Hilsa: নিয়ম অমান্য করে মা ইলিশ ধরায় বাংলাদেশে ফের আটক ৪৪ জেলে!

Bangladesh: ওই জেলেদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে ৪৪ হাজার ৫০০ মিটার জাল সঙ্গে ইলিশ ।

Hilsa: নিয়ম অমান্য করে মা ইলিশ ধরায় বাংলাদেশে ফের আটক ৪৪ জেলে!
মা ইলিশ ধরার অপরাধে গ্রেফতার (ফাইল ছবি)

বাংলাদেশ: নাহ! কিছুতেই রোখা যেন যাচ্ছে না মা ইলিশ ধরা। গত পরশুর পর ফের বাংলাদেশের ভোলা থেকে আটক করা হল জেলেদের (Fisherman)। এই নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টা মোট ৪৪ জন জেলেকে আটক করেছে পুলিশ(Police)।

জানা গিয়েছে, ভোলার সাতটি উপজেলা প্রশাসন মেঘনা-তেঁতুলিয়া নদী ও সাগর মোহনায় নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে মা ইলিশ ধরেছিল। এই ঘটনায় জেলার মৎস্য কর্মকর্তা আজহারুল ইসলাম বলেন, “মা ইলিশের প্রজনন মৌসুমে ২২ দিন বাংলাদেশর ৩৮টি নদীতে ইলিশ আরহণ নিষিদ্ধ করেছে সরকার। এই নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেই ভোলার মেঘনা, তেঁতুলিয়া, ইলিশা ও সাগর মোহনায় জেলেরা মাছ ধরতে নেমেছিলেন। যার কারণে ওই ৪৪ জনকে আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে ১৩ জনের ৮৩ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। ”

সূত্রের খবর, ওই জেলেদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে ৪৪ হাজার ৫০০ মিটার জাল সঙ্গে ইলিশ । পাশাপাশি পাঁচটি নৌকা আটক করা হয়েছে।

মৎস্য কার্যালয়ের সূত্রে খবর, গত এক সপ্তাহে মোট ১৪৯ টি অভিযান চালানো হয়েছে। ইতিমধ্যেই ৫২ টি মামলা দায়ের হয়েছে সঙ্গে ৪ লাখ ২৯৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, এর আগে অর্থাৎ গত ১০ তারিখ সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত পদ্মার বিভিন্ন স্থানে যৌথ অভিযান চালায় শিবচর থানা ও নৌ পুলিশের একটি বিশেষ দল। ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান হিসেবে এই অভিযান চালায় তারা। মোট ৩০ জন জেলেকে আটক করে পুলিশের বিশেষ দলটি। আটক হওয়া জেলেদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় ২২ হাজার ৭০০ মিটার কারেন্ট জাল ও ১৬ কেজি মা ইলিশ।

পরে বিকেল নাগাদ আটকদের মধ্যে ২৭ জনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে তোলা হলে বিচারক ও শিবচর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এম রকিবুল হাসান তাদের এক বছরের কারাদণ্ডের নির্দেশ দেন। বাকি তিনজনের কাছ থেকে পাঁচ হাজার টাকা আর্থিক জরিমানা করা হয়। উদ্ধার হওয়া ওই কারেন্ট জালগুলিকে পুড়িয়ে ফেলা হয়। পাশাপাশি ইলিশগুলিকে এতিমখানায় বিতরণ করে দেওয়া হয়।

ঘটনার বিষযে রকিবুল হাসান জানিয়েছেন, ইলিশের প্রজননের সময় জেলেদেরকে মাছ ধরতে বারণ করা হয়। এরপরও অনেকে কথা শোনেন না। তাই নদীতে তল্লাশি চালানো হয়।

প্রসঙ্গত বর্ষাকাল হল ইলিশের প্রজননের ক্ষেত্রে ভালো সময়। বাংলাদেশের জেলা মৎস্য অফিস সূত্রে খবর, প্রতিবছর আশ্বিনের ভরা পূর্ণিমার আগে ও পরে মিলিয়ে ১৫ থেকে ১৭ দিনসহ মোট ২২ দিন ইলিশের প্রজনন সময়। এই সময়ে সমুদ্র থেকে প্রচুর মা ইলিশ লক্ষ্মীপুরের মেঘনা নদীতে এসে ডিম পাড়ে। প্রায় একটি বড় ইলিশ ২৩ লাখ পর্যন্ত ডিম দিতে সক্ষম। তাই বেশি ইলিশ উৎপাদন করতে নির্বিঘ্নে যাতে মা ইলুশ ডিম ছাড়তে পারে সেই কারণে ইলিশসহ সব প্রজাতির মাছ ধরার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। তাই ৪ অক্টোবর থেকে আগামী ২৫ অক্টোবর ইলিশ ধরা বন্ধ।

আরও পড়ুন: Hilsa: নিষেধাজ্ঞা অমান্য করেই ধরছিল ইলিশ! বাংলাদেশে গ্রেফতার ৩০ জেলে

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla