Hero Pleasure+ XTec: ভারতে লঞ্চ হয়েছে হিরো প্লেজারের নতুন স্কুটার, দাম কত?

এই স্কুটারে রয়েছে ১১০ সিসির একটি সিঙ্গল সিলিন্ডার ইঞ্জিন। এর সাহায্যে ৮ bhp এবং ৮.৭ Nm of peak torque শক্তি উৎপন্ন হয়। 

Hero Pleasure+ XTec: ভারতে লঞ্চ হয়েছে হিরো প্লেজারের নতুন স্কুটার, দাম কত?
Jubilant Yellow রঙে লঞ্চ হয়েছে এই স্কুটার।

হিরো মোটোকর্প সংস্থা তাদের নতুন হিরো প্লেজার প্লাস XTec লঞ্চ করেছে ভারতে। নতুন Hero Pleasure+ XTec- এ রয়েছে একটি নতুন এলইডি হেডল্যাম্প। এছাড়াও নতুন ফিচারের মধ্যে রয়েছে ব্লুটুথ কানেক্টিভিটি। হিরো মোটকর্পের এই নতুন স্কুটারের দাম ৬৯,৫০০ টাকা (এক্স শোরুম দিল্লি)। স্ট্যান্ডার্ড Hero Pleasure+ LX ভ্যারিয়েন্টের দাম ৬১,৯০০ টাকা (এক্স শোরুম দিল্লি)। হিরো মোটোকর্পের নতুন স্কুটার Pleasure+ XTec মডেলে রয়েছে একটি নতুন এলইডি প্রোজেক্টর হেডল্যাম্প। এর সাহায্যে আগের তুলনায় ভাল আলো পাওয়া যায়। এর পাশাপাশি নতুন রঙের অপশনে Jubilant Yellow রঙে লঞ্চ হয়েছে এই স্কুটার।

হিরো প্লেজার প্লাস XTec স্কুটারে রয়েছে idle start-stop system। এই সিস্টেম আবার হিরোর i3S technology ভিত্তিক। তার সঙ্গে রয়েছে একটি ডিজিটাল অ্যানালগ স্পিডোমিটার কনসোল। এই কনসোলে রয়েছে ব্লুটুথ কানেক্টিভিটি। যার সাহায়ে ফোনকল বা এসএমএস অ্যালার্ট কিংবা ফোনের ব্যাটারি স্ট্যাটাস জানা সম্ভব হবে। হিরো মোটকর্প সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে যে তাদের XTec মডেলে অন্যান্য সমস্ত স্কুটারের তুলনায় বিশেষ করে প্ল্যাটিনাম এডিশন থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে অত্যাধুনিক ফিচার যুক্ত করা হয়েছে। এই স্কুটারে রয়েছে সাইড-স্ট্যান্ড ইঞ্জিন কাট অফ সিস্টেম, মেটাল ফ্রন্ট ফেন্ডার। জানা গিয়েছে, হিরোর Pleasure+ 110 সম্প্রতি ট্রেন্ডসেটার মডেল হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছিল। তার থেকেই আধুনিক হিরোর নতুন প্লেজার প্লাস XTec স্কুটার।

চালক এবং আরোহীর আরামের জন্য হিরোর এই নতুন স্কুটারে রয়েছে একটি ব্র্যান্ডেড সিট ব্যাকরেস্ট এবং একটি আধুনিক ও উন্নত প্রযুক্তি সম্পন্ন প্রোজেক্টর এলইডি হেডল্যাম্প। সেই সঙ্গে রয়েছে ব্লুটুথ কানেক্টিভিটি। হিরো মোটোকর্প সংস্থার স্ট্র্যাটেজি এবং গ্লোবাল প্রোডাক্ট প্ল্যানিং বিভাগের প্রধান মালো লে ম্যাসন জানিয়েছেন যে, Pleasure+ 110 ভারতের বাজারে দ্রুত জনপ্রিয় হয়েছিল। নতুন XTec মডেলে যে ধরনের আধুনিক ও উন্নত ফিচার রয়েছে, তার ফলে এই স্কুটারও অল্পদিনেই জনপ্রিয় হয়ে উঠবে এদেশের বাজারে। কারণ অন্যান্য সমস্ত ফিচারের পাশাপাশি এই নতুন স্কুটারে রয়েছে হিরোর নিজস্ব i3S technology, যা ফুয়েল এফিসিয়েন্সি বৃদ্ধি করতে কাজে লাগে।

অন্যদিকে, হিরো মোটোকর্পের সেলস এবং আফটার সেলস বিভাগের প্রধান নবীন চৌহান জানিয়েছেন যে তাঁদের হিরো পেজার ব্র্যান্ড প্রথম থেকে জনপ্রিয়তা পেয়েছে ভারতের বাজারে। এই ব্র্যান্ডের স্কুটার পছন্দ করেছে সাধারণ মানুষ। তাই তাঁরা আশাবাদী যে হিরোর নতুন Pleasure+ XTec স্কুটারও জনপ্রিয় হবে ভারতে। উৎসবের মরশুমে লঞ্চ হয়েছে হিরোর এই নতুন স্কুটার। আগামী দিনে এই স্কুটার তরুণ প্রজন্মের মধ্যে জমিয়ে ব্যবসা করবে বলেও অনুমান করছেন হিরো কর্তৃপক্ষ। জানা গিয়েছে, হিরোর এই নতুন Pleasure+ XTec স্কুটারে থাকা প্রোজেক্টর এলইডি হেডল্যাম্প আগের তুলনায় ২৫ শতাংশ বেশি দৃশ্যমানতা দেয়। অন্ধকার রাস্তা হোক বা কুয়াশা ঘেরা রাস্তা, অনেকটা বড় এলাকা জুড়ে এই স্কুটারের হেডল্যাম্পের আলো ছড়িয়ে পড়ে। এছাড়াও এই স্কুটারে রয়েছে ১১০ সিসির একটি সিঙ্গল সিলিন্ডার ইঞ্জিন। এর সাহায্যে ৮ bhp এবং ৮.৭ Nm of peak torque শক্তি উৎপন্ন হয়।

আরও পড়ুন- BMW C 400 GT: লঞ্চ হয়েছে ভারতের ‘মোস্ট এক্সপেন্সিভ’ প্রিমিয়াম ম্যাক্সি স্কুটার, দাম কত?

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla