‘বিজেপি শাসনে সংবিধানের দম বন্ধ’, কড়া আক্রমণ মানিক সরকারের

বিজেপি (BJP) সরকারের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানালেন ২০ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা মুখ্যমন্ত্রী (Chief Minister)

'বিজেপি শাসনে সংবিধানের দম বন্ধ', কড়া আক্রমণ মানিক সরকারের
বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সরব হলেন বাম নেতা মানিক সরকার

আগরতলা: ২০ বছর মুখ্যমন্ত্রীর আসনে ছিলেন মানিক সরকার (Manik Sarkar)। ২০১৮-তে ত্রিপুরায় ক্ষমতায় আসে বিজেপি (BJP)। আর তিন বছর ধরে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের (Biplab Dev) নেতৃত্বাধীন সরকার চলছে সে রাজ্যে। এবার ত্রিপুরার আদিবাসী ভোটের আগে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সরব হলেন বাম নেতা মানিক সরকার। আগেও সরকারের বিরুদ্ধে একাধিকবার মুখ খুলেছেন তিনি। এবার সরাসরি বিজেপি আমলে গণতন্ত্র রক্ষা হচ্ছে না বলে মন্তব্য করলেন তিনি।

ত্রিপুরা বিধানসভার বিরোধী নেতা মানিক সরকার এক জনসভা থেকে বলেন, রাজ্যে বিরোধীদের উপর অত্যাচারের ঘটন বেড়েই চলেছে। বার বার রাজ্যপাল ও মুখ্যমন্ত্রীর কাছে সাহায্য চেয়েও কোনও লাভ হয়নি। তাঁর অভিযোগ, রাজ্যে সিপিএম নেতা, রাজ্যসভার সাংসদ ও বর্ষীয়ান নেতাদের নিজেদের এলাকায় প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। কার্যত সংবিধানের দম বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ তোলেন তিনি। গত তিন বছর ধরে ত্রিপুরায় নৈরাজ্য চলছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তাঁর দাবি রাজ্য জুড়ে যখন বাম নেতাদের ওপর আক্রমণ চলছে তখন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হয়েও একেবারে চুপ করে আছেন বিপ্লব দেব। তিনি বলেন, নেতাদের ওপর আক্রমণ কখনও মুখ খোলেননি বিপ্লব দেব। দলীয় নেতাদের বিরুদ্ধে কোনও কড়া ব্যবস্থাও নেননি। তিনি আরও বলেন, ক্ষমতায় আসার আগে ২৯৯টি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল বিজেপি। তিন বছর পেরিয়ে গেলেও একটাও কার্যকর হয়নি।

কিছুদিন আগে ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী সেতু উদ্বোধন করতে গিয়ে বিজেপি আমলে ত্রিপুরার বাড়তি বিদ্যুৎ উৎপাদনের কথা উল্লেখ করেছেন তিনি। সেই প্রসঙ্গে টেনে মানিক সরকার বলেন, আদতে মিথ্যা দাবি করেছেন মোদী। তাঁর মতে, বাম শাসনকালেই বাড়তি বিদ্যুৎ উৎপাদন করেছে ত্রিপুরা, যা শুধু উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিকেই নয়, তা দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশকেও।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla