পিছন থেকে এলোপাথাড়ি গুলি! একুশের কর্মসূচি সেরে ফেরার পথেই খুন তৃণমূল কর্মী

Birati: বুধবার রাত প্রায় সাড়ে দশটা নাগাদ বিরাটির বণিক মোড়ে শুভ্রজিত্ দলীয় কার্যালয় থেকে বাড়ি ফিরছিলেন।

  • Updated On - 9:36 am, Thu, 22 July 21 Edited By: শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী
পিছন থেকে এলোপাথাড়ি গুলি! একুশের কর্মসূচি সেরে ফেরার পথেই খুন তৃণমূল কর্মী
নিজস্ব চিত্র

বিরাটি: একুশে জুলাই, তৃণমূলের শহিদ দিবসের রাতেই বিরাটিতে তৃণমূল কর্মীকে (Birati TMC Worker Murder) গুলি করে খুনের অভিযোগ উঠল। মৃতের নাম শুভ্রজিত্ দত্ত (৩৯)।

বুধবার রাত প্রায় সাড়ে দশটা নাগাদ বিরাটির বণিক মোড়ে শুভ্রজিত্ দলীয় কার্যালয় থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানাচ্ছেন, সে সময় দুটি বাইকে বেশ কয়েকজন যুবক তাঁকে অনুসরণ করেন। অতর্কিতে পিছন থেকে এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে শুরু করেন। কিছু বুঝে ওঠার আগেই একাধিক গুলিতে বিদ্ধ হন শুভ্রজিত্। ঘটনাস্থলে লুটিয়ে পড়েন তিনি।

এদিকে,  গুলির শব্দ শুনতে পেয়ে ছুটে আসেন স্থানীয়রা। তাঁরাই তড়িঘড়ি শুভ্রজিৎকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যান। চিকিত্সকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় নিমতা থানার পুলিশ। থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব।

পুলিশ সূত্রে খবর, বিরাটির ত্রাস বাবুলাল সিংয়ের সঙ্গে শহিদ দিবসের দুপুরে তৃণমূল কর্মীদের বচসা হয়। তা হাতাহাতিতে গড়ায়। বিরাটি এলাকায় বাবুলালকে মেরে মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে তৃণমূল কর্মীদের বিরুদ্ধে। বর্তমানে বাবুলাল সিং বাইপাসের ধারে একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, বণিক মোড়ে তৃণমূল কর্মী খুনের নেপথ্যে বাবুলাল-তত্ত্ব জড়িত রয়েছে কিনা? বদলা নিতেই এই খুন কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এলাকায় নিমতা থানার পুলিশ টহল দিচ্ছে। এলাকা থমথমে রয়েছে।

ঘটনায় বিজেপির দিকে আঙুল তুলেছে তৃণমূল। তাদের দাবি, এই বাবুলাল সম্প্রতি বিজেপি নেতাদের সঙ্গে ওঠাবসা করতেন। বিজেপির সক্রিয় কর্মী হয়ে উঠেছিলেন তিনি। অন্যদিকে, স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের পাল্টা অভিযোগ, তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলের জন্যই এই খুন। এর সঙ্গে বিজেপির যোগ নেই। আপাতত বাবুলাল-তত্ত্বে ভর করেই তদন্ত এগোচ্ছে পুলিশ। আরও পড়ুন: ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির এজলাস বয়কট করতে পারেন আইনজীবীদের একাংশ

COVID third Wave

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla