‘বিজেপি সরকার আর ধৃতরাষ্ট্র বাংলায় করোনা এনেছে’, ফের অনুব্রতর নিশানায় নির্বাচন কমিশন

অনুব্রত এ দিন বলেন, 'নববর্ষের দিন আমার কুৎসা করতে ভাল লাগে না। বাংলায় করোনা বেড়ে যাওয়ার পেছনে হাত আছে কেবল বিজেপি সরকার আর ধৃতরাষ্ট্রের। সব জায়গায় এক দফায় বা দুই দফায় নির্বাচন হয়ে যাচ্ছে আর যত বাড়াবাড়ি, নিয়ম শৃঙ্খলা এখানে! ওদের এই বুদ্ধির জন্যই করোনা (COVID-19) বেড়ে গিয়েছে। বাংলার মানুষ বুঝে নিক কাকে ভোট দেবে।'

  • TV9 Bangla
  • Published On - 16:23 PM, 15 Apr 2021
'বিজেপি সরকার আর ধৃতরাষ্ট্র  বাংলায় করোনা এনেছে', ফের অনুব্রতর নিশানায় নির্বাচন কমিশন
ফাইল ছবি

বীরভূম: সময়ে সময়ে বেফাঁস মন্তব্যের জেরে শিরোনামে এসেছেন তিনি। বীরভূমের ‘একচ্ছত্র নায়ক’ অনুব্রত মণ্ডল সদ্যই তাঁর উস্কানিমূলক মন্তব্য়ের জেরে নির্বাচন কমিশনের শো-কজের শিকারও হয়েছেন। কিন্তু তারপরেও মুখ বন্ধ করেননি বীরভূমের তৃণমূল (TMC) জেলা সভাপতি। নববর্ষের সকালে ফের একবার নির্বাচন কমিশনকে ধৃতরাষ্ট্র বলে তোপ দাগলেন তিনি।

ভোটমুখী বঙ্গে একদিকে যেমন চড়ছে রাজনীতির পারদ, তেমনই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনার (COVID-19) গ্রাফ। এই পরিস্থিতিতে বঙ্গে আট দফার নির্বাচন। ফলে একাধিক দলীয় প্রচার, জনসভা চলছেই। আর সেই সব জমায়েতে শিকেয় উঠছে করোনা বিধি। প্রার্থীরা পর্যন্ত মানছেন না নিয়মকানুুন। মাস্ক স্যানিটাইজার ছাড়াই চলছে প্রচার।প্রচারে বেরনোর পর করোনা আক্রান্ত হয়েছেন শাসক ও বিরোধী শিবিরের একাধিক প্রার্থী। এই পরিস্থিতিতে, বৃহস্পতিবার তড়িঘড়ি বৈঠকের ডাক দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (Election Commission)। কমতে পারে ভোটদফা। সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে এমনটাই।  এ বার সেই প্রসঙ্গে সরব হলেন বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল।

অনুব্রত এ দিন বলেন, “নববর্ষের দিন আমার কুৎসা করতে ভাল লাগে না। বাংলায় করোনা বেড়ে যাওয়ার পেছনে হাত আছে কেবল বিজেপি সরকার আর ধৃতরাষ্ট্রের। সব জায়গায় এক দফায় বা দুই দফায় নির্বাচন হয়ে যাচ্ছে আর যত বাড়াবাড়ি, নিয়ম শৃঙ্খলা এখানে! ওদের এই বুদ্ধির জন্যই করোনা (COVID-19) বেড়ে গিয়েছে। বাংলার মানুষ বুঝে নিক কাকে ভোট দেবে।” প্রসঙ্গত, তৃণমূল নেত্রীর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার প্রসঙ্গে নির্বাচন কমিশনকে ‘ধৃতরাষ্ট্র’ বলে তোপ দাগেন অনুব্রত। যদিও, অনুব্রতর এই মন্তব্যকে কেন্দ্র করে মুখ খোলেনি গেরুয়া শিবির। স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও কেউ ফোন তোলেননি।

উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য়মন্ত্রকের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, একলাখের গণ্ডি পার করে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা এ বার দুই লাখে প্রবেশ করল। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা (Corona) আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৭৩৯ জন। এটিই ভারতে সর্বকালের সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যা। মৃতের সংখ্যাও ফের হাজারের গণ্ডি পার করেছে। একদিনেই মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৩৮ জন। বর্তমানে ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৪০ লাখ ৭৪ হাজার ৫৬৪। দেশে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১৪ লাখ ৭১ হাজার ৮৭৭। মোট মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৭৩ হাজার ১২৩। বাংলায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫ হাজার ৮৯২ জন। কলকাতায় আক্রান্ত ১৬০১ জন, উত্তর ২৪ পরগনা ১২৭৭ জন, হাওড়ায় ৩৩০ জন, বাংলায় এখনও পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ২৪।

আরও পড়ুন: শো-কজের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে জবাব চেয়েছিল কমিশন, ‘খুনের’ নিদান দিলেন কেষ্ট, ফের বিতর্কে বীরভূমের ‘নায়ক’