Aryan Khan Drug Case: জেলের খাবারই খেতে হবে আরিয়ানকে, জামিন না পেলে গোটা সপ্তাহই কাটাতে হবে হাজতে

Mumbai Drug Case: আরিয়ানকে বাড়ি থেকে পাঠানো পোশাক পরার অনুমতি দেওয়া হলেও বাইরের কোনও ধরনের খাবার খেতে দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়নি।

Aryan Khan Drug Case: জেলের খাবারই খেতে হবে আরিয়ানকে, জামিন না পেলে গোটা সপ্তাহই কাটাতে হবে হাজতে
আরিয়ান খান

মুম্বই: আজও জামিনের আশায় শাহরুখ পুত্র আরিয়ান খান (Aryan Khan)। মুম্বইয়ের প্রমোদতরীতে মাদককাণ্ডে (Mumai Cruise Drug Case) ২ অক্টোবর আরিয়ান খানকে আটক করে এনসিবি (NCB)। মে়ডিক্যাল টেস্ট ও বয়ান রেকর্ডের পর তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। একাধিকবার জামিনের আবেদন করলেও এখনও অবধি হাজতবাসই করতে হচ্ছে বলিউডের সুপারস্টার শাখরুখ খান(Sharukh Khan)-র বড় ছেলে আরিয়ান খানকে।

গ্রেফতারির পর থেকে বিগত ১২ দিন ধরে জেলেই রয়েছেন আরিয়ান খান। সম্প্রতি তাঁকে মুম্বইয়ের আর্থার রোডের জেলে স্থানান্তরিত করা হয়। গতকাল তাঁর নমুনা সংগ্রহ করে করোনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরই তাঁকে  কোয়ারেন্টাইন ব্যারাক থেকে সাধারণ সেলে স্থানান্তরিত করা হয়।

জানা গিয়েছে, আরিয়ানকে বাড়ি থেকে পাঠানো পোশাক পরার অনুমতি দেওয়া হলেও বাইরের কোনও ধরনের খাবার খেতে দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়নি। জেল থেকে যে কুপন দেওয়া হয়েছে, সেই কুপন ব্যবহার করেই ক্য়ান্টিন থেকে আরিয়ান জল, বিস্কুট ও কিছু শুকনো খাবার নিয়েছেন।

এ দিকে, গতকালের পর আজ ফের আরিয়ান খান, মুনমুন ধমেচা ও আরবাজ মার্চেন্টের জামিনের আবেদনের শুনানি শুরু হল আদালতে। ১১টা নাগাদ আদালতে পৌঁছন শাহরুখ খানের ম্যানেজার পুজা দাদলানি ও দেহরক্ষী রবি। আরিয়ানের আইনজীবী অমিত দেশাই নির্দিষ্ট সময়ে পৌঁছলেও প্রায় এক ঘণ্টা পরে পৌঁছন এনসিবির আধিকারিকরা। তাদের আইনজীবী এখনও এসে পৌঁছননি বলেই জানা গিয়েছে।

গতকাল আরিয়ানের জামিনের শুনানির সময় এনসিবির তরফে দাবি করা হয়, আরিয়ানের সঙ্গে মাদক ও আন্তর্জাতিক যোগও খুঁজে পাওয়া গিয়েছে। মুম্বইয়ের প্রমোদতরীতে মাদকের যে আসর বসেছিল, তার শিকড় দেশের বাইরেও কতটা ছড়িয়ে রয়েছে, তা জানার জন্য অভিযুক্তদের আরও জেরার প্রয়োজন। আরিয়ানের হোয়াটসঅ্যাপ (Whatsapp) চ্যাট থেকে এই সংক্রান্ত উপযুক্ত তথ্য-প্রমাণও এনসিবির হাতে এসেছে বলে দাবি। যদিও আরিয়ানের আইনজীবী জানিয়েছেন, সেই চ্যাটে ফুটবল ছাড়া অন্য কোনও বিষয়েরই উল্লেখ নেই।

আজকের শুনানি আরিয়ানের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, কারণ আজ যদি আরিয়ান জামিন না পান, তবে আগামী ১৮ অক্টোবর অবধি তাঁকে জেলেই থাকতে হবে। দশেরা উপলক্ষ্য়ে আগামিকাল থেকে ছুটি পড়ে যাওয়ায় পরবর্তী শুনানি ১৮ অক্টোবর আদালত খোলার পরই হবে। ইতিমধ্যেই আরিয়ান ১২ দিন এনসিবির হেফাজতে ও ৭দিন জেল হেফাজতে কাটিয়ে ফেলেছেন।

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla