Amit Shah: ‘এখন আর কাউকে ডাক্তারি পড়তে পাকিস্তান যেতে হবে না’, নতুন কাশ্মীরের দিশা দেখাচ্ছেন শাহ

Jammu and Kashmir: আগে কাশ্মীর থেকে ৫০০ জন যুবক-যুবতি ডাক্তারি পড়তে পারত। এখন এই নতুন মেডিক্যাল কলেজগুলি হওয়াতে ২ হাজার যুবক-যুবতি ডাক্তারি পড়ার সুযোগ পাবে। এখন আর কাউকে ডাক্তারি পড়ার জন্য পাকিস্তানে যেতে হবে না। বললেন অমিত শাহ।

Amit Shah: 'এখন আর কাউকে ডাক্তারি পড়তে পাকিস্তান যেতে হবে না', নতুন কাশ্মীরের দিশা দেখাচ্ছেন শাহ
তৃণমূল সাংসদদের সঙ্গে দেখা করছেন অমিত শাহ। ফাইল ছবি।

শ্রীনগর: জম্মু ও কাশ্মীর (Jammu and Kashmir) থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের পর এই প্রথমবার উপত্যকায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah)। তিনদিনের সফরে কাশ্মীরের উন্নয়নের এক নতুন দিশা দেখিয়েছেন তিনি। দীর্ঘদিন মূল স্রোত থেকে বিচ্ছিন্ন থাকা উপত্যকাকে বুঝিয়ে দিয়েছেন, কাশ্মীরকে একসঙ্গে নিয়ে চলতে চান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

সম্প্রতি ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা ফারুক আবদুল্লা বলেছিলেন, কাশ্মীরের সঙ্গে আলোচনায় বসা দরকার ভারতের। কিন্তু আজ সেই বিষয়ে দিল্লির অবস্থান স্পষ্ট করে দিয়েছেন অমিত শাহ। সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ইসলামাবাদের সঙ্গে কোনওরকম আলোচনায় আগ্রহী নয় দিল্লি। পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনার বদলে জম্মু ও কাশ্মীরের যুব সম্প্রদায়ের সঙ্গে আলোচনায় বসতে বেশি আগ্রহী কেন্দ্র, যাতে দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন করা যায়।

আজ এক অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দেওয়ার সময় অমিত শাহ বলেন, “আমি খবরের কাগজে দেখেছে ফারুক আবদুল্লা কেন্দ্র পরামর্শ দিয়েছেন পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনায় বসার জন্য। তাঁর নিজের মত প্রকাশের অধিকার আছে। কিন্তু আমরা পাকিস্তানের সঙ্গে কথা বলার থেকে কাশ্মীরের যুব সম্প্রদায়ের সঙ্গে কথা বলতে বেশি আগ্রহী।”

তিনি আরও বলেন, ” সংবিধান থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপের একটিই কারণ ছিল, তা হল কাশ্মীর, জম্মু ও লাদাখকে উন্নয়নের পথে নিয়ে আসা। আর এর ফল আপনারা ২০২৪ সালের মধ্যে দেখতে শুরু করবেন।

এর পাশাপাশি আজ কাশ্মীরের বেমিনায় একটি ৫০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল উদ্বোধন করেন অমিত শাহ। হাসপাতালটি তৈরি করতে খরচ করা হয়েছে ১১৫ কোটি টাকা। এর পাশাপাশি হান্ডওয়ারা মেডিকেল কলেজ, বারমুল্লা জেলার ফিরোজপুরা নাল্লার উপর স্টিল গির্ডার সেতু এবং প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকার সড়ক প্রকল্পের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন তিনি।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যাঁরা ইসলামাবাদের সঙ্গে এবং বিচ্ছিন্নতাবাদীদের আলোচনার কথা বলে, তাদের জিজ্ঞাসা করা উচিত পাক-অধিকৃত কাশ্মীরে কী অবস্থা করেছে ইসলামাবাদ। আমাদের কাশ্মীর এবং পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের মধ্যে উন্নয়নের তুলনা করুন। তাদের কাছে বিদ্যুৎ পরিষেবা, সড়ক, স্বাস্থ্য পরিষেবা, শৌচালয় রয়েছে? সেখানে কিছুই নেই। আর এখানে অন্য একজন ভারতীয় যা অধিকার ভোগ করেন, আপনারাও সেই একই অধিকার ভোগ করেন।”

নাম না করে কংগ্রেস, ন্যাশনাল কনফারেন্স এবং পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টিকেও এক হাত নেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বলেন, আগে এখানে মাত্র তিনটিই মেডিক্যাল কলেজ তৈরি হয়েছে। জম্মু ও কাশ্মীরে এর আগে যাঁরা শাসন করেছেন, সেই তিন পরিবার তিনটি মেডিক্যাল কলেজ তৈরি করেছে। আর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এখানে সাতটি নতুন মেডিক্যাল কলেজের অনুমোদন দিয়েছেন। আগে কাশ্মীর থেকে ৫০০ জন যুবক-যুবতি ডাক্তারি পড়তে পারত। এখন এই নতুন মেডিক্যাল কলেজগুলি হওয়াতে ২ হাজার যুবক-যুবতি ডাক্তারি পড়ার সুযোগ পাবে। এখন আর কাউকে ডাক্তারি পড়ার জন্য পাকিস্তানে যেতে হবে না।”

আরও পড়ুন : Jammu and Kashmir: ‘কংগ্রেস আমলে পাথর নিক্ষেপকারীদের কথায় কাশ্মীর চলত’, তোপ বিজেপি সাধারণ সম্পাদকের

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla