SSC Scam: ২১ কোটিতে উত্তাল বাংলা! পার্থর হাত ধরে মাসতুতো ভাইকেও চাকরি করে দিয়েছিলেন অর্পিতা?

SSC Scam: অর্পিতার গ্রেফতারির খবর সামনে আসতেই ডোমজুড়েও তা নিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। এখানেই মাসির বাড়িতে আনাগোনা বেড়েছে পাড়া-প্রতিবেশীদের।

SSC Scam: ২১ কোটিতে উত্তাল বাংলা! পার্থর হাত ধরে মাসতুতো ভাইকেও চাকরি করে দিয়েছিলেন অর্পিতা?
TV9 Bangla Digital

| Edited By: জয়দীপ দাস

Jul 24, 2022 | 6:04 PM

ডোমজুড়: ২১ কোটিতে উত্তাল বাংলা। নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় ইতিমধ্যেই রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Former Education Minister Partha Chatterjee) ও মডেল অভিনেত্রী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে (Arpita Mukherjee) গ্রেফতার করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডি(ED)। এদিকে এই অর্পিতাই আবার পার্থর ঘনিষ্ঠ বলে দাবি করেছে ইডি। ব্যাঙ্কশাল আদালতে তোলার পর শনিবারই পার্থর ২ দিনের ইডি হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে অর্পিতাকে রবিবার তোলা হবে আদালতে। এদিকে হাওড়ার ডোমজুড়ে (Domjur) মাসির বাড়িতে মাঝেমধ্যেই আনাগোনা ছিল অর্পিতার। মাসতুতো ভাইয়ের চাকরিও হয়েছিল অর্পিতার হাত ধরে, এমনটাই দাবি এলাকাবাসীর। এ খবর চাউর হতেই নতুন করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজ্য-রাজনীতির অন্দরে।

এদিকে অর্পিতার গ্রেফতারির খবর সামনে আসতেই ডোমজুড়েও তা নিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। মাসির বাড়িতেও আনাগোনা বেড়েছে পাড়া-প্রতিবেশীদের। তবে অর্পিতা প্রসঙ্গে মুখে কুলুপ এঁটেছে তাঁর তাঁর মাসির বাড়ির সদস্যরা। এদিকে মাসি স্মৃতি মুখোপাধ্যায় জানতেন সিরিয়াল,সিনেমাতে অভিনয় করেন অর্পিতা। সঙ্গে করতেন মডেলিং। এমনকী সিনে দুনিয়ায় তিনি রীতিমতো প্রতিষ্ঠিত বলেই জানতেন এলাকার বাসিন্দারা। অর্পিতার মাসির বাড়িতেই থাকেন তাঁর দাদু দুর্গাপদ চক্রবর্তী। তিনি কঠিন অসুখে ভুগছেন। দাদুকে দেখতে মাঝেমধ্যে মধ্যে সেখানে আসতেন অর্পিতা। অর্পিতার ঘর থেকে কোটি কোটি টাকা উদ্ধার হলেও মাসির বাড়ি আদপেই ছিমছাম। নেই আভিজাত্যের ছটা। একতলা এই বাড়িটি দেখে আর পাঁচটা মধ্যবিত্ত বাড়ির সঙ্গে আলাদা করতে পারবেন না।  

অর্পিতা প্রসঙ্গে স্মৃতিদেবী বলেন, “মাসখানেক আগেও বোনকে নিয়ে এসেছিল দাদুকে দেখতে। অন্য কোনও বিষয়ে আমাদের কথা হত না। বোনের বিয়ে হয়ে গিয়েছে। মা বেলঘরিয়ায় থাকেন। আর ও নিজের ফ্ল্যাটে থাকত। এরপর কীভাবে ওর কাছে টাকা এল বা ওকে ফাঁসানো হয়েছে কি না তা নিয়ে কিছু বলতে পারব না। আমাদের এখানে কোনওদিন কোনও প্রভাবশালী আসেননি।” তবে এলাকার বাসিন্দাদের দাবি অর্পিতার মাসতুতো ভাই চাকরি পেয়েছিলেন অর্পিতার সুপারিশে। মন্ত্রীকে ধরেই পেয়েছিলেন চাকরি। 

এই খবরটিও পড়ুন

অভিযোগ, মাসতুতো ভাই মুকুল মুখোপাধ্যায় এলাকায় বন্ধুবান্ধবদেরও চাকরি করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিত। এবার সে খবর সামনে আসতেই নতুন করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়। এ প্রসঙ্গে স্থানীয় বাসিন্দা প্রভাত কর্মকার বলেন, “মুকুল তো আমার ছেলের বন্ধু। নবান্নতে মনে হয় চাকরি করে। আমি সঠিক বলতে পারব না। আমার ছেলে বলতে পারবে। তবে আমার ছেলে বলেছিল ও সরকারি চাকরি করত। তবে ওর চরিত্র খারাপ ছিল তাই আমার ছেলেকে বারণ করতাম ওর সঙ্গে মিশতে। মদ খায়।  কিন্তু তারপরেও আমার ছেলে কথা শুনত না। মিশত। বলত তোমরা কিছু জানোনা! ও ঠিক আমার চাকরি করে দেবে। তবে মুকুল বলেছিল চাকরি করে দেবে। আমরা রাজি ছিলাম না। ওকে তো ওর আত্মীয় করে দিয়েছে। ও কী করে আমাদের করে দেবে?” 

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla