility Problem: বাড়ছে বন্ধ্যাত্ব, সমস্যা এড়িয়ে সন্তানধারণ করুন চিকিৎসকের এই পরামর্শ মেনে

Pregnancy: প্রোটেকশন ছাড়া সেক্স করার ১ বছর পরেও যদি প্রেগন্যান্সি না আসে তবে বুঝতে হবে বন্ধ্যাত্ব (Infertility) রয়েছে। এই বন্ধ্যাত্বের একাধিক কারণ থাকলেও নেপথ্যে জীবনযাত্রাকেই দায়ী করেছেন বিশেষজ্ঞরা

Fertility Problem: বাড়ছে বন্ধ্যাত্ব, সমস্যা এড়িয়ে সন্তানধারণ করুন চিকিৎসকের এই পরামর্শ মেনে
অযথা চিন্তা নয়, সব সমস্যারই সমাধান রয়েছে
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Reshmi Pramanik

Jul 03, 2022 | 2:14 PM

গত কয়েক বছর ধরেই পুরুষদের মধ্যে বাড়ছে বন্ধ্যাত্বের সমস্যা। লকডাউন পরবর্তী সময়ে তা আরও বেশি জটিল হয়েছে। সন্তান ধারণের ক্ষমতা কমেছে মেয়েদের মধ্যে। এমনকী ছেলেদের মধ্যেও বেড়েছে এই সমস্যা। দিল্লি AIIMS-এর একটি সমীক্ষা থেকে জানা গিয়েছে আমাদের দেশের প্রায় ১৫ শতাংশ পুরুষ কিন্তু এই সমস্যার শিকার মেয়েদের মধ্যে PCOS, PCOS, ওবেসিটি, থাইরয়েড সহ-একাধিক সমস্যা রয়েছে। যে কারণে আজকাল মেয়েদের প্রেগন্যান্সিতে সমস্যা হচ্ছে। এছাড়াও বর্তমান জীবনে সকলের মধ্যেই স্ট্রেস মারাত্মক বেশি। যার প্রভাবও কিন্তু পড়ছে আমাদের রোজকারের জীবনে। তাই সন্তান চাইলেও সেক্ষেত্রে ব্যর্থ হচ্ছেন দম্পতিরা। চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায়, প্রোটেকশন ছাড়া সেক্স করার ১ বছর পরেও যদি প্রেগন্যান্সি না আসে তবে বুঝতে হবে বন্ধ্যাত্ব (Infertility) রয়েছে। এই বন্ধ্যাত্বের একাধিক কারণ থাকলেও নেপথ্যে জীবনযাত্রাকেই দায়ী করেছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই জীবনযাত্রায় পরিবর্তন আনা হল প্রাথমিক কর্তব্য। সেই সঙ্গে নজর রাখতে হবে এই কয়েকটি দিকেও। এর মধ্যে প্রথম কাজ হল-

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা- পুরুষ হোক মা মহিলা ওবেসিটির সমস্যা থাকলে গর্ভধারণ খুবই সমস্যার। এছাড়াও ওজন বেশি থাকলে শরীরে একাধিক সমস্যা চেপে বসে। তাই প্রথমেই বাড়তি ওজন ঝরিয়ে ফেলতে হবে। ওজন বেশি থাকলেই হরমোনের তারতম্য হয়। তখন গর্ভধারণ খুবই অসুবিধের হয়ে যায়। এছাড়াও ওজন বাড়লে মন মেজাজও ভাল থাকে না। তাই বাড়তি ওজন ঝরিয়ে ফেলা ভীষণ জরুরি।

নির্দিষ্ট ডায়েট- আজকাল সকলেরই বাইরের খাবারের উপর ঝোঁক বেশি থাকে। যে কারণে রোজের ডায়েট থেকে প্রথমেই ফাস্ট ফুড, তেল-মশলাদার খাবার বাদ দিতে হবে। রোজ নিয়ম করে বিভিন্ন সবজি সেদ্ধ, ফল এসব খেতে হবে। রোজকার ডায়েটে ফাইবার বেশি করে রাখতে হবে। জল বেশি খেতে হবে। ড্রাই ফ্রুটস, বাদাম এসবও খান নিয়ম করে।

স্ট্রেস কমাতে হবে- আজকাল সকলের জীবনেই একাধিক সমস্যা। কর্মজগৎ এবং ব্যক্তিগত জীবনে স্ট্রেস খুবই বেশি। তবে এই স্ট্রেস কী ভাবে নজর রাখা যায় সেদিকে নজর দিন। অফিসের কাজ থাকবেই। কিন্তু সেই চাপ নিজেকেই ব্যালেন্স করতে হবে। স্ট্রেস বাড়লে আসবে একাধিক শারীরিক সমস্যা। প্রেশার, সুগার সবই বাড়বে।

ধূমপান এবং মদ্যপান- অনেকেই ভাবেন স্ট্রেসের দাওয়াই ধূমপান। কিন্তু তা যে কতবড় ভুল নিজেরাও বুঝে উঠতে পারেন না। নিয়মিত মদ্যপান আর ধূমপানে শরীরের একাধিক সমস্যা দেখা দেয়। স্ট্রেসের পাশাপাশি ওজন বাড়ে। সঙ্গে সুগার, কোলেস্টেরল, ট্রাইগ্লিসারাইড এসবও বাড়তে থাকে। যে কারণে প্রথমেই নেশা ছাড়তে হবে। নেশা না ছাড়লে মহিলা এবং পুরুষ উভয়য়ের মধ্যে বন্ধ্যাত্ব আসবেই।

তবে এই সব যাবতীয় নিয়ম, ডায়েট এবং শরীরচর্চার পরও যদি প্রেগন্যান্সি না আসে তাহলে চিন্তার কিছু নেই। আজকাল বিভিন্ন রকম থেরাপি থাকে। হরমোনেরও চিকিৎসা হয়। এছাড়াও আইভিএফ ( IVF) পদ্ধতি তো আছেই। চিকিৎসা বিজ্ঞান এখন আগের চাইতে অনেক বেশি উন্নত।

এই খবরটিও পড়ুন

Disclaimer: এই প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য, কোনও ওষুধ বা চিকিৎসা সংক্রান্ত নয়। বিস্তারিত তথ্যের জন্য আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla