Baruipur Death: গণপ্রহারে ‘মৃত্যু’, হাসপাতালে যেতেই জানা গেল মৃতের ‘আসল’ পরিচয়

South 24 Pargana: এতদিন অবধি ওই ব্যক্তির নাম পরিচয় জানা যায়নি। সোমবার তাঁর পরিচয় জানতে পারা যায়।

Baruipur Death:  গণপ্রহারে 'মৃত্যু', হাসপাতালে যেতেই জানা গেল মৃতের 'আসল' পরিচয়
মৃত ব্যক্তির বাড়ি (নিজস্ব ছবি)
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অবন্তিকা প্রামাণিক

Apr 25, 2022 | 4:10 PM

বারুইপুর: রাতের বেলা কিছু একটা নড়াচড়া করার শব্দ কানে আসছিল। কিন্তু অন্ধকার তাই অতটাও স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছিল না। সেই কারণে চোর সন্দেহ করেই হট্টগোল করতে থাকেন পরিবারের সদস্যরা। এরপর ডাক পড়ে পড়শীদের। সেই প্রত্যেকে মিলে খোঁজাখুঁজি করা শুরু করে। এরপরই এক ব্যক্তিকে হাতেনাতে পেয়ে চোর সন্দেহে লাগাতার মারধর করে ওই পরিবারের সদস্যরা। পরে অসুস্থ অবস্থায় ওই ব্যক্তিকে ভর্তি করা হয় বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে।

তবে এতদিন অবধি ওই ব্যক্তির নাম পরিচয় জানা যায়নি। সোমবার তাঁর পরিচয় জানতে পারা যায়। হাসপাতাল সূত্রে খবর, মৃতের নাম দীনেশ ভৌমিক (৪২)। দিনেশ বাবুর বাড়ি ডায়মন্ড হারবারের রামরামপুর এলাকায়। এদিন তাঁর পরিবারের সদস্যরা বারুইপুর থানায় আসে দেহ নিয়ে যাওয়ার উদ্দেশে।

পরিবার সূত্রে খবর, দীনেশ ভৌমিক মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। গত পয়লা বৈশাখ থেকেই নিঁখোজ ছিলেন তিনি। মৃতের পরিবারের এক সদস্য জানান, “গতকাল রাতে পুলিশ ফোন করে জানায় এই খবর। সম্পর্কে উনি আমার জামাইবাবু। তবে উন্মাদ ছিলেন। সেই কারণে আমার বোন বাপের বাড়িতেই থাকত। এরপর শুনি এমন খবর।” আর এক আত্মীয় বলেন, “আমরা জানাতাম পাগল। মাঝে-মধ্যেই বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে যেত। এরপর অনেক দিন ধরেই নিখোঁজ ছিলেন। কালকে রাতে ফোন আসে। আমরা তখন জানতাম যে মারা গিয়েছে। তবে হাসপাতালে পৌঁছানোর পর গোটা বিষয়টি নিয়ে আত্মবিশ্বাসী হই। থানায় কারোর বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ জানাই নি। এই নিয়ে এখনও পর্যন্ত চোর সন্দেহে বারুইপুর থানার পুলিশ মোট ছয়জনকে গ্রেফতার করেছে।

আরও পড়ুন: Moynaguri Minor Harassment: ‘দেহ হাসপাতাল থেকে সরবে না’, হাঁসখালির পর ময়নাগুড়ি, সিবিআই তদন্তেই আস্থা পরিবারের

আরও পড়ুন: Moynaguri Minor Harassment: চোখে জল, শরীরে অস্থিরতা, মৃত্যুর শেষ মুহূর্তে ময়নাগুড়ির নির্যাতিতা মাকে বলল…

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla