মুখোমুখি দুই ‘ব্রত’! নেতা-অভিনেতা বৈঠকে বাড়ছে জল্পনা

Anubrata-Parambrata Meet: কেষ্ট-পরমব্রত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বীরভূম জেলা শাসক বিধান রায়,পুলিশ সুপার নগেন্দ্র ত্রীপাঠি,  লাভপুর বিধায়ক অভিজিত্‍ গুহ।

মুখোমুখি দুই 'ব্রত'! নেতা-অভিনেতা বৈঠকে বাড়ছে জল্পনা
কেবলই 'সৌজন্য'? বাড়ছে জল্পনা, নিজস্ব চিত্র

বীরভূম: অবশেষে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিতে চলেছেন অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় (Parambrata Chatterjee)? শুক্রবার দুপুরে, বোলপুর সার্কিট হাউসে বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের (Anubrata Mondal) সঙ্গে মধ্যাহ্নভোজন সারলেন পরমব্রত। মধ্যাহ্নভোজনের পর  ঘণ্টাখানেক রুদ্ধদ্বার বৈঠকও করলেন তাঁরা। এতেই জোর জল্পনা। যদিও, এ নিয়ে মুখ খোলেননি কেউ।

এদিন, কেষ্ট-পরমব্রত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বীরভূম জেলা শাসক বিধান রায়,পুলিশ সুপার নগেন্দ্র ত্রিপাঠী,  লাভপুর বিধায়ক অভিজিত্‍ গুহ। প্রায় ঘণ্টাখানেকের সেই বৈঠকে অবশ্য কী আলোচনা হল, তা নিয়ে মুখ খুলতে রাজি ছিলেন না কেউ। পরমব্রত তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন কি না এ প্রসঙ্গে অনুব্রত এদিন বলেন, “আমি যা বলার প্রশাসনিক বৈঠকে বলব।” অন্যদিকে টলি তারকা বলেন, “আমি আমার ব্যক্তিগত কাজে এসেছিলাম। তাই সৌজন্য সাক্ষাত্‍ সারলাম। রাজনীতি নিয়ে সকলেরই মতামত থাকে। আমি ওঁর মতামত শুনলাম। আমারও কিছু ভাবনাচিন্তা রয়েছে। এটুকু্ই। এখানে বেশি ভাবার প্রয়োজন নেই। আমার কোথাও যোগ দেওয়ার কিছু নেই, যোগ না দেওয়ার কিছু নেই। এটা সম্পূর্ণ সৌজন্য সাক্ষাত্‍।”

প্রসঙ্গত, বিধানসভা নির্বাচনে একাধিক টলি তারকারা যোগ দিয়েছিলেন শাসক শিবিরে। অন্যদিকে পাল্লা ভারি হয়েছিল বিরোধী পদ্ম শিবিরেরও। এই দলীয় রাজনীতি থেকে নিজেদের যাঁরা সম্পূর্ণ সরিয়ে রেখেছিলেন তাঁদের মধ্য়ে অন্যতম জনপ্রিয় মুখ ছিলেন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়। জল্পনা তৈরি হয়েছিল তাঁকে নিয়েও। কিন্তু সেই সব জল্পনায় নিজেই জল ঢেলেছিলেন তিনি। স্পষ্টই জানিয়েছিলেন প্রত্যক্ষ রাজনীতিতে আসার কোনও অভিপ্রায় তাঁর নেই।

অভিনেতা পরমব্রতের সতীর্থ ও বন্ধু রুদ্রনীল ঘোষও ঘাসফুলের সঙ্গ ত্যাগ করে পদ্মফুলে যোগ দেন। এছাড়াও, টলিউডের প্রথম সারির বহু পরিচিত মুখই যোগ দিয়েছিলেন অধুনা শাসক শিবিরে। জুন মালিয়া, রাজ চক্রবর্তী, কাঞ্চন মৈত্ররা কেবল তৃণমূলে যোগই দেননি, বরং যোগ দিয়ে নির্বাচনে জয়লাভ করে বিধায়কও হয়েছেন। পরমব্রতকে যদিও এসবে দেখা যায়নি। তবে, বরাবরই তৃণমূল সুপ্রিমোর ‘পছন্দের তালিকায়’ রয়েছেন এই টলি তারকা। কলকাতা চলচ্চিত্র উত্‍সবের মঞ্চে খোদ মুখ্য়মন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গলায় তাঁর প্রশংসা শোনা গিয়েছিল। আচমকা বীরভূমে গিয়ে তিনি কেন অনুব্রত মণ্ডলের সঙ্গে দেখা করলেন তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।  তাহলে, নির্বাচনের পর কি সিদ্ধান্ত বদলাতে চলেছেন টলি তারকা? চলছে জল্পনা। আরও পড়ুন: Exclusive Manoj Jha: মমতা বড় নাম, তবে মুখের রাজনীতি চান না আরজেডি-র ‘ভাইরাল সাংসদ’ মনোজ ঝাঁ

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla