অস্ত্রোপচার হয়েছে মুকুল রায়ের, হাসপাতালে দেখতে গেলেন দিলীপ

TV9 বাংলা ডিজিটাল: বুধবার দলীয় কর্মসূচি থেকে ফেরার পথেই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। তড়িঘড়ি তাঁকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালে। বৃহস্পতিবার কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাঁর অস্ত্রোপচারও হয়। ল্যাপ্রোস্কপি করে বার করা হয়েছে তাঁর গল ব্লাডারের স্টোন। শুক্রবার সকালে বিজেপির সর্বভারতী সহ সভাপতি মুকুল রায়কে (Mukul Roy) দেখতে হাসপাতালে পৌঁছন বিজেপির (BJP) রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip […]

অস্ত্রোপচার হয়েছে মুকুল রায়ের, হাসপাতালে দেখতে গেলেন দিলীপ
অস্ত্রোপচার হয়েছে মুকুল রায়ের, হাসপাতালে দেখতে গেলেন দিলীপ
শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী

|

Nov 20, 2020 | 12:24 PM

TV9 বাংলা ডিজিটাল: বুধবার দলীয় কর্মসূচি থেকে ফেরার পথেই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। তড়িঘড়ি তাঁকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালে। বৃহস্পতিবার কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাঁর অস্ত্রোপচারও হয়। ল্যাপ্রোস্কপি করে বার করা হয়েছে তাঁর গল ব্লাডারের স্টোন। শুক্রবার সকালে বিজেপির সর্বভারতী সহ সভাপতি মুকুল রায়কে (Mukul Roy) দেখতে হাসপাতালে পৌঁছন বিজেপির (BJP) রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। খানিকক্ষণ তাঁদের মধ্যে কথাও হয়। তবে কী কথা হয়, তা জানা যায়নি।

মুকুল রায়কে দেখতে হাসপাতালে দিলীপ ঘোষ

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের ব্যাখ্যা, দলের বর্ষীয়ান নেতাকে আরও দলের রাজ্য সভাপতি হাসপাতালে দেখতে যাবেন, এর মধ্যে জটিলতার কিছু নেই। তবুও ‘মুকুলদা-দিলীপদা’ এই সাক্ষাৎ রাজনৈতিক মহলের কাছে বিশেষ তাৎর্যপূর্ণ। কারণ দীর্ঘ কয়েক মাসে অর্থাৎ মুকুল রায় বিজেপিতে যোগদানের থেকে মুকুল-দিলীপের এই যে ফোটো ফ্রেম তা পাননি সাংবাদিকরা। রাজনৈতিক মহলের কাছে এই ছবি বিজেপির অভ্যন্তরীণ সমীকরণেরও ব্যাখ্যা বটে!

পোড় খাওয়া রাজনীতির কুশলীরা বলছেন, মুকুল রায় বিজেপিতে যোগদানের পর দিলীপ ঘোষকে সেভাবে ‘গুণকীর্তন’ করতে শোনা যায়নি। বরং দিলীপবাবু অনেকক্ষেত্রেই একদা মমতা সেনাপতি সম্পর্কে ‘আলপটকা’ মন্তব্য করেছেন।

এখন অবশ্য ইকুয়েশন আলাদা। কারণ বিজেপি মরিয়া বাংলা দখলে। আর বঙ্গ নেতৃত্বের রাশ এখন দিল্লির হাতে। দলের নীচু স্তরে সাংগঠনিক কাঠামো শক্তিশালী করতে যেরকম ততৎপর কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতৃত্ব, তেমনি কড়া অনুশাসনে রয়েছেন বাংলার গেরুয়া শিবিরের মাথারাও।

             আরও পড়ুন: দুর্গাপুজোয় ২০০ টাকা করে চাঁদা দিতে পারেননি পরিযায়ী শ্রমিকরা, ১৪ টি পরিবারকে ‘বয়কট’ সমাজের

কোনও বেঁফাস মন্তব্য কিংবা পদক্ষেপ যে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ রেয়াত করবেন না, তা ভালভাবেই জানেন দিলীপবাবুরা। তাই এখন গেরুয়া শিবিরের অনেকেই বলছেন, ‘মুকুলদা-দিলীপদা’ সম্পর্কটা এখন বেশ ভাল। মুকুল রায়ের দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠার কামনা করেছেন দিলীপ ঘোষ। একাধিক ফোন এসেছে দিল্লি থেকেও। সুস্থ হয়ে দ্রুত ফর্মে ফেরার আশ্বাসও দিয়েছেন মুকুল রায়।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla