Aadhaar Card: পেটিএম-এর কেওয়াইসি করতে ডকুমেন্ট দিয়েছিলেন যুবক, কী ভয়ঙ্কর কাণ্ড হল জানলে মাথায় হাত দেবেন

Balurghat: ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে বংশীহারী থানা এলাকার কুরপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মহঃ গোলামের কাছে মিন্টু প্রামাণিক আধার ও প্যান কার্ড সহ বিভিন্ন অফিশিয়াল ডকুমেন্ট জমা দেন।

Aadhaar Card: পেটিএম-এর কেওয়াইসি করতে ডকুমেন্ট দিয়েছিলেন যুবক, কী ভয়ঙ্কর কাণ্ড হল জানলে মাথায় হাত দেবেন
প্রতারিত যুবক (নিজস্ব ছবি)
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অবন্তিকা প্রামাণিক

May 29, 2022 | 3:08 PM

বালুরঘাট: পেটিএম-এর কেওয়াইসি করার জন্য প্রতিবেশী এক যুবককে দিয়েছিলেন নিজের আধার ও প্যান কার্ড। আর সেই আধার ও প্যান কার্ড দিয়ে অসৎ উপায়ে কলকাতার একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট খুলে লাখ-লাখ টাকা তুলে বেআইনি লেনদেন করার ঘটনায় উত্তর প্রদেশে পুলিশের পক্ষ থেকে নোটিস এল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বংশীহারী থানার করপাড়া এলাকার মিন্টু প্রামাণিক নামে। গ্রামের সাধারণ পরিবার থেকে উঠে আসা যুবক মিন্টু প্রমাণিক ও তাঁর বাবা সুদীপ প্রামাণিক ইতিমধ্যে কলকাতার ওই ব্যাঙ্কে গিয়ে পুরো বিষয়টি জানতেই তাঁদের আকাশ থেকে পড়ার মতো অবস্থা হয়েছে ৷

এরপরই জেলা পুলিশ ও প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন তাঁরা ৷ তবে লাভ কিছু হয়নি ৷ শেষে রবিবার বালুরঘাটে সাংসদের দ্বারস্থ হলেন প্রতারিত বংশীহারীর যুবক। সাংসদের দাবি জেলায় এইরকম দুষ্টচক্র কাজ করছে দীর্ঘদিন ধরে। প্রতারণার শিকার হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। এইরকম দুষ্টচক্রে সাথে জঙ্গী সংগঠন ও নিষিদ্ধ সংগঠনের যোগ থাকতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার।

কী ঘটেছে?

২০২১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে বংশীহারী থানা এলাকার কুরপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মহঃ গোলামের কাছে মিন্টু প্রামাণিক আধার ও প্যান কার্ড সহ বিভিন্ন অফিশিয়াল ডকুমেন্ট জমা দেন। অভিযোগ, এই ডকুমেন্ট জমা দেওয়ার পর আর কোনও সম্পর্ক রাখেনি মহঃ গোলাম। এরপর চলতি মাসের ২২ তারিখ উত্তরপ্রদেশের পুলিশের তরফ থেকে মিন্টু প্রামাণিকের কাছে একটি নোটিশ আসে বেআইনি লেনদেনের অভিযোগে। এই লেনদেন করা হচ্ছে কলকাতার একটি বেসরকারি ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে।

জানা গিয়েছে, বাবা সুদীপ প্রামাণিক পেশায় নাপিত। সামান্য আয় দিয়ে তাঁদের সংসার চলে। মিন্টু প্রামাণিক মাস্টার্স ডিগ্রির স্টুডেন্ট। কলকাতার বেসরকারি ব্যাংকে গিয়ে মে মাসের ২৫ তারিখে মিন্টু দেখেন তাঁর নামে যে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে সেখানে বিগত এক মাসেই ১০ লক্ষ টাকার বেশি লেনদেন হয়েছে এবং সব লেনদেন অনলাইনে। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করা হলেও পুলিশি হয়রানির আশঙ্কা করছেন এই যুবক ও তাঁর বাবা। পরে পুলিশি হয়রানির হাত থেকে মুক্তি পেতে বালুরঘাট সংসদের সংসদ সুকান্ত মজুমদারের দ্বারস্থ হন।

এই খবরটিও পড়ুন

রবিবার দুপুরে সুকান্তবাবু তাদের বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন। সাথে গ্রামাঞ্চলে এই রকমই একটি চক্র সক্রিয় ভাবে কাজ করে যাচ্ছে বলে অভিযোগ তাঁর এবং এই চক্রের সাথে বিভিন্ন সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের যোগাযোগ রাখতে পারে বলে অভিমত তাঁর।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla