Tikait On MSP: কৃষকদের উপকার হবে, তাই MSP নিয়ে আলোচনা করতে চায় না কেন্দ্র, কটাক্ষ রাকেশ টিকায়েতের

MSP: বৃহস্পতিবার, ভারতীয় কিষাণ ইউনিয়নের নেতা রাকেশ টিকায়েত (Rakesh Tikait) জানিয়েছেন, সম্প্রতি তারা কৃষি পণ্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের দাবি জানিয়ে কেন্দ্রকে চিঠি লিখেছিলেন, কিন্তু কেন্দ্র তাদের সঙ্গে কোনও আলোচনা করতে রাজি নয়, কারণ ন্যূনতম সহায়ক মূল্য পেলে কৃষকদের লাভ হবে।

Tikait On MSP: কৃষকদের উপকার হবে, তাই MSP নিয়ে আলোচনা করতে চায় না কেন্দ্র, কটাক্ষ রাকেশ টিকায়েতের
সংসদের শীতকালীন অধিবেশনের আগে কেন্দ্রকে হুঁশিয়ারি টিকাইতের (ফাইল চিত্র)

হায়দরাবাদ: বিতর্ক যেন কিছুতেই থামতেই চাইছে না। ‘কৃষকরা মাঠে ফিরুক’ এই যুক্তি দিয়েই তিনটি কৃষি আইন প্রত্যাহারের (Repealing Farm Laws) সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Narendra Modi)। আগামী সোমবার থেকে শুরু হতে চলা সংসদের শীতকালীন অধিবেশনেও নিয়ম অনুযায়ী আইন তিনটি প্রত্যাহরের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। আইন প্রত্যাহার নিয়ে ইতিবাচক বার্তা দিতেই আইন প্রত্যাহারের বিষয়টিকে অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। তারপরেও লাগাতার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আক্রমণের তির বর্ষণ করে চলেছেন কৃষক নেতারা।

বৃহস্পতিবার, ভারতীয় কিষাণ ইউনিয়নের নেতা রাকেশ টিকায়েত (Rakesh Tikait) জানিয়েছেন, সম্প্রতি তারা কৃষি পণ্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের দাবি জানিয়ে কেন্দ্রকে চিঠি লিখেছিলেন, কিন্তু কেন্দ্র তাদের সঙ্গে কোনও আলোচনা করতে রাজি নয়, কারণ ন্যূনতম সহায়ক মূল্য পেলে কৃষকদের লাভ হবে। হায়দরবাদে এক সাংবাদিক সম্মলনে টিকায়েত বলেন, “আমরা কিছুদিন আগেই কেন্দ্রকে চিঠি লিখেছি, কিন্তু এখনও কোনও উত্তর পাইনি। সরকার ন্যূনতম সহায়ক মূল্য নিয়ে কথা বলতে রাজি নয়, কারণ এতে দেশের সব কৃষকই লাভবান হবেন।”

চিঠির উত্তর না দেওয়ার অভিযোগ জানানোর পাশাপাশি, রাকেশের অভিযোগ কৃষি আইন প্রত্যাহারের পাশাপাশি ন্যূনতম সহায়ক মূল্যও আমাদের আন্দোলনের অন্যতম প্রধান ইস্যু ছিল। তিনি বলেন, “চলতি বছের ২২ জানুয়ারি পর থেকে সরকারের সঙ্গে আমাদের কোনও ধরনের কথা বা আলোচন হয়নি। কিন্তু ন্যূনতম সহায়ক মূল্য, মৃত ৭০০ কৃষকের পরিবারের ক্ষতিপূরণ ও তাদের স্মৃতির উদ্দেশে শহীদ স্মারক নির্মাণ সহ একাধিক ইস্যু নিয়ে আমদের দাবি রয়েছে। পাশাপাশি বিদ্যুৎ সংশোধনী বিল ও কীটনাশক বিল নিয়েও কমিটি তৈরি করা প্রয়োজন রয়েছে।” টিকায়েত জানিয়েছেন, ২৭ নভেম্বর বৈঠকে বসবে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা, সেই বৈঠকেই আগামী দিনের কর্মসূচি নির্ধারিত হবে।

উল্লেখ্য, গত ১৯ নভেম্বর, গুরু নানক জন্ম জয়ন্তীর দিন, খানিক আকস্মিকভাবেই জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেওয়ার সময় তিনটি কৃষি আইন প্রত্যাহারের (Repealing Farm Laws) কথা ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Narendra Modi)। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পরেও কৃষকদের মন গলেনি, সংসদে আইন বাতিলের প্রক্রিয়া সম্পন্ন না হওয়া অবধি তারা যে পিছু হঠতে রাজি নয় পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছিলেন কৃষকরা। কৃষি আইন প্রত্যাহারের পর বিবৃতি প্রকাশ করে কৃষক সংগঠনগুলির প্রধান সংগঠন সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা জানিয়েছিল, সরকারের এই সিদ্ধান্তে তাঁরা স্বাগত জানালেনও ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের দাবি নিয়ে তাঁরা অনড় এবং এই বিষয়ে কেন্দ্রকে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে হবে। সরকারের এই সিদ্ধান্ত আংশিক জয় হিসেবেই দেখেছিল কৃষক সংগঠন গুলি।

আরও পড়ুন PM Modi on Dynasty Politics: “একই পরিবারের দু’জন নেতা মানেই পারিবারিক দল নয়”, পরিবার তন্ত্রের ব্যাখ্যা দিলেন মোদী

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla