Healthy Drink Recipe: এই একটা পানীয় খেলেই অনাক্রম্যতা থেকে সুস্বাস্থ্য সবদিকেই খেয়াল রাখা যাবে…

আপনার শরীরের দুর্বলতা এবং ক্লান্তির সমস্যা দূর করার সঙ্গে সঙ্গে এটি শরীরকে শক্তিশালী করে এবং সমস্ত রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করার শক্তি দেয়। এখানে জেনে নিন এই পানীয়টির উপকারিতা এবং কীভাবে তৈরি করবেন।

Healthy Drink Recipe: এই একটা পানীয় খেলেই অনাক্রম্যতা থেকে সুস্বাস্থ্য সবদিকেই খেয়াল রাখা যাবে...

আজকাল খারাপ খাদ্যাভ্যাস, শারীরিক পরিশ্রম না করা, ল্যাপটপ ও মোবাইলের সামনে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে থাকা, গভীর রাত পর্যন্ত জেগে থাকা এবং সকালে দেরি করে ঘুম থেকে ওঠা ইত্যাদি আমাদের জীবনযাত্রাকে সম্পূর্ণরূপে নষ্ট করে দিয়েছে। এতে শরীর ভারী হয়ে যায় এবং ক্লান্তি, দুর্বলতা সারাক্ষণ থাকে। অলসতা বিরাজ করে এবং অল্প বয়স থেকেই থাইরয়েড, ডায়াবেটিস, জয়েন্টে ব্যথা, বিপি ইত্যাদি সমস্ত রোগ ব্যক্তিকে ঘিরে ফেলে।

ঘরে বসে কাজ করার কারণেই এসব সমস্যা আরও বেড়ে চলেছে। এমন অবস্থায় ব্যক্তির মধ্যে অকাল বার্ধক্য শুরু হয়। আপনি যদি এই পরিস্থিতি থেকে নিজেকে বাঁচাতে চান, তাহলে অবশ্যই শারীরিক পরিশ্রমের মাধ্যমে আপনার খাদ্যাভ্যাসের উন্নতি ঘটান। কারণ আপনার খাবারই আপনার স্বাস্থ্যকে ভাল বা খারাপ করে ।

এমন পরিস্থিতিতে শরীরকে পুষ্টিসমৃদ্ধ খাবার দেওয়া খুবই জরুরি। এসব ঝামেলা এড়াতে চাইলে প্রতিদিন ভাল খাবারের সঙ্গে দুধ, খেজুর ও মাখানার তৈরি পানীয় খাওয়ার অভ্যাস করুন। আপনার শরীরের দুর্বলতা এবং ক্লান্তির সমস্যা দূর করার সঙ্গে সঙ্গে এটি শরীরকে শক্তিশালী করে এবং সমস্ত রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করার শক্তি দেয়। এখানে জেনে নিন এই পানীয়টির উপকারিতা এবং কীভাবে তৈরি করবেন।

Healthy Drink for boosting immunity

কীভাবে এই স্বাস্থ্যকর পানীয় তৈরি করতে হয়:

এই পানীয়টি তৈরি করতে ৪টি বাদাম, ৪টি খেজুর এবং কিছু মাখানা সারারাত জলে ভিজিয়ে রাখুন। সকালে ঘুম থেকে উঠে জল সহ গ্রাইন্ডারে রাখুন এবং খেজুর ও বাদাম মিহি হয়ে মিশে যাওয়া পর্যন্ত নাড়ুন। এর পরে, এই মিশ্রণে প্রায় এক গ্লাস দুধ রাখুন এবং প্রায় পাঁচ মিনিটের জন্য আবার গ্রাইন্ডারটি চালান। সব কিছু মিশে গেলে এই পানীয়টি পান করুন। আপনি যদি এটিকে মিষ্টি করতে চান তবে আপনি কিছু মধু যোগ করতে পারেন, তবে চিনি একেবারেই ব্যবহার করবেন না। এই পানীয়টি আপনার খাদ্যতালিকায় অন্তর্ভুক্ত করলে আপনার শরীরের দুর্বলতা দূর হবে এবং আপনি শরীরে প্রচুর শক্তি অনুভব করবেন।

এই পানীয়ের উপকারিতা:

  • খেজুর ক্যালসিয়াম, আয়রন, জিঙ্ক এবং ফাইবার সমৃদ্ধ। শরীরের দুর্বলতা ও ক্লান্তি দূর করার পাশাপাশি পরিপাকতন্ত্রকেও সুস্থ রাখে।
  • এই পানীয় খেলে শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি হয় না। এটি হাড় ও দাঁতের জন্য খুবই উপকারী বলে প্রমাণিত।
  • এই পানীয়টির মাধ্যমে প্রোটিন, ফ্যাট, কার্বোহাইড্রেট, ফাইবার ছাড়াও এমন মাইক্রোনিউট্রিয়েন্ট থাকে যা শরীরের জন্য অনেক প্রয়োজন।
  • এই পানীয়টি আমাদের ইমিউন সিস্টেমকে শক্তিশালী করে, যার কারণে আপনার শরীর নিজেকে রোগের সঙ্গে লড়াই করতে সক্ষম করে তোলে।

Disclaimer: এই প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য, কোনও ওষুধ বা চিকিৎসা সংক্রান্ত নয়। বিস্তারিত তথ্যের জন্য আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন। 

আরও পড়ুন: winter millets: শীতের দিনে এই ৩ খাদ্যশস্যই বাড়িয়ে তোলে ইমিউনিটি

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla