আকাশপথে ভারতের উপর নজরদারি চালানোর চেষ্টা, বিএসএফের গুলিতে পাকিস্তানে পালাল দুটি ড্রোন

এ দিন ভোর রাতে জম্মু জেলার আর্নিয়া সেক্টরের কাছে ভারত-পাকিস্তান সীমান্তের উপর দিয়ে দুটি ড্রোনকে উড়তে দেখা যায়। সঙ্গে সঙ্গে বিএসএফ বাহিনী গুলি চালায়।

আকাশপথে ভারতের উপর নজরদারি চালানোর চেষ্টা, বিএসএফের গুলিতে পাকিস্তানে পালাল দুটি ড্রোন
প্রতীকী চিত্র।

জম্মু: কাঁটাতার পেরিয়ে নয়, এ বার আকাশপথে অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালাল পাকিস্তান। শনিবার ভোর সাড়ে চারটে নাগাদ পাকিস্তানের দুটি ড্রোন জম্মুর আর্নিয়া সেক্টরে ভারতীয় সীমানা অতিক্রম করে প্রবেশ করে। সীমান্তরক্ষী বাহিনীর নজরে পড়তেই তাঁরা গুলি চালান। সঙ্গে সঙ্গে পাকিস্তানে ফিরে যায় ড্রোনগুলি।

বিএসএফের এক আধিকারিক জানান, এ দিন ভোর রাতে জম্মু জেলার আর্নিয়া সেক্টরের কাছে ভারত-পাকিস্তান সীমান্তের উপর দিয়ে দুটি ড্রোনকে উড়তে দেখা যায়। সঙ্গে সঙ্গে বিএসএফ বাহিনী গুলি চালায়। সন্দেহ করা হচ্ছে যে ওই দুটি ড্রোনকে গুপ্তচরবৃত্তি করতেই পাঠানো হয়েছিল।

দুপুরে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর তরফে বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়, “ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সংঘর্ষবিরতি চুক্তি থাকলেও পাকিস্তান ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা বন্ধ করেনি। আজ বিএসএফ বাহিনী জম্মুর আর্নিয়া সেক্টরের কাছে আন্তর্জাতিক সীমান্ত লঙ্ঘন করে দুটি ড্রোন পাকিস্তান থেকে ভারতে প্রবেশ করে। সীমান্তরক্ষী বাহিনী গুলি চালানোর পরই তারা পাকিস্তানে ফেরত চলে যায়।”

বিবৃতিতে আরও জানানো হয়, প্রায়দিনই পাকিস্তানের তরফে আন্তর্জাতিক সীমানা লঙ্ঘন করে ড্রোনের মাধ্যমে অস্ত্র ও গোলাবারুদ পাঠানোর চেষ্টা করা হয়। তবে ভারতীয় সেনা বাহিনী ও সীমান্তরক্ষী বাহিনী তা বারংবার প্রতিহত করেছে।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ২৫ ফেব্রুয়ারি ভারত ও পাকিস্তান সংঘর্ষবিরতি চুক্তি পুনরায় চালু করে। এরপর থেকে ৭৪৪ কিমি দীর্ঘ নিয়ন্ত্রণ রেখা ও দুই দেশের মধ্যে আন্তর্জাতিক সীমান্তে গুলির লড়াই হয়নি। তবে বিএসএফের অভিযোগ, সাম্প্রতিক কালে ড্রোনের মাধ্যমে ভারতের উপর নজরদারি চালানোর চেষ্টা করছে পাকিস্তান।

আরও পড়ুন: রাজ্যের জন্য কেন বেশি দামে প্রতিষেধক? মুখ খুলল কেন্দ্র