ফের ত্রিপুরায় হামলার অভিযোগ তৃণমূলের, ডিজি-কে ফোন করলেন দোলা সেন

দোলা সেনের এক সহকারীর মাথা ফেটে গিয়েছে বলে অভিযোগ। চুরি গিয়েছে অপরূপা পোদ্দারের তিনটি মোবাইল।

ফের ত্রিপুরায় হামলার অভিযোগ তৃণমূলের, ডিজি-কে ফোন করলেন দোলা সেন
ফাইল ছবি

আগরতলা: ফের তৃণমূলের (TMC) ওপর হামলার অভিযোগ উঠল ত্রিপুরায় (Tripura)। আজ, রবিবার একটি দলীয় কার্যালয় উদ্বোধন করতে যাওয়ার পথে তৃনমূল নেতা-নেত্রীদের ওপর হামলা হয়েছে বলে অভিযোগ। ইতিমধ্যেই ত্রিপুরা পুলিশের ডিজিকে ফোন করেছেন তৃণমূল সাংসদ। পুলিশ তাঁকে সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন। গাড়ি ভাঙচুরের পাশাপাশি মোবাইল ছিনতাই করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাস্থলে ছিলেন দোলা সেনা, অপরূপা পোদ্দার সহ একাধিক তৃণমূল নেতা-নেত্রী। আজই ত্রিপুরা থেকে কলকাতায় ফিরেছেন রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু।

কয়েকদিন আগেই তৃণমূল সাংসদরা ত্রিপুরা গিয়েছেন একাধিক কর্মসূচি নিয়ে। আজ মোট পাঁচটি দলে ভাগ হয়ে তাঁরা বিভিন্ন কর্মসূচিতে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন। দোলা সেন ও অপরূপা পোদ্দার একটি দলীয় কার্যালয় উদ্বোধন করতে যাচ্ছিলেন সাবলুম নন্দীগ্রাম এলাকায়। আর সেখানে যাওয়ার পথেই এই হামলা হয়েছে বলে অভিযোগ। জানা গিয়েছে, তাঁদের গাড়ি ভাঙচুর করেছে কিছু দুষ্কৃতী। দোলা সেনের অভিযোগ, ঘটনাস্থলে ছিলেন স্থানীয় থানার আইসি। তাঁর সামনেই পুরো ঘটনা ঘটে। পুলিশ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি বলেই অভিযোগ তৃণমূলের। পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ জানিয়েই ডিজিকে ফোন করেছেন দোলা সেন। তাঁর এক সহকারীর মাথা ফেটে গিয়েছে বলেও খবর। অপরূপা পোদ্দারের অভিযোগ তাঁর ব্যাগে ছিল তিনটি মোবাইল, সবকটিই ছিনতাই হয়ে গিয়েছে। তবে দোলা সেন জানিয়েছেন, তিনি তাঁর মোবাইল কোনোক্রমে বাঁচাতে পেরেছেন।

অন্যদিকে, অন্য একটি কর্মসূচিতে ত্রিপুরার ধর্মনগরে যাচ্ছিলেন অর্পিতা ঘোষ ও আবু তাহের। তৃণমূল সূত্রে খবর, গাড়ি নিয়ে সমস্যা হওয়ায় সাংসদ হয়েও তাঁরা ট্রেনেই রওনা হয়েছেন। ত্রিপুরায় রয়েছেন তৃণমূলের একাধিক সাংসদ। ১৬ অগস্ট ‘খেলা হবে’ দিবস বেশ বড় করে পালন করবে বলে ঠিক করেছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। ১ লক্ষ ফুটবল প্রদান করা হবে ত্রিপুরায়।

কিছুদিন আগেই ত্রিপুরায় তৃণমূলের দেবাংশু ভট্টাচার্য, সুদীপ রাহা, জয়া দত্ত-সহ একাধিক যুব তৃণমূ নেতার ওপর হামলার অভিযোগ ওঠে। তাঁদের আটকও করা হয়। এরপর তাঁদের ছাড়াতে নিজেই ত্রিপুরায় যান তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সঙ্গে গিয়েছিলেন দোলা সেনও। ত্রিপুরা পৌঁছে বাকি তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে খোয়াই থানায় বসে দীর্ঘক্ষণ পুলিশের সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়তে দেখা যায় অভিষেককে। পরে দেবাংশুদের জামিন মঞ্জুর করিয়ে ফিরে আসেন অভিষেক। এরপরই অভিষেক সহ অন্যান্য তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রণোদিতভাবে এফআইআর রুজু করে খোয়াই ত্রিপুরার থানার পুলিশ। পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ ওঠে তাঁদের বিরুদ্ধে। আরও পড়ুন: ২৫ বছরের ‘অমৃতকাল’-এর ঘোষণা মোদীর, নজিরবিহীন পুষ্পবৃষ্টির সাক্ষী হল লালকেল্লা

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla