Hair Fall Problems: সব ঋতুতেই চুল পড়া বন্ধ হবে এই ম্যাজিক উপকরণ দিয়ে! থাকবে স্মুদ আর চকচকেও

ত্বকের জন্যও কফির তেল বেশ উপকারী। কারণ এই তেল ব্যবহার করলে ত্বকের লাবণ্য ও তারুণ্য দুটোই ফিরে আসে ও বজায় রাখতে সাহায্য করে।

Hair Fall Problems: সব ঋতুতেই চুল পড়া বন্ধ হবে এই ম্যাজিক উপকরণ দিয়ে! থাকবে স্মুদ আর চকচকেও
ভাবছেন কফি ত্বকের জন্য ভাল , কিন্তু চুলের জন্য কীভাবে কার্যকরী হল?

চুলের সমস্যার জন্য উপযুক্ত সমাধান খুঁজে পেতে হয়রান অবস্থা! শীতকালে সবচেয়ে সাধারণ সমস্যাগুলির মধ্যে একটি হল চুল পড়া (Hair Fall)। আর এতেই আমরা হতাশ বোধ করি। এই চুল পড়া রোধ করার জন্য় বিভিন্ন ধরণের পণ্য বা ঘরোয় উপায়ে সন্ধান করে থাকি। তবে এই মরশুমে (Winter Season) এমন সমস্যার মুখোমুখি হলে একটি মোক্ষম দাওয়াই রয়েছে। তা হল কফির তেল (Coffee Oil)।

ভাবছেন কফি ত্বকের জন্য ভাল , কিন্তু চুলের জন্য কীভাবে কার্যকরী হল? চুল পড়া রোধের জন্য বিলাসীতার দরকার নেই। শীতকালে কফি পান করা চল ঘরে ঘরে। এছাড়া এই কফির তেল কোনও দামি কোনও জিনিস নয়। সস্তায় পুষ্টিকর যাকে বলে। একটি প্রক্রিয়াজাত তেল হিসেবে বাজারে কফি তেল পাওয়া যায়। কফির বীজ থেকে তৈরি করা হয়। সঠিক ও একটি নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় এই প্রক্রিয়াটি করা হয়ে থাকে। রাসায়নিক পদ্ধতিতেও এই তেল তৈরি করা হয়। আর সেই তেল ক্যাফেওল নামে পরিচিত। যদিও এটি বিভিন্ন স্বাস্থ্যের পরিপূরক ও বায়োডিজেল শিল্পের সঙ্গে যোগ রয়েছে। যা স্কিনকেয়ার ইন্ডাস্ট্রিতে বেশি ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

ত্বকের জন্যও কফির তেল বেশ উপকারী। কারণ এই তেল ব্যবহার করলে ত্বকের লাবণ্য ও তারুণ্য দুটোই ফিরে আসে ও বজায় রাখতে সাহায্য করে। এছাড়া দ্রুত শোষণের বিশিষ্ট্যের কারণে ত্বককে ময়েশ্চারাইজডও করে। এটিতে অপরিহার্য ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে যা ত্বককে উজ্জ্বল রাখে। এই তেলে একটি সুমিষ্ট গন্ধ রয়েছে। চুলের জন্য এই কফি তেলের উপকারিতা ও গুরুত্ব কী, তা জানুন …

চুল পড়া রোধ করে- কফি তেলের সাময়িক প্রয়োগেই চুল পড়া রোধ করে। কারণ এর জেরে চুলের দ্রুত বৃদ্ধি ঘটে ও নতুন করে চুল গজাতে সাহায্য় করে। চুল পড়া একটি সাধারণ সমস্যা। মাথার ত্বকে ও শিকড়ে কফির তেল ব্যবহার করে মাসাজ করতে পারেন। সারা রাত রেখে দিলে সবচেয়ে বেশি উপকার পাবেন। হাতে যদি বেশি সময় না থাকে, তাহলে ৩০ মিনিট পর ধুয়ে ফেললেও উপকার পাবেন।

শুষ্ক ও ভঙ্গুর চুল থেকে মুক্তি পেতে- যদি আপনার চুল শুষ্ক ও ক্ষতিগ্রস্ত হয়, তাহলে কফির তেল দিয়ে মাসাজ করতে পারেন। কফির তেল এক্ষেত্রে সিরাম হিসাবে ব্যবহার করেত পারেন। চুল শুষ্ক হলে চুলের আগা ফেটে যাওয়ার প্রবণতা তৈরি হয়। সেক্ষেত্রে ফলিকলগুলির প্রান্তে সামান্য কফির তেল প্রয়োগ করতে পারেন।

রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি- নারকেল তেলের সঙ্গে কফির তেল মিশিয়ে নিয়ে মাথার ত্বকে মাসাজ করতে পারেন। তাতে মাথার ত্বকে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পায়। কফি চুল পড়া রোধ করে ও তেল আর্দ্রতা বজায় রাখে।

হেয়ার মাস্ক- নারকেল তেল ও দইয়ের সঙ্গে কফির তেল ব্লেন্ড করুন। এই মাস্কটি চুলে ৩০ মিনিট রেখে হালকা মাত্রার শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। শ্যাম্পুর কন্ডিশনার দিতে ভুলবেন না যেন। এর ফলে চুল যেমন মজবুত থাকে তেমনি উজ্জ্বলতাও বাড়ে।

আরও পড়ুন: Hangbang Beauty: উজ্জ্বলতা ফিরে পেতে ত্বকে আনুন কোরিয়ান বিউটি ট্রেন্ডের স্পর্শ! জেনে নিন এই আজব রূপচর্চার রহস্যটা

এই প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য, কোনও ওষুধ বা চিকিৎসা সংক্রান্ত নয়। বিস্তারিত তথ্যের জন্য আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

Published On - 9:21 am, Thu, 13 January 22

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla