Navjot Singh Sidhu: হারের দুঃখ নেই, ‘আপ’কে মনোবল জোগাতে ব্যস্ত সিধু! বাড়ছে দলবদলের জল্পনা

Navjot Singh Sidhu Praises AAP: পঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের ভরাডুবির জন্য প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চন্নির সমর্থকরা যেখানে নভজ্যোত সিং সিধুকেই দোষারোপ করেছেন, সেখানেই সিধু ফলপ্রকাশের পরই হার স্বীকার করে নিয়ে আম আদমি পার্টিকে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন।

Navjot Singh Sidhu: হারের দুঃখ নেই, 'আপ'কে মনোবল জোগাতে ব্যস্ত সিধু! বাড়ছে দলবদলের জল্পনা
ফাইল ছবি
TV9 Bangla Digital

| Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

Mar 18, 2022 | 7:26 AM

নয়া দিল্লি: দলের হারে দুঃখ নেই, বরং অন্য দলের গুণগানেই গাইতে ব্যস্ত নভজ্যোত সিং সিধু (Navjot Singh Sidhu)। কংগ্রেসের অন্তর্বর্তী সভাপতি সনিয়া গান্ধী(Sonia Gandhi)-র নির্দেশেই বুধবার পঞ্জাবের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দেন নভজ্যোত সিং সিধু। তবে পদ খুইয়েও তাঁর দুঃখ নেই, বরং পঞ্জাবের নবনির্বাচিত শাসক দল আম আদমি পার্টির প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন তিনি। বুধবারই পঞ্জাবের নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ গ্রহণ করেন ভগবন্ত মান। বৃহস্পতিবার তাঁকে টুইটে শুভেচ্ছা জানিয়ে সিধু বলেন, “পঞ্জাবে মাফিয়া-বিরোধী এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা হল।”

পঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের ভরাডুবির জন্য প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চন্নির সমর্থকরা যেখানে নভজ্যোত সিং সিধুকেই দোষারোপ করেছেন, সেখানেই সিধু ফলপ্রকাশের পরই হার স্বীকার করে নিয়ে আম আদমি পার্টিকে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন। সেই শুভেচ্ছাবার্তাতে তিনি লিখেছিলেন, “পঞ্জাবের জনগণ দারুণ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।”

বৃহস্পতিবারও টুইট করে ফের একবার আম আদমি পার্টি ও নতুন মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মানকে শুভেচ্ছা জানান। সিধু লেখেন, “পৃথিবীতে সবথেকে খুশি ব্যক্তি তিনিই, যার থেকে কেউ কোনও প্রত্যাশা রাখে না….ভগবন্ত মান পঞ্জাবে মাফিয়া বিরোধী এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা করলেন, যাকে ঘিরে বিপুল প্রত্যাশা রয়েছে। আশা করছি তিনি সকলের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারবেন, জনকল্যাণ নীতি গ্রহণ করে পঞ্জাবকে উন্নয়নের পথে চালিত করবেন।”

গত বছর থেকেই চরমে উঠেছিল পঞ্জাবের অন্তর্দ্বন্দ্ব। তরকালীন মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংয়ের বিরুদ্ধে ড্রাগ মাফিয়াদের আড়াল করা, বিরোধীদের প্রতি নমনীয় মনোভাব প্রকাশ সহ একাধিক অভিযোগ তোলেন নভজ্যোত সিং সিধু। তাঁর সঙ্গে বিরোধের জেরেই মুখ্য়মন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দিতে বাধ্য হয়েছিলেন অমরিন্দর সিং। এরপর সিধু নিজেই মুখ্যমন্ত্রী হতে চাইলেও, বিধানসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখেই কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব দলিথ শিখ নেতা চরণজিৎ সিং চন্নিকেই বেছে নেন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে।

মুখ্যমন্ত্রী হয়ে চন্নিও সিধুর আক্রমণ থেকে রেহাই পাননি। তাঁর সঙ্গেও একাধিক ইস্যুতে বিরোধে জড়ান সিধু। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, পঞ্জাবের শাসক দলের গদি থেকে কংগ্রেসকে সরানোর অন্যতম কারণ হল অন্তর্দ্বন্দ্ব। আর সেই দ্বন্দ্বের নেপথ্যে রয়েছেন নভজ্যোত সিং সিধুই।

এদিকে, নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর থেকেই সিধু যেভাবে আম আদমি পার্টির প্রশংসা করতে শুরু করেছেন, তার জেরে দল বদলের জল্পনাও ফের একবার বৃদ্ধি পেয়েছে। উল্লেখ্য, বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার আগে আম আদমি পার্টির সঙ্গেও কথা বলেছিলেন সিধু।

আরও পড়ুন: Gita In School Syllabus : ভোটমুখী গুজরাতের শিক্ষাক্ষেত্রে লাগল গেরুয়া রঙ, স্কুলের পাঠ্যক্রমে যুক্ত হল গীতা

আরও পড়ুন: MEA on OIC : OIC-র বিদেশমন্ত্রীদের বৈঠকে আমন্ত্রিত হুরিয়ত নেতা! ‘জঙ্গিদের প্রশ্রয় নয়’, কড়া বার্তা ভারতের 

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla