Tathagata Roy: মোহিত রায় ঠিক কাজ করেছেন! বিজেপির ‘অন্তর্দ্বন্দ্বের’ মাঝেই ফের বিস্ফোরক তথাগত

Tathagata Roy: মোহিত রায়ের চিঠিকে সমর্থন তথাগতর। শান্তনু ঠাকুরের বিদ্রোহও সঠিক বলে মনে করেন তিনি।

Tathagata Roy: মোহিত রায় ঠিক কাজ করেছেন! বিজেপির 'অন্তর্দ্বন্দ্বের' মাঝেই ফের বিস্ফোরক তথাগত
মোহিতকে সমর্থন তথাগতর (অলংকরণ- অভীক দেবনাথ)

কলকাতা : ফের বিষ্ফোরক তথাগত রায়। মোহিত রায়ের চিঠিকে সমর্থন করলেন তথাগত। তাঁর দাবি, শান্তনু ঠাকুরের বিদ্রোহ আর মোহিত রায়ের চিঠির মধ্যে যোগ রয়েছে। ওরা ঠিক কাজ করেছে বলেই দাবি তথাগতর। সিএএ বিল পাস হওয়ার পরও কেন বিধি তৈরি হচ্ছে না, সেই প্রশ্নই তুলেছেন বঙ্গ বিজেপির উদ্বাস্তু সেলের আহ্বায়ক মোহিত রায়। বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুর হোয়টসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়ার পর যে ভাবে পদ্ম শিবিরের অন্তর্দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এসেছে, সেই দ্বন্দ্বই এবার আরও প্রকট হয়েছে এই ইস্যুতে। আর তাতেই সমর্থন রয়েছে তথাগতর।

কাউকে অস্বস্তিতে ফেলার জন্য নয়, সমাজের স্বার্থেই এই দাবি

এই প্রসঙ্গে মোহিত রায় বলেন, ‘এটা কোনও ব্যক্তিগত বিষয় নয়। কোনও পদের বিষয় নয়, কারও প্রতি অভিমানেরও বিষয় নয়। এটা সমাজের কাছে একটা নৈতিক বিষয়। সেই বিষয়ে যদি আমি একটি এগিয়ে পদক্ষেপ করি, আমার ধারনা সেটা সবাই বুঝবেন। এর বাইরে কাউকে অস্বস্তিতে ফেলা উদ্দেশ্য নয়।’

‘এক হাজার বার সমর্থন’

তথাগত রায় বলেন, ‘মোহিত রায় দলের কাছে একটা আবেদন করেছে। একশ বার সমর্থন করি, এক হাজার বার সমর্থন করি। একদম ঠিক কাজ করেছে।’ তিনি জানান, একটা আইন তৈরি হলে, তার বিধি তৈরি করতে হয়। কেন সেই বিধি তৈরির কাজটা হচ্ছে না, সেটাই কেন্দ্রের কাছে জানতে চেয়েছেন মোহিত রায়।

বিধি তৈরি হতে সময় লাগবে

তথাগতর বক্তব্য সম্পর্কে বঙ্গ বিজেপির নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার বলেন, ‘এতে উস্কানির কোনও কারণ নেই। বিজেপির একটি ঘোষিত আইন সিএএ। যাঁরা ওপার বাংলা থেকে এসেছেন সে মতুয়া হোক বা নমশূদ্র, তাঁদের নাগরিকত্ব দিতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ বিজেপি।’ তবে কিছু বিষয় নিয়ে জটিলতা থাকায় বিধি তৈরি করতে দেরি হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি। বিজেপি নেতার আরও দাবি, মাঝে করোনা এসেছে, তাই বিধি তৈরিতে আরও দেরি হয়েছে।

শান্তনুর সঙ্গে যোগসূত্র!

দলের মধ্যে বিদ্রোহী হয়েছেন সাংসদ শান্তনু ঠাকুর। বঙ্গ বিজেপির হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছেড়েছেন তিনি। তাঁর বাড়িতে দফায় দফায় বসছে বিদ্রোহী নেতাদের বৈঠক। এরই মধ্যে তথাগত রায়ের দাবি, মোহিত রায়ের চিঠির সঙ্গে শান্তনু ঠাকুরের যোগসূত্র রয়েছে। সিএএ না নাগরিকত্ব আইনের সঙ্গে মতুয়াদের নাগরিকত্বের যোগ রয়েছে। সেই প্রসঙ্গ টেনেই তথাগত বলেন, ‘যাঁরা মতুয়া সম্প্রদায়ের প্রতিষ্ঠাতা, তাঁদের পরম্পরার ধারক শান্তনু ঠাকুর। রাজ্য কমিটিতে কোনও মতুয়াকে নেওয়া হয়নি। মতুয়াদের গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। সেটা যে শান্তনু অপছন্দ করবেন, এটাই স্বাভাবিক।’

পিকের টিমের সঙ্গে বিজেপির যোগ

সম্প্রতি, একটি ভার্চুয়াল বৈঠকে বিজেপির সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) অমিতাভ চক্রবর্তী বলেছেন, পিকে -এর সংস্থার এক কর্মী তাঁকে জানিয়েছেন বর্তমানে সংগঠিত বিজেপির কমিটি ‘বেস্ট টিম’। এই খবর প্রকাশ্যে আসার পরই রাজনৈতিক মহলে জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে। প্রশ্ন উঠছে, তাহলে বিজেপির সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন)- এর কি রাজনৈতিক কুশলী প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে যোগাযোগ আছে?

এ প্রসঙ্গে তথাগত রায় বলেন, প্রশান্ত কিশোরের টিমের লোক ওদের সার্টিফিকেট দিয়েছেন। এটা যদি সত্যি হয়, আমার অভিযোগটাই তাহলে সত্যি হল। আমি তো বলেছিলামই যে প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে বর্তমান বিজেপির অনেকে যোগাযোগ রাখেন। এটা হারের অন্যতম কারণ। আমার কথাই প্রমাণিত হল।

আরও পড়ুন : Samik Bhattacharya On Suvendu Adhikari: ‘কমিটি থেকে শুভেন্দুকে বাদ তৃণমূলের চক্রান্ত’, গঙ্গাসাগর নিয়ে আদালতের রায় পুনর্বিবেচনার দাবি

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla