‘সাংসদ হয়েছেন, এতদিন আসেননি কেন’, বিক্ষোভের মুখে বিজেপি নেত্রী লকেট

সম্প্রতি এক রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায় পান্ডুয়া গ্রামীণ হাসপাতালে। এদিন সেই হাসপাতালেই যাচ্ছিলেন লকেট (Locket Chatterjee)।

'সাংসদ হয়েছেন, এতদিন আসেননি কেন', বিক্ষোভের মুখে বিজেপি নেত্রী লকেট
নিজস্ব চিত্র

হুগলি: নিজের সংসদীয় এলাকাতেই বিক্ষোভের মুখে পড়লেন বিজেপি (BJP) সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার পান্ডুয়া হাসপাতালে যাওয়ার পথে তাঁর গাড়ি আটকে বিক্ষোভ দেখানোর অভিযোগ ওঠে। লকেটকে ঘিরে ‘গো ব্যাক’ স্লোগানও দেন বিক্ষোভকারীরা। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বিজেপির অভিযোগ, তৃণমূল পরিকল্পিত ভাবে এই ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে। পাল্টা তৃণমূলের দাবি, সাংসদ হওয়ার পর থেকে লকেট এলাকায় আসেননি। তাই ওনাকে এলাকার লোকজন আর চাইছেন না। তাই এই ধরনের ঘটনা ঘটছে।

সম্প্রতি এক রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায় পান্ডুয়া গ্রামীণ হাসপাতালে। সেই সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক শিবশঙ্কর রায়কে মারধরের অভিযোগও ওঠে মৃতের আত্মীয়দের বিরুদ্ধে। এরপরই অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে কর্মবিরতি শুরু করেন হাসপাতালে ডাক্তার, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। এই ঘটনায় গত কয়েকদিন ধরেই উত্তেজনা রয়েছে এলাকায়।

এরই মধ্যে মঙ্গলবার সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় ওই হাসপাতালের ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার সময় পান্ডুয়া জিটি রোডে তাঁর গাড়ি আটকানো হয় বলে অভিযোগ। গো ব্যাক স্লোগান দেওয়া হয় সাংসদের গাড়ির সামনে। কালো পতাকাও দেখানো হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় তৃণমূলকে কাঠগড়ায় তোলে বিজেপি। তাদের দাবি তৃণমূলের লোকজনই সাংসদের গাড়ি আটকে তাঁকে অশ্রাব্য কথা বলেছে। এমনকী লকেটের গাড়িতেও হামলা করা হয় বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন: ‘মুকুল তো অপমান করেননি…’, কিসের ইঙ্গিত দিলেন সৌগত!

কিন্তু বিজেপির এই অভিযোগ উড়িয়ে স্থানীয় তৃণমূল নেতা মাধবচন্দ্র ঘোষ বলেন, “তিন বছর ধরে লোকসভার সাংসদ হয়েছেন লকেট চট্টোপাধ্যায়। অথচ ২০১৯-এর ভোটের পর আর তাঁকে দেখা যায়নি। এমনকী তৃণমূলের লোকজনের উপর অত্যাচার হয়েছে। সাংসদের ভূমিকা সেখানে নীরব ছিল। এখন চিকিৎসক নিগ্রহে পুলিশ কঠোর হয়েছে, উনি এসেছে সহানুভূতি দেখাতে। উনি না আসলেও আমাদের চলবে।”