প্রথম ডোজ়ে কোভ্যাকসিন, দ্বিতীয় ডোজ় কোভিশিল্ডের! টিকা বিভ্রাটে ফের কাঠগড়ায় যোগীরাজ্য

উত্তর প্রদেশের মহারাজগঞ্জের বাসিন্দা এক ব্যক্তিকে প্রথমে কোভ্যাকসিনের ডোজ় দেওয়া হলেও দ্বিতীয় টিকাটি কোভিশিল্ডের দেওয়া হয়।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 12:22 PM, 15 Apr 2021
প্রথম ডোজ়ে কোভ্যাকসিন, দ্বিতীয় ডোজ় কোভিশিল্ডের! টিকা বিভ্রাটে ফের কাঠগড়ায় যোগীরাজ্য
প্রতীকী চিত্র

লখনউ: ফের স্বাস্থ্য পরিষেবায় গাফিলতি। করোনা টিকার বদলে জলাতঙ্কের টিকা কিংবা একটির বদলে দুটি ডোজ়ই একসঙ্গে দেওয়া- সবই ঘটেছে যোগী রাজ্যেই। এ বার এক ব্যক্তি দুই ধরনের টিকা দেওয়ার অভিযোগও উঠল উত্তর প্রদেশেই।

ভারতে বর্তমানে দুটি করোনার ভ্যাকসিন রয়েছে, কোভিশিল্ড ও কোভ্যাকসিন। দুটি টিকাই দুই ডোজ়ের। টিকাকরণের শুরুতেই কেন্দ্রের নির্দেশিকায় স্পষ্ট উল্লেখ ছিল যে, টিকার প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ় যেন একই সংস্থার হয়। অর্থাৎ যিনি কোভিশিল্ড নিয়েছেন, তিনি কোভ্যাকসিন নিতে পারবেন না। তবে যোগী রাজ্যে ঘটল এই টিকা বিভ্রাট। এক ব্যক্তিকে প্রথম ডোজ় কোভ্যাকসিনের দেওয়া হলেও দ্বিতীয় ডোজ় কোভিশিল্ডের দেওয়া হয়েছে।

উত্তর প্রদেশের মহারাজগঞ্জের বাসিন্দা এক ব্যক্তিকে প্রথমে কোভ্যাকসিনের ডোজ় দেওয়া হলেও দ্বিতীয় টিকাটি কোভিশিল্ডের দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, উমেশ নামক ওই ব্যক্তি মহারাজগঞ্জের মুখ্য উন্নয়ন আধিকারিকের গাড়ি চালক হিসাবে কাজ করেন। গত মাসেই তিনি কোভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ় নিয়েছিলেন।

গতকাল আরও দুই চালকের সঙ্গেই উমেশ জেলা হাসপাতালে করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ় নিতে যান। প্রথম টিরার নথি দেখালেও স্বাস্থ্যকর্মীরা তাঁকে ভুল করে কোভিশিল্ডের টিকা দিয়ে দেন। বিষয়টি সঙ্গে সঙ্গে নজরে আসতেই উপস্থিত বাকি দুই চালক, চন্দন কুসওয়াহা ও আর্দালি মদন টিকা নিতে অস্বীকার করেন।

এ দিকে, বিষয়টি জানাজানি হতেই মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক একে শ্রীবাস্তব বললেন, “ভুলবশত দুই সংস্থার দুটি টিকা দেওয়া হলেও ওই ব্যক্তি সুস্থ রয়েছেন। তাঁর মধ্যে কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি। তবে এই ধরনের ঘটনা ঘটা উচিত নয়। স্বাস্থ্যকর্মীদের আগেই বলা হয়েছিল, যে ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ় দেওয়া হয়েছে, সেটিরই যেন দ্বিতীয় ডোজ় দেওয়া হয়।”

উল্লেখ্য, এর আগেও টিকাকরণে গাফিলতির অভিযোগ উঠেছে উত্তর প্রদেশে। সম্প্রতি এক মহিলা করোনা টিকা নিতে গেলে তাঁকে একটি ডোজ়ের বদলে দুটি ডোজ় দিতে দেন ফোনে কথা বলতে ব্যস্ত থাকা এক নার্স। এরপর তিন বৃদ্ধাকে করোনা টিকার বদলে জলাতঙ্কের টিকাও দিয়ে দেওয়া হয়। এক বৃদ্ধা গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়াতেই বিষয়টি সামনে আসে।

আরও পড়ুন: ‘সফর বাতিল করুন’, করোনা রুখতে পর্যটকদের কাছে আর্জি বারাণসী প্রশাসনের