‘নদী পার করে’ বাংলাদেশ থেকে মালদহে, চিনা নাগরিক ‘গুপ্তচর’ বলেই সন্দেহ বিএসএফের

হান জুনেই- (Han Zunwei) এর কাছ থেকে একটি বাংলাদেশের পাসপোর্ট উদ্ধার হয়েছে।

'নদী পার করে' বাংলাদেশ থেকে মালদহে, চিনা নাগরিক 'গুপ্তচর' বলেই সন্দেহ বিএসএফের
নিজস্ব চিত্র

মালদহ: ক্রমেই রহস্য ঘনীভূত হচ্ছে মালদহে (Maldah) আটক চিনা নাগরিককে নিয়ে। তাঁর কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে চারটি ল্যাপটপ, চারটি মোবাইল, কয়েক রকমের চার্জার আপডেটার, চিপ, পাওয়ার ব্যাঙ্ক-সহ একাধিক ইলেট্রনিক গেজেটস। ইতিমধ্যেই তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বেশ কিছু রহস্যজনক তথ্য পেয়েছে পুলিশ। হান জুনেই নামে ওই চিনা নাগরিক জানিয়েছেন, তিনি বাংলাদেশ হয়ে নদী পার করে ভারতে ঢুকেছেন। যা নিয়ে প্রশ্নের অবকাশ রয়েছে। সূত্রের খবর, রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালিসিস উইং (RAW)-এর জেরার মুখে পড়তে হতে পারে ওই ব্যক্তিকে।

বৃহস্পতিবার সকালে কালিয়াচকের মিলিক সুলতানপুর সীমান্ত এলাকা থেকে হান জুনেই নামে ওই ব্যক্তিকে ধরে নিয়ে যায় বিএসএফ। সন্দেহজনক ভাবে তিনি এদিক ওদিক ঘোরাঘুরি করছিলেন। তা দেখেই সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সন্দেহ হয়। এরপর তাঁকে কালিয়াচক পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। বাংলাদেশ ও নেপালের ভিসাও পাওয়া গিয়েছে হানের কাছ থেকে।

হান প্রাথমিক ভাবে জানিয়েছিলেন, তিনি বাংলাদেশে বেড়াতে গিয়েছিলেন। সেখান থেকেই ভারতে ঢোকেন। কিন্তু এ হিসাব যে এত সহজ, তা মানতে নারাজ তদন্তকারীরা। দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাঁকে। কালিয়াচকে কী উদ্দেশ্য নিয়ে তিনি এসেছেন তা জানতে মরিয়া পুলিশ। সূত্রের খবর, র’-এর প্রশ্নের মুখে পড়তে হতে পারে তাঁকে। সূত্রের খবর, হানের আটক হওয়ার বিষয়টি ইতিমধ্যেই স্বরাষ্ট্র ও প্রতিরক্ষামন্ত্রকে জানানো হয়েছে। ইন্টেলিজেন্স ব্যুরোর জিজ্ঞাসাবাদের মুখেও পড়তে হবে তাঁকে।

আরও পড়ুন: নার্সিং স্কুলের ‘বেসরকারিকরণ’, হাসপাতাল সুপারের ঘরের সামনে তুমুল বিক্ষোভ ছাত্রীদের

সীমান্ত নিয়ে ভারত-চিনের সম্পর্কের যে অবস্থান, সেখানে হান জুনেই-এর এ ভাবে ভারতে চলে আসা হালকা ভাবে নিতে নারাজ প্রশাসন। পূর্ব লাদাখের নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর সেনা মোতায়েন নিয়ে চাপানউতর এগিয়েছে বহু দূর। গালওয়ানে উত্তেজনা, চিনা দ্রব্য থেকে চিনা অ্যাপ, ভারতের মুখ ফিরিয়ে নেওয়া— জল অনেকটাই গড়িয়েছে। এর মধ্যে আবার চিনা নাগরিকের বলা কওয়া নেই, সোজা বাংলায় ঢুকে পড়া, সব দিক খোলা রেখে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।