অমিত-ভবনে ফের হেভিওয়েট বৈঠকে বঙ্গ নেতৃত্ব, থাকতে পারেন রাজীব-শুভেন্দুও

রবিবার হাওড়ার ডুমুরজলায় যে সভা হল, সেখানে প্রাথমিকভাবে অমিত শাহর আসার কথা ছিল। তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর জায়গায় এদিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি হাজির ছিলেন।

অমিত-ভবনে ফের হেভিওয়েট বৈঠকে বঙ্গ নেতৃত্ব, থাকতে পারেন রাজীব-শুভেন্দুও
ফাইল ছবি
ঋদ্ধীশ দত্ত

|

Jan 31, 2021 | 8:46 PM

কলকাতা: কবে রাজ্যে আসবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী? অপেক্ষার প্রহর গুনছেন বিজেপির (BJP) কর্মী-সমর্থকেরা। তবে তার আগে রাজধানীর কৃষ্ণ মেনন মার্গে নিজের বাসভবনে ফের একবার রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন অমিত শাহ (Amit Shah)। বিজেপি সূত্রে রবিবার এমনটাই খবর মিলেছে। আগামী মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসভবনে এই বৈঠক হবে বলে জানা গিয়েছে।

অমিত শাহের বাড়িতে এই বৈঠকে হাজির থাকতে চলেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায়, কেন্দ্রীয় সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গীয়রা। এ বাদেও শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari), রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় (Rajib Banerjee) ও অমিতাভ চক্রবর্তীরা ওই বৈঠকে উপস্থিত থাকতে পারেন বলে খবর। মঙ্গলবার দুপুরের পরেই এই বৈঠক হবে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসভবনে।

প্রাক নির্বাচনী প্রস্তুতি এই বৈঠকের অন্যতম আলোচ্য বিষয় হতে চলেছে তা নিয়ে কোনও সংশয় নেই। তবে ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহেই অর্থাৎ ৭ জানুয়ারি বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা ও ৮ জানুয়ারি খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রাজ্যে আসার কথা রয়েছে। এর পরপরই অমিত শাহ রাজ্যে আসতে পারেন, এমন সম্ভাবনাও তৈরি হয়েছে। ফলে বিজেপি সর্বোচ্চ নেতৃত্বের আগমন এবং তাঁদের কর্মসূচি একটা বড় বিষয় হবে আলোচনার।

বনগাঁয় মতুয়াদের নাগরিকত্ব ইস্যুটিকেও যথেষ্ট গুরুত্ব সহকারে বিজেপির পক্ষ থেকে দেখা হচ্ছে। নাগরিকত্ব আইন কার্যকরে বিলম্বের জেরে মতুয়া সমাজে যে অল্পবিস্তর প্রশ্ন ওঠা শুরু হয়েছে, তা নিরসন করতে অমিত শাহ নিজেই আসবেন বলে জানিয়েছিলেন। কিন্তু, তাঁর সফর পিছিয়ে পড়ায় ৩০ জানুয়ারির ঠাকুরনগরের সভাও পিছিয়ে গিয়েছে। অমিত শাহ যদিও যে কোনও দিন রাজ্যে আসতে পারেন বলে জানিয়েছেন। তা নিয়েও আলোচনা হতে পারে।

আরও পড়ুন: ‘ঝাঁকের পাখি সুযোগ পেলে ফিরে আসবে’, রাজীবের ডুমুরজলা-সভার পর বললেন পার্থ

রবিবার হাওড়ার ডুমুরজলায় যে সভা হল, সেখানে প্রাথমিকভাবে অমিত শাহর আসার কথা ছিল। তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর জায়গায় এদিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি হাজির ছিলেন। গতকাল অমিত শাহের হাত ধরে যারা বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন, তাঁরা বাদে এদিন আর সেভাবে কোনও বড় মুখকে গেরুয়া শিবিরে শামিল হতে দেখা যায়নি। যা কিছুটা হলে বিজেপি ‘প্রত্যাশা’ অনুরূপ হয়নি। ফলে বৈঠকের আলোচ্য বিষয়ে হাওড়ার প্রসঙ্গও থাকতে পারে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

আরও পড়ুন: হাওড়ায় বিজেপি কর্মীদের ওপর নৃশংস হামলার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla