RBI on Cooperative Society: কোঅপারেটিভ সোসাইটিগুলি ‘ব্যাঙ্ক’ নয়, আমানতকারীদের সতর্ক করল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক

Cooperative Societies are not Banks: বেশ কিছু কোঅপারেটিভ সোসাইটি তাদের নামের সঙ্গে ব্যাঙ্ক শব্দটি ব্যবহার করছে। এটি ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন আইনের পরিপন্থী।

RBI on Cooperative Society: কোঅপারেটিভ সোসাইটিগুলি 'ব্যাঙ্ক' নয়, আমানতকারীদের সতর্ক করল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক
কী বলছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক?

নয়া দিল্লি: অনেক কোঅপারেটিভ সোসাইটিই নিজেদের নামের সঙ্গে ব্যাঙ্ক শব্দটি ব্যবহার করে আসছে। এবার সেই নিয়ে দেশবাসীকে সতর্ক করল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া। এর পাশাপাশি অনেক কোঅপারেটিভ সোসাইটি এমন ব্যক্তিদের থেকেও টাকা জমা রাখছিল, যাঁরা ওই কোঅপারেটিভের সদস্য নয়। সেই নিয়েও কোঅপারেটিভগুলিতে সতর্ক করেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক।

উল্লেখ্য, ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন আইন, ১৯৪৯ এর সংশোধনী অনুযায়ী, ২০২০ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে কোনও কোঅপারেটিভ সোসাইটি নিজেদের নামের সঙ্গে ব্যাঙ্ক, ব্যাঙ্কার, ব্যাঙ্কিং এই ধরনের শব্দগুলি ব্যবহার করতে পারবে না। কেবল রিজার্ভ ব্যাঙ্কের প্রভিশন অনুযায়ী, যে সমবায়গুলিকে অনুমোদন দেওয়া রয়েছে, কেবলমাত্র সেগুলিই এই ধরনের শব্দ ব্যবহার করতে পারে।

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের এক বিবৃতিতে বলেছে, তারা জানতে পেরেছে, বেশ কিছু কোঅপারেটিভ সোসাইটি তাদের নামের সঙ্গে ব্যাঙ্ক শব্দটি ব্যবহার করছে। এটি ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন আইনের পরিপন্থী। এর পাশাপাশি, অনেক কোঅপারেটিভ সোসাইটি নিজেদের সদস্য নয় এমন ব্যক্তি, নমিনাল মেম্বার বা অ্যাসেসিয়েট সদস্যদের থেকেও টাকা জমা নিচ্ছে। এটিও ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন আইনের ভাঙার সামিল।

দেশবাসীকে এই ধরনের কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কগুলির সম্পর্কে সচেতন করে দিয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। জানানো হয়েছে, এই ধরনের সোসাইটিগুলি কাছে ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন আইন, ১৯৪৯-র আওতাধীন কোনও লাইসেন্স নেই। এই কোঅপারেটিভ সোসাইটিগুলিকে ব্যাঙ্কিং পরিষেবা দেওয়ার কোনও অনুমোদনও দেয়নি রিজার্ভ ব্যাঙ্ক।

এই সোসাইটিগুলিতে জমা করা টাকার ক্ষেত্রে ডিপোজিট ইনসুরেন্স ও ক্রেডিট গ্যারান্টি কর্পোরেশন (DICGC)-র আওতায় পড়ে না। দেশবাসীকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে এই বিষয়ে। কোনও আমানত জমা করার ক্ষেত্রে, যেখানে টাকা জমা করা হচ্ছে সেটি ডিপোজিট ইনসুরেন্স ও ক্রেডিট গ্যারান্টি কর্পোরেশনের আওতায় রয়েছে কিনা, তা দেখে নেওয়া ভীষণভাবে দরকার। কারণ, এই ধরনের কোনও সংস্থা হঠাৎ করে যদি লোকসানের কারণে বন্ধ হয়ে যায়, তাহলে ডিপোজিট ইনসুরেন্স ও ক্রেডিট গ্যারান্টি কর্পোরেশনের আওতায় উপভোক্তা ৫ লাখ টাকা নিশ্চিত ফেরত পাবেন। কিন্তু যদি ডিপোজিট ইনসুরেন্স ও ক্রেডিট গ্যারান্টি কর্পোরেশনের আওতাভুক্ত না হয়, তাহলে সংস্থাটি হঠাৎ বন্ধ হয়ে গেলে, আমানতকারীর টাকা ফেরত পাওয়ার সম্ভাবনা প্রায় নেই বললেই চলে।

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তরফে আরও বলা হয়েছে, এ ধরনের কোনও কোঅপারেটিভ সোসাইটি যদি নিজেদের ব্যাঙ্ক বলে দাবি করে, তাহলে ওই সোসাইটির বিষয় খোঁজখবর নেওয়ার জন্য। ওই সব জায়গায় টাকা জমা রাখার আগে তাদের কাছে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের থেকে ইস্যু করা ব্যাঙ্কিং লাইসেন্স রয়েছে কিনা, তা খতিয়ে দেখে নিতে বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন : Chattisgarh reduces fuel price: মধ্যবিত্তের স্বস্তি, পেট্রোল ডিজেলের দামে বড় অঙ্কের ছাড় ছত্তীসগঢ় সরকারের

আরও পড়ুন PSB Swasth Bharat TD Scheme: কোভিড ভ্যাকসিন নিলে FD-তে অতিরিক্ত সুদ পাবেন আপনিও

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla