Arjun Singh: রবি-সোমবারের মধ্যেই তৃণমূলে যোগ দিতে পারেন অর্জুন সিং : সূত্র

Arjun Singh: রবি-সোমবারের মধ্যেই তৃণমূলে যোগ দিতে পারেন অর্জুন সিং : সূত্র
ছবি - যোগদান নিয়ে ধোঁয়াশা

Arjun Singh: কয়েকদিন আগে বঙ্গ বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বদের নিয়েও খোদ অর্জুনই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে একগুচ্ছ অভিযোগ জানিয়ে এসেছিলেন। যা নিয়েও তুমুল বিতর্ক তৈরি হয় পদ্ম শিবিরের অন্দরেই। তারপর থেকেই অর্জুনের তৃণমূলে যোগদান নিয়ে জল্পনা ক্রমেই তীব্রতর হচ্ছে।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: জয়দীপ দাস

May 21, 2022 | 8:56 PM

কলকাতা: ঘাসফুলে প্রত্যাবর্তন নাকি পদ্মেই আস্থা? উত্তর পেতে আগেই ১৫ দিনের সময় বেঁধে দিয়েছিলেন অর্জুন সিং (BJP Leader Arjun Singh)। পাট-যুদ্ধে নেমে গত কয়েক সপ্তাহে লাগাতার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন ব্যারকপুরের বিজেপি সাংসদ(Barrackpore BJP MP )। এদিকে বস্ত্র মন্ত্রীর নির্দেশে ইতিমধ্যেই কাঁচা পাটের সর্বোচ্চ মূল্য প্রত্য়াহার করে নিয়েছে কেন্দ্র সরকার। এমনকী জুট বোর্ডে অর্জুনের পদন্নোতি নিয়েও শোনা যায় নানা জল্পনা। ‘বিদ্রোহী’ অর্জুনকে শান্ত করতেই কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্ত বলে মন করেছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহলের একটা বড় অংশ। তারমধ্যেই অর্জুনের তৃণমূলে প্রত্যাবর্তন নিয়ে শুরু হয়ে যায় জোরদার জল্পনা। খোদ অর্জুনকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তাঁর জবাব ছিল, “এটা একটা বড় প্রশ্ন! আগামী ১৫ দিনেই বুঝতে পারবেন থাকছি কী থাকছি না”।  এদিকে এর মধ্যেই এবার সূত্রের খবর, আগামী রবিবার ও সোমবারের মধ্যেই তৃণমূলে যোগ দিতে পারেন অর্জুন সিং। 

এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই তা নিয়ে জোরদার চাপানউতর শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। এদিকে শনিবার সকালেই মমতা-অভিষেকের সঙ্গেই অর্জুনের ছবি দেওয়া ‘ওয়েলকাম’ লেখা পোস্টার দেখা যায় ব্যারাকপুরে। যা নিয়েই তীব্র চাপানউতর তৈরি হয় নানা মহলে। এমনকী আনুষ্ঠানিক ভাবে যোগদানের আগে কারা এই পোস্টার দিল তা নিয়েও শুরু হয় জোরদার জল্পনা। একইসঙ্গে এদিনই আবার অর্জুনের করা একটি টুইট নিয়েও শুরু হয়ে যায় জোরদার চর্চা। তবে তৃণমূলে যোগ দেওয়া নিয়ে বিশেষ কিছু শোনা যায়নি দিনের শুরুতে। তবে অর্জুন যদি শেষ পর্যন্ত তৃণমূলে ফেরেন তা যে বঙ্গ বিজেপির জন্য বড় ধাক্কা হবে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। 

এই খবরটিও পড়ুন

যদিও এই প্রসঙ্গে শনিবারের সাংবাদিক বৈঠকে বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ”অর্জুন পাট ইস্যুতে যা বলেছেন তা আমাদের সবারই বক্তব্য। তবে গত পরশু অর্জুন প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করেছেন। কিন্তু, ওনার অধিকার আছে অন্য দলে যাওয়ার। তবে, আজও আমার সঙ্গে দু’বার কথা হয়েছে। আমাকে বলেছে এমন সিদ্ধান্ত নিই নি”। তবে শুভেন্দু যাই বলুন, অর্জুনের তৃণমূলে প্রত্যাবর্তন নিয়ে ধোঁয়াশা যে ক্রমেই তীব্রতর হচ্ছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। এমনকী, কয়েকদিন আগে বঙ্গ বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বদের নিয়েও খোদ অর্জুনই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে একগুচ্ছ অভিযোগ জানিয়ে এসেছিলেন। যা নিয়েও তুমুল বিতর্ক তৈরি হয় পদ্ম শিবিরের অন্দরে। এখন দেখার এই টানাপোড়েনের মধ্যে ফের মমতা-অভিষেকদের হাত ধরেন কিনা অর্জুন, নাকি আস্থা রাখেন পুরনো দলেই।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA