Mumbai Drug Case: তদন্তের মুখে এনসিবি কর্তা, সমীর ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে ভিজিল্যান্স তদন্ত

Aryan Khan Drug Case, এর আগেই প্রমোদতরী মাদক মামলার সাক্ষী কে পি গোসাভির ব্যক্তিগত দেহরক্ষী প্রভাকর সেইল (Prabhakar Sail) এনসিবি কর্তার বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করেছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন, টাকার বিনিময়ে তাঁকে মিথ্যা সাক্ষী দিতে চাপ দেন এনসিবি কর্তা সমীর ওয়াংখেড়ে।

Mumbai Drug Case: তদন্তের মুখে এনসিবি কর্তা, সমীর ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে ভিজিল্যান্স তদন্ত
এনসিবি আধিকারিক সমীর ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে ভুয়ো শংসাপত্র দেখানোর অভিযোগ এনেছে এনসিপি। ফাইল চিত্র।
অরিজিৎ দে

|

Oct 25, 2021 | 2:03 PM

মুম্বই: তদন্তের মুখে আরিয়ান খান (Aryan Khan) মাদক মামলায় তদন্তের দায়িত্ব থাকা এনসিবি (NCB) কর্তা সমীর ওয়াংখেড়ে (Sameer Wankhede)। সোমবার, মাদক নিয়ন্ত্রক সংস্থা ও এনসিবি কর্তা সমীর বিশেষ এনডিপিএস আদালতে (NDPS Court) হলফনামা জমা দিয়েছেন। আগেই আরিয়ান খান মাদক তদন্ত মামলায় টাকার বিনিময়ে এক সাক্ষীকে প্রভাবিত করার অভিযোগ উঠেছিল এনসিবির বিরুদ্ধে। এনসিবির জ়োনাল ডিরেক্টর সমীর যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

এর আগেই প্রমোদতরী মাদক মামলার সাক্ষী কে পি গোসাভির ব্যক্তিগত দেহরক্ষী প্রভাকর সেইল (Prabhakar Sail) এনসিবি কর্তার বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করেছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন, টাকার বিনিময়ে তাঁকে মিথ্যা সাক্ষী দিতে চাপ দেন এনসিবি কর্তা সমীর ওয়াংখেড়ে। মুম্বই আদালতে হলফনামা পেশ করে তিনি জানিয়েছেন আরিয়ান খান মামলায় সমীরের সঙ্গে ৮ কোটি টাকার চুক্তি হয়েছে। মুম্বই পুলিশ কমিশনারকে চিঠি লিখে তাঁকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হতে পারে, এমনকি তাঁকে হত্যা করা হতে পারে বলে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ তোলেন প্রভাকর। তিনি জানিয়েছিলেন তাঁকে ৩ অক্টোবর এনসিবি দফতরে জেরার জন্য ডাকা হয়েছিল সেখানে তাঁর ওপর চাপ সৃষ্টি করে সাদা কাগজে সই করিয়ে নেওয়া হয়েছে। সমীরের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ সামনে আসার পরেই তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছিল এনসিবি। এনসিপি (NCP) নেতা তথা মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী নবাব মালিক (Nawab Malik) তাঁর বিরুদ্ধে জালিয়াতির অভিযোগ করেন।

এদিন সকালে বিশেষ আদালতে হলফনামা পেশ করেন এনসিবি কর্তা সমীর ওয়াংখেড়ে। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে হলফনামায় তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সমীর। তিনি জানিয়েছেন, রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নিয়ে তাঁকে মিথ্যা মামলায় অভিযুক্ত করা হচ্ছে। দুটি রাজনৈতিক দল তাঁর চাকরি কেড়ে নেওয়ার এমনকি তাঁর পরিবারের ক্ষতি করা হুমকিও দিয়েছেন। পরিবারের নিরাপত্তার কথা ভেবে তিনি আতঙ্কিত। এই আক্রমণের মুখে মাদক মামলা সঙ্গে যুক্ত সাক্ষীদের নাম ঠিকানা প্রকাশ্যে চলে আসছে, ফলে মামলা প্রভাবিত হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। জানা গিয়েছে সমীরের বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তাঁকে দিল্লিতে এনসিবি সদর দফতরে তলব করা হয়েছে। সেখানে ঘুষকাণ্ডে সমীরকে জিজ্ঞাসাবাদ করাও হতে পারে।

সব মিলিয়ে আরিয়ান খান মাদক মামলা প্রবল চাপে়র মধ্যে রয়েছে এনসিবি। এর আগেই সাক্ষীদের ফাঁকা পাঞ্চনামা ও সিজার লিস্টে সই করানো, আরিয়ান খানকে ছেড়ে দিতে ২৫ কোটি টাকার ‘ডিল’ সহ একাধিক চাঞ্চল্যকর অভিযোগ উঠেছে। মুম্বই মাদক মামলা ক্রমশই রাজনৈতিক দিকে মোড় নিচ্ছে। আগামী দিনে এই গতিপ্রকৃতি কোন দিকে যায় সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আরও পড়ুন Adhir Chaudhury: ‘চুক্তি হয়ে গিয়েছে, মোদীর সবচেয়ে বড় দালাল মমতাই’, তীব্র কটাক্ষ অধীরের

আরও পড়ুন Post Poll Violence: কাঁকুরগাছির অভিজিৎ সরকার ‘খুনে’ তৎপর সিবিআই, সাতসকালেই ৪ অভিযুক্তের বাড়িতে হানা

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla