Jharkhand Politics : নিজের পদ নিয়ে সংশয়ের মাঝেই বিধায়কদের ‘পদ্মপাঁক’ থেকে বাঁচাতে মরিয়া হেমন্ত, সদলবলে গেলেন গেস্ট হাউজে

Jharkhand Politics : আজই হেমন্ত সোরেনের বিধায়ক পদ খারিজ করার বিষয়ে নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ পাঠাতে পারেন রাজ্যপাল রমেশ বেইস। নিজের বিধায়ক পদ নিয়ে সংশয়ের মাঝেই বিধায়কদের নিয়ে খুন্তির উদ্দেশে রওনা দিলেন হেমন্ত সোরেন।

Jharkhand Politics : নিজের পদ নিয়ে সংশয়ের মাঝেই বিধায়কদের 'পদ্মপাঁক' থেকে বাঁচাতে মরিয়া হেমন্ত, সদলবলে গেলেন গেস্ট হাউজে
ছবি সৌজন্যে : ANI
Follow Us:
| Edited By: | Updated on: Aug 27, 2022 | 4:15 PM

রাঁচি : নির্বাচন কমিশনের তরফে ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেনকে বিধায়ক হিসেবে অযোগ্য হিসেবে ঘোষণা করার বিষয়ে রিপোর্ট পাঠানো হয়েছে রাজভবনে। শনিবার রাজ্য়পাল রমেশ বেইস সেই বিষয়ে নির্দেশ পাঠাতে পারেন নির্বাচন কমিশনের কাছে। মুখ্যমন্ত্রীর বিধায়ক পদ খারিজ হওয়ার সম্ভাবনার মাঝেই ঘুঁটি সাজাতে শুরু করেছে ঝাড়খণ্ডের কংগ্রেস-জেএমএম সরকার। এবার তল্পিতল্পা নিয়ে বাসে করে তিনটি বাসে করে রাজ্য ছেড়ে অন্য কোথাও যেতে দেখা গেল হেমন্ত সোরেন সহ শাসক জোটের অন্যান্য বিধায়কদের।

হেমন্তের বিধায়ক পদ খারিজকে কেন্দ্র করে ঝাড়খণ্ডের রাজনীতি প্রতি মুহূর্তে তাৎপর্যপূর্ণ মোড় নিচ্ছে। হেমন্তের বিধায়ক পদ খারজি হলে কী পদক্ষেপ করবে জেএমএম-কংগ্রেস-আরজেডি সরকার তার ব্লু প্রিন্ট বানাতে একাধিকবার বৈঠকে বসেছে শাসক শিবির। এদিন মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনেই তৃতীয়বারের জন্য বৈঠকে বসেন বিধায়করা। সেখানেই পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে আলোচনা হয়। সূত্র মারফত জানা গিয়েছিল, সেই বৈঠকেই একেবারে আঁটঘাট বেঁধে এসেছিলেন বিধায়করা। ঝাড়খণ্ডের বাইরে অন্য কোথাও আস্তানা করার জন্য ব্যাগ গুছিয়েই বেরিয়েছিলেন শাসক দলের বিধায়করা। এবার তিনটি বাসে করে রওনা দিলেন অজানা গন্থব্যের উদ্দেশ্যে। বিধায়ক পদ খারিজের সম্ভাবনার মধ্য়েই হেমন্ত সোরেন তাঁর বিধায়কদের একজোট বেঁধে রাখতে চাইছেন বলে মনে করা হচ্ছে। তাই বিজেপির নাগাল থেকে সরিয়ে ‘নিরাপদ জায়গায়’ নিয়ে যাওয়া হচ্ছে তাঁদের। সূত্রের খবর, হেমন্ত সোরেন ছাড়া সেই দলে রয়েছেন ৪৩ জন বিধায়ক।

বিধায়ক কোন রাজ্যের উদ্দেশ্যে সড়কপথে যাত্রা শুরু করেছেন তা স্পষ্ট করে বলা হয়নি। তবে এদিন সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে এক কংগ্রেস বিধায়ক জানিয়েছিলেন, বিধায়ক হাতিয়ে নেওয়ার কোনও সম্ভাবনা উঁকি দিলেই পশ্চিমবঙ্গ বা ছত্তীসগঢ়ের মতো অ-বিজেপি শাসিত কোনও রাজ্য সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে শাসক দলের বিধায়কদের। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, খুন্তি জেলার দিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বিধায়কদের। সেখানেই কোনও গেস্ট হাউজে আশ্রয় নিতে পারেন বলে জানা গিয়েছে। এদিকে আজ সাড়ে ৮ টায় নিজেদের বিধায়কদের সঙ্গে বৈঠক ডেকেছে কংগ্রেস।