দিলীপ বললেন ‘বদলা হবে’, রাহুল চাইলেন ‘শান্তি’

দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh) বদল ও বদলা সংক্রান্ত ফেসবুক পোস্ট প্রসঙ্গে কার্যত বিজেপি (Dilip Ghosh) রাজ্য সভাপতির উলটো সুরই গাইলেন রাহুল সিনহা (Rahul Sinha)। ওই প্রসঙ্গে নাম না করে রাহুল সিনহা বলেন, ‘খুনের বদলা খুন সিপিএম বলেছিল। আমরা শান্তি চাই।‘

দিলীপ বললেন ‘বদলা হবে’, রাহুল চাইলেন ‘শান্তি’
দিলীপের উল্টো সুর রাহুলের গলায়

শিলিগুড়ি: দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh) বদল ও বদলা সংক্রান্ত ফেসবুক পোস্ট প্রসঙ্গে কার্যত বিজেপি (Dilip Ghosh) রাজ্য সভাপতির উলটো সুরই গাইলেন রাহুল সিনহা (Rahul Sinha)। ওই প্রসঙ্গে নাম না করে রাহুল সিনহা বলেন, ‘খুনের বদলা খুন সিপিএম বলেছিল। আমরা শান্তি চাই।‘ বিজেপির প্রাক্তন কেন্দ্রীয় সম্পাদক বলেন, ‘কে কী বলছে জানি না। আমি দলের লাইন বলছি। আমরা অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়ছি। রাজ্যের পুলিশ প্রশাসনকে বিজেপির হয়ে কাজ করতে হবে না। কিন্তু প্রশাসন নিরপেক্ষ থাকুক।‘

তবে হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, ‘মনে রাখবেন এটা তৃণমূল নয়, বিজেপি। তৃণমূলের কর্মীদের যাঁরা মেরেছিল, ক্ষমতায় এসে তাঁদের মন্ত্রী করেছে ওরা। কিন্তু বিজেপি ক্ষমতায় এসে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করবে, এটা মাথায় রাখুন।‘

আজ শিলিগুড়িতে রাহুল সিনহা আরও বলেন, ‘আগামী জানুয়ারি মাস আসতে আর ক’টা দিন বাকি। ওই মাসটা পড়তে দিন। দেখবেন ঘরে-বাইরে ব্যতিব্যস্ত হয়ে পড়বেন তৃণমূল কংগ্রেস নেতারা। দিদি-ভাইপো পালাবার পথ পাবেন না। বিজেপিতে যোগদানের হিড়িক লাগবে রাজ্যে।‘

আরও পড়ুন: ‘আমি কোথায়?’, চোখ খুলে স্ত্রী-মেয়ের কাছে জানতে চাইলেন বুদ্ধদেব

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তাঁর দাবি, উত্তরকন্যা ঘেরাওয়ে মৃত উলেন রায়ের হত্যা ছিল পূর্ব পরিকল্পিত। দুর্ঘটনা নয়।‘ তিনি প্রশ্ন তোলেন, রাতের অন্ধকারে ময়নাতদন্ত কেন হল? সে কারণেই প্রাথমিকভাবে সিজেএম  আদালত দ্বিতীয় ময়নাতদন্তের নির্দেশ দিয়েছে। রাহুল বলেন, হারতে চলেছে বলেই দেশের সর্ববৃহৎ দলের সভাপতির কনভয়ে হামলা চালিয়েছে তৃণমূল। এর জন্য গিনেস বুকে নাম ওঠা উচিত মুখ্যমন্ত্রীর। গতকালের হামলায় পুলিশ আক্রমণকারীদের পাহারা দিচ্ছিল বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, তৃণমূল কংগ্রেস অসভ্য, বর্বরের পার্টি। এসব করে ওদের লাভ হয়নি। ওদের ক্ষতিই হয়েছে। এসব করে বিজেপির কাজকর্ম আটকানো যাবে না। ফের এবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ আসছেন রাজ্য সফরে। এছারা জেপি নাড্ডা ডিসেম্বরের শেষে আবার রাজ্যে আসবেন। বাংলায় প্রতি পনেরো দিনে অমিত শাহ বাংলা সফর করবেন। আসবেন একগুচ্ছ বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা মন্ত্রীরাও।

আরও পড়ুন: নাড্ডার কনভয়ে ‘হামলা’র পরই হঠাৎ রাজ্যে আসছেন অমিত শাহ