Weather Update: কুয়াশায় ঢেকেছে শহর, ফের নামতে শুরু করছে পারদ! কবে থেকে জাঁকিয়ে শীত বঙ্গে?

Weather Update: মঙ্গলবার হাওয়া অফিস অবশ্য বলছে, তাপমাত্রা ক্রমশ নিম্নমুখী হচ্ছে আর কয়েকদিনের মধ্যেই জাঁকিয়ে শীত পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

Weather Update: কুয়াশায় ঢেকেছে শহর, ফের নামতে শুরু করছে পারদ! কবে থেকে জাঁকিয়ে শীত বঙ্গে?
শীতের আমেজ কলকাতায় (ফাইল ছবি)

কলকাতা: সকালের শিরশিরে আজ আবার কিছুটা হলেও অনুভূত হচ্ছে। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, গত দুদিনে তাপমাত্রা বেড়েছিল অনেকটাই। কিন্তু মঙ্গলবার সকালের দৃশ্যটা আবার অন্য রকম। জানলার পর্দা সরাতেই চোখে পড়েছে ঘন কুয়াশার চাদর। জানলায় যেন আঁকা হয়েছে জলছবি।

সকাল থেকে ঘন কুয়াশার চাদরে মোড়া শহর কলকাতাও। সল্টলেক, নিউটাউন, রাজারহাট-সহ একাধিক এলাকায় ঘন কুয়াশা পড়েছিল সকালে । ৫০০ মিটার পর থেকে দৃশ্যমানতা কম অর্থাৎ সবকিছুই ঝাপসা দেখা যাচ্ছিল। সকাল থেকেই রাস্তায় কোনও কোনও গাড়ি হেডলাইট আবার কোনও গাড়ি ইমার্জেন্সি লাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে। কুয়াশার কারণে গত দু দিনের তুলনায় আজ অনেকটাই শিরশিরে ভাব অনুভূত হচ্ছে।

মঙ্গলবার হাওয়া অফিস অবশ্য বলছে, তাপমাত্রা ক্রমশ নিম্নমুখী হচ্ছে আর কয়েকদিনের মধ্যেই জাঁকিয়ে শীত পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। মঙ্গলবার উচ্চচাপের ফাঁড়া কাটলে বুধবারের পর ফিরবে ঠান্ডা আমেজ। এমনও হতে পারে, আগামী সপ্তাহান্তে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচেও নামতে পারে।

তবে হাওয়া অফিসের যা ইঙ্গিত, তাতে পুরোদমে দক্ষিণবঙ্গে শীত পড়তে এখনও কিছুটা সময় বাকি। ১৫ ডিসেম্বরের আগে সে অর্থে কলকাতায় শীত পড়েও না। তবে ধীরে ধীরে তাপমাত্রা নামতে শুরু করে। কিন্তু এবার নভেম্বরেই দু’বার তাপমাত্রা ১৮’র কাছাকাছি নেমে গিয়েছিল।

বঙ্গোপসাগরে তৈরি হয়েছে নিম্নচাপ যা অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু উপকূলের দিকে এগোচ্ছে। এর ফলে সপ্তাহান্তে ফের একবার পূবালি হাওয়ার প্রভাবে রাজ্যে জলীয় বাষ্প ঢুকবে। তার জেরে কমবে শীতের আমেজ। সোমবার থেকে কলকাতা-সহ রাজ্যের উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে ফের বৃষ্টির ভ্রুকুটি।

এক নিম্নচাপের প্রভাব কাটতে না-কাটতেই কাঁটা আরও এক নিম্নচাপ মাথায় ছিল। ঠান্ডায় বাধা দেবে নতুন পশ্চিমী ঝঞ্ঝাও। রবিবার, সোমবার নাগাদ ফের বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিরও সম্ভাবনা দক্ষিণবঙ্গে। নিম্নচাপের সম্ভাব্য অভিমুখ তামিলনাড়ু-অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূল। তবে দূরে থাকলেও আরও একবার ঠান্ডা আমেজের বারোটা বাজাবে সাগরের নিম্নচাপ। বৃষ্টি চিন্তায় রাখবে বাংলার চাষিদেরও।

গত সপ্তাহের শেষে আরব সাগরে এবং মধ্য বঙ্গোপসাগরের ওপরে নিম্নচাপ অক্ষরেখা অবস্থান করছিল। তার জেরে বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। প্রচুর পরিমাণে জলীয়বাষ্প ঢুকেছিল রাজ্যে। তার ফলে বাধা পায় শীত। জাঁকিয়ে শীত পড়তে আমাদের ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

বঙ্গোপসাগর থেকে আসা জ্বলীয়বাষ্পের জেরেই দক্ষিণের জেলাগুলিতে গত দুদিন বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা ছিল। বাদ ছিল না মহানগরও। তবে গত কয়েক দিনে আবার দক্ষিণ ২৪ পরগনা-সহ দুই মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামের সব জায়গায় অল্পসল্প বৃষ্টি হয় অল্প।

রাজ্যে উত্তুরে হাওয়া ঢোকায় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল পূবালি বাতাস। তার দাপটে বঙ্গোপসাগর থেকে রাজ্যে প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকছিল। এর প্রভাবে গত কয়েকদিনে ঝিরিঝিরি বৃষ্টি হয়েছে কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকায়।

আরও পড়ুন: আবাসনের ছাদে দৃশ্য দেখে শিউরে ওঠেন প্রতিবেশীরা, ফ্ল্যাটের মালিক সম্পর্কে বিস্ফোরক অভিযোগ পরিচারিকার মেয়ের

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla