Fox Attack: মাঠে ধান কটছিলেন ওঁরা, হঠাৎ মাংস খুবলে নিয়ে পালাল শিয়ালের দল!

Malda: পাল্টা গ্রামবাসীদের মারে মৃত্যু এক শিয়ালের।

Fox Attack: মাঠে ধান কটছিলেন ওঁরা, হঠাৎ মাংস খুবলে নিয়ে পালাল শিয়ালের দল!
গ্রামবাসীদের মারে মৃত্যু শিয়ালের

মালদা: ফের শিয়ালের হানা জেলায়। ঘটনায় গুরুতর জখম চার কৃষক। পাল্টা গ্রামবাসীদের মারে মৃত্যু এক শিয়ালের।

ঘটনাস্থান মালদা থানা এলাকার সুলতান নগর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকা। জখম ওই ব্যক্তিদের নাম আয়নাল হক (58) ,মাসিরুল হক (১৮), রবিউল ইসলাম (২৪)

জানা গিয়েছে, আজ ধান কাটতে যান এলাকার ওই তিন কৃষক। সেই সময় অতর্কিতে জমি থেকে শেয়াল বেরিয়ে এই তিন জনের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। শিয়ালের সংখ্যা বেশ কয়েকটি ছিল। শিয়ালের হানায় গুরুতর জখম হন কৃষক আয়নাল হক ও তার ছেলে মাসিরুল হক এবং প্রতিবেশী রবিউল ইসলাম। এদের তিনজনের শরীর থেকে মাংস খুবলে নেয় শেয়ালের পাল।

গ্রামবাসী হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে অবস্থা আশঙ্কাজনক থাকায় পরে চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। অন্যদিকে সকালের দিকে একই সময়ে তুলসিহাটা অঞ্চলের কামারতা গ্রামে একই কায়দায় জমিতে শেয়ালের দ্বারা আক্রান্ত হন কৃষক সকাল দাস। বয়স (৪০)। তাকেও চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হসপিটালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে গ্রামবাসীদের পাল্টা আক্রমণে ঘটনাস্থলে একটি শিয়াল প্রাণ হারায়।

উল্লেখ্য, এর আগে শিয়ালের হামলায় হরিশচন্দ্রপুরে জখম হন ৪০ জন গ্রামবাসী। যার জেরে আতঙ্ক ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়।জানা গিয়েছে শিয়ালের হামলায় কারও নাক, কারও আঙুল আবার কারও বা সারা শরীরে তৈরি হয়েছে গভীর ক্ষত।

এক সঙ্গে এতজন গ্রামবাসীর আহত হওয়ার ঘটনায় থমথমে পরিবেশ গোটা গ্রামজুড়ে। তবে পাল্টা হামলা চালিয়েছেন গ্রামবাসীরাও। গ্রামবাসীদের হাতে ঘটনাস্থলেই মারা পড়েছে তিনটি শেয়াল। জানা গিয়েছে ভোরবেলায় এক সঙ্গে অন্তত জনা ১৫-২০টি শিয়াল আতর্কিতে হামলা চালায় হরদমনগর গ্রামের বিভিন্ন বাড়িতে। সেই সময় গ্রামবাসীরা সদ্য ঘুম থেকে উঠেছেন। কেউবা প্রস্তুতি নিচ্ছেন প্রাতঃভ্রমণের, কেউ বা প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন ছট পুজোর, আবার কেউ কেউ ঘরের কাজ করছিলেন। সেই সময় আতর্কিতে শিয়ালের হামলায় হতভম্ব হয়ে পড়েন তারা।

জানা গিয়েছে হামলা চালিয়ে শিয়ালের দল কয়েকজন গ্রামবাসীকে জঙ্গলের দিকে টেনে নিয়ে যাওয়ারও চেষ্টা করে। তাদের আক্রমণে এক গ্রামবাসীর আঙুলও খোয়া গিয়েছে। এক গ্রামবাসীর মুখের মাংসও খুবলে তুলে নিয়েছে শিয়ালের দল। এরপরই লাঠিসোটা নিয়ে শিয়ালদের খোঁজে বেরিয়ে পড়েন গ্রামবাসীরা। তাদের গণপিটুনিতে মারা যায় তিনটি শিয়াল। আহত ৪০ জন গ্রামবাসীকে তড়িঘড়ি হরিশ্চন্দ্রপুপ গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় চিকিৎসার জন্য। এদের মধ্যে কয়েকজনের আবস্থা আশঙ্কাজনক। অন্যদিকে ইতিমধ্যেই গ্রামবাসীদের তরফে লাঠি হাতে পাহারায় নেমেছেন। গোটা গ্রাম আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে। মহিলা, শিশু এবং বৃদ্ধরা বাড়ি থেকে বেরতে ভয়ও পাচ্ছেন। জানা গিয়েছে রাতেও পাহারা দেবেন গ্রামবাসীরা।

আরও পড়ুন: Death in bus: হঠাৎ অসুস্থ, তেঘরিয়ায় চলন্ত বাসেই প্রাণ হারালেন ব্যক্তি

 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla