Tesla in India: কেন্দ্রের ‘কাঁটা’ সরিয়ে এলন মাস্কের টেসলাকে আমন্ত্রণ বাংলা মন্ত্রীর, সিঙ্গুর মনে করালেন মালব্য

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: সৈকত দাস

Updated on: Jan 16, 2022 | 2:31 PM

Amit Malviya: ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের রেকর্ড দিয়ে শুরু করে কি সিঙ্গুর আন্দোলনের সঙ্গে শেষ হবে মন্ত্রীর বার্তা? কটাক্ষ অমিত মালব্যের।

Tesla in India: কেন্দ্রের 'কাঁটা' সরিয়ে এলন মাস্কের টেসলাকে আমন্ত্রণ বাংলা মন্ত্রীর, সিঙ্গুর মনে করালেন মালব্য
টেসলাকে বাংলায় আমন্ত্রণ জানাতে খোঁচা বিজেপির। অলংকরণ: অভীক দেবনাথ।

কলকাতা: মোদী সরকারের সঙ্গে কাজ করা বেশ চ্যালেঞ্জের। টেসলা (Tesla) কেন ভারতে আসছে না, এই প্রশ্নের উত্তরে এমনই জবাব দিয়েছেন মার্কিন ধনকুবের এলন মাস্ক (Elon Musk)। তার পর সরগরম নেট দুনিয়া। এদিকে ঝোপ বুঝে কোপ মারতে তৈরি অবিজেপি শাসিত রাজ্যগুলি। তারা মোদী সরকারের সমালোচনা করে মার্কিনী সংস্থাকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছে তাদের রাজ্যে। যাঁর মধ্যে অবশ্যই রয়েছে বাংলা। যা নিয়ে আবার সামাজিক মাধ্যমে শুরু হল বিজেপি ও তৃণমূল তরজা। বিজেপির আইটি প্রধান অমিত মালব্য দিলেন সিঙ্গুর খোঁচা।

ঠিক কী ঘটেছে?

এলন মাস্ক চান তাঁর টেসলা গাড়ি ভারতে আনতে। এদেশেই কারখানা করতে চান। কিন্তু গত তিন বছরের চেষ্টার পরও কেন্দ্রীয় সরকারের অনুমতি মেলেনি। এমনটা নিজেই দাবি করেছেন তিনি। ভারতের বাজারে টেসলার গাড়ি কেন পাওয়া যায় না, এই প্রশ্নে টেসলা সিইও কার্যত দায় চাপান মোদী সরকারের উপর। তার পরেই সরগরম নেট মাধ্যম।

টেসলাকে বাংলায় আমন্ত্রণ তৃণমূলের:

কলকাতা পুরভোটের প্রচারে বেরিয়েও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, এবার তাঁর সরকারের মূল ফোকাস শিল্প। শিল্প এনে তিনি দেখাবেনই, করবেন বেকার সমস্যার সমাধান। বাংলার শিল্প সম্মেলনে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আমন্ত্রণও জানান তিনি।

এদিকে এলন মাস্কের সংশ্লিষ্ট মন্তব্যের প্রেক্ষিতে তাঁকে বাংলায় শিল্প গড়ার জন্য আবেদন করেছেন রাজ্যের মন্ত্রী গোলাম রাব্বানি। এলন মাস্কের টুইট রিটুইট করে তিনি লেখেন বাংলায় আসুন। এখানে শিল্পের সবেচেয়ে ভাল পরিকাঠামো আছে। তাছাড়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সহযোগিতারও কোনও অভাব হবে না বলে জানান রাজ্যের মন্ত্রী।

শুধু বাংলাই নয়, মোদী সরকারের বিরুদ্ধে এলন মাস্কের মন্তব্যের পর অবিজেপি শাসিত রাজ্যের বেশ কয়েকজন নেতামন্ত্রী তাঁকে সংশ্লিষ্ট রাজ্যে শিল্পের জন্য আহ্বান জানান। যার মধ্যে রয়েছে মহারাষ্ট্র সরকারের এক প্রতিনিধিও।

আসরে বিজেপি:

মোদী সরকারের সঙ্গে কাজ করা বেশ চ্যালেঞ্জের এবং মাস্কের এই উক্তির পর তাঁকে বাংলায় আমন্ত্রণ জানানোর প্রেক্ষিতে আসরে নামে বিজেপি। গেরুয়া শিবিরের আইটি সেলের হেড অমিত মালব্য এই প্রেক্ষিতে রাব্বানির টুইট আবার রিটুইট করে কটাক্ষ ছুঁড়ে দেন। তিনি টুইটারে লেখেন, “পশ্চিমবঙ্গের সংখ্যালঘু ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিষয়ক দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী এলন মাস্ককে বাংলায় বিনিয়োগের প্রস্তাব দিয়েছেন”। তার পর তাঁর কটাক্ষ, ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের রেকর্ড দিয়ে শুরু করে কি সিঙ্গুর আন্দোলনের সঙ্গে শেষ হবে মন্ত্রীর বার্তা?

ওয়াকিবহাল মহলের মতে, এলন মাস্কের বিজেপি সরকারকে নিয়ে মন্তব্যকে হাতিয়ার করে অবিজেপি শাসিত রাজ্যগুলি যে আক্রমণে নেমেছে, তাকে সন্তর্পণে রাজনৈতিক বিতর্কে নিয়ে গেলেন গেরুয়া শিবিরের আইটি প্রধান। নেট মাধ্যমে শুরু হল বিতণ্ডা।

কেন ভারতে চ্যালেঞ্জের মুখে টেসলা?

ভারতে আমদানি শুল্ক অত্যন্ত বেশি, এমন অভিযোগ বারবার শোনা গিয়েছে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের মুখে। এর মধ্যে গত বুধবার মার্সিডিজ বেঞ্চ সংস্থার তরফে একটি ঘোষণায় জানানো হয় শিগগিরি ভারতের বাজারে মিলবে তাদের ইলেকট্রিক গাড়ি সিডান। দেশের স্থানীয় বাজারেই তা তৈরি হবে। ভারতের গাড়ি বাজারে সুজুকি ও হুন্ডাইয়ের মতো সংস্থার একচেটিয়া রাজত্ব চলছে। তাহলে এলন মাস্কের টেসলা কেন এখনও ভারতে এল না? এক নেটিজেনের এই প্রশ্নের উত্তরে স্বয়ং মাস্ক উত্তর দেন তাঁরা মোদী সরকারের বহু চ্যালেঞ্জ সত্ত্বেও এখনও চেষ্টা করেছেন ভারতের বাজারে আসতে।

কোথায় চ্যালেঞ্জ?

‘১৯ সালের প্রথম দিকে ভারতে ব্যবসা শুরু করার অনুমতি চায় মার্কিনি সংস্থা টেসলা। এ নিয়ে মোদী সরকারের সঙ্গে তাদের আলোচনাও হয়। টেসলা চায় ভারতে কারখানা করে গাড়ি তৈরি করতে। কিন্তু সমস্যা অন্যত্র। আমদানি শুল্ক ভারতে অত্যধিক বেশি, এমনই দাবি এলন মাস্কের সংস্থার। তারা চায় শুল্ক কমানো হোক। এদিকে মোদী সরকার তাদের অবস্থানে অনড়। এই জটকেই চ্যালেঞ্জ হিসাবে মাস্ক উল্লেখ করেন বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

আরও পড়ুন: Corona in West Bengal : মাছ-মাংসের লোভে করোনা ভুলল খাদ্যরসিক বাঙালি, রবিবাসরীয় বাজারে নেই শারীরিক দূরত্ব

Latest News Updates

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla