Virat Kohli: ক্যাপ্টেন না থাকলেও বিরাট ‘ব্র্যান্ড’ই থেকে যাবেন

Virat Kohli: ক্যাপ্টেন না থাকলেও বিরাট 'ব্র্যান্ড'ই থেকে যাবেন
Virat Kohli: ক্যাপ্টেন না থাকলেও বিরাট 'ব্র্যান্ড'ই থেকে যাবেন

বিরাট যে সাম্রাজ্য তৈরি করেছেন, তা অক্ষুন্নই থাকবে। কেরিয়ারের বাকি সময়ে বরং আরও সম্প্রসার হতে পারে, এমনই মনে করছে ওয়াকিবহালমহল।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sanghamitra Chakraborty

Jan 18, 2022 | 10:00 AM

কলকাতা: ইন্সটাগ্রামে একটা ছবি পোস্ট করে কত টাকা পান বিরাট কোহলি (Virat Kohli)? ৫ কোটি! শুধু গত বছরের হিসেব যদি ধরা হয়, এনডোর্সমেন্ট থেকে কত টাকা আয় করেছেন সদ্য বিদায়ী ভারতীয় টিমের ক্যাপ্টেন? ১৭৯ কোটি! ক্রিকেটার কোহলির ব্র্যান্ড ভ্যালু কত হবে পারে? একটি আন্তর্জাতিক সংস্থার মতে, ২৩৭.৭ মিলিয়ন ডলার! ক্রিকেট দুনিয়ায় বিরাটের মতো আয় আর কারও নেই। তাঁর সঙ্গে তুলনা চলতে পারে ফুটবল গোলার্ধের সেরা তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো (Cristiano Ronaldo) ও লিওনেল মেসির (Lionel Messi) সঙ্গে।

টি-টোয়েন্টি ক্যাপ্টেন্সি আমিরশাহি বিশ্বকাপের আগেই ছেড়েছিলেন বিরাট। ওয়ান ডে অধিনায়কত্ব থেকে তাঁকে অব্যহতি দিয়েছে বিসিসিআই। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টেস্ট সিরিজ হারের পর বিরাট আবার সরে গিয়েছেন টেস্ট নেতৃত্ব থেকেও। তার পর থেকে একটাই প্রশ্ন উঠছে, ক্যাপ্টেন না থাকার দরুণ কি ব্র্যান্ড ভ্যালু পড়তে চলেছে বিরাটের?

ভারতে যবে থেকে জনপ্রিয়তার শিখরে উঠতে শুরু করেছে ক্রিকেট, তবে থেকে বিজ্ঞাপনী দুনিয়া হাত মিলিয়েছে। সাতের দশকে এই পথ চলা শুরু। ১৯৮৩ সালে বিশ্বকাপ জেতার পর থেকে রমরমা। নয়ের দশকে ভারতীয় টিমের ক্রিকেটাররা বিজ্ঞাপনী দুনিয়ার আইকন হয়ে উঠতে শুরু করেন। বলিউডের তারকাদের পাশাপাশি তাঁদেরও বাজারদর বাড়তে শুরু করে। টিমের অধিনায়ককে ঘিরে ব্র্যান্ডিংই ছিল বেশি। ভারতীয় টিমের নেতা হিসেবে মহম্মদ আজহারউদ্দিন বিজ্ঞাপনী জগতে অতিপরিচিত মুখ হয়ে ওঠার পাশাপাশি বিভিন্ন সংস্থার ব্র্যান্ড হয়ে উঠেছিলেন। পরবর্তী ক্যাপ্টেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় আসার পর সেটা আরও উর্ধ্বমুখী হয়। এমএস ধোনি এটাকেই তুলে নিয়ে গিয়েছিলেন আরও উপরে। সেই পথ ধরেই আবির্ভাব বিরাট কোহলির।

ভারতীয় বাজার সম্পর্কে যাঁরা ওয়াকিবহাল, তাঁরা কিন্তু বলছেন, ক্যাপ্টেন্স ছাড়লেও বিরাট থেকে যাবেন বিরাটই। যার অর্থ হল, ব্র্যান্ড ভ্যালু একেবারেই পড়বে না তাঁর। এনডোর্সমেন্টের জন্য ৭-৮ কোটি টাকা দিন প্রতি চার্জ করেন তিনি। প্রায় ৩০টা ব্র্যান্ডের সঙ্গে জড়িয়ে ভিকে। ক্যাপ্টেন না থাকলেও ভারতীয় বাজারে আইকন থাকবেন বিরাট। কারণ হিসেবে বলা যেতে পারে, ক্যাপ্টেন্সি ছাড়ার পরও ব্র্যান্ড ভ্যালু কমেনি সচিন তেন্ডুলকরের। যেই ক্যাপ্টেন হোন না কেন, সচিনকে নিয়ে মাতামাতি থেকেই গিয়েছিল। অবসরের পরও তাই রয়েছে। বিরাটের মাঠে উপস্থিতি, আগ্রাসী মনোভাব, ব্যাটার হিসেবে ধারাবাহিকতা, নিত্যনতুন রেকর্ডই তাঁকে এই জায়গা ধরে রাখতে সাহায্য করবে বলে মনে করছেন বিভিন্ন নামী সংস্থার ব্র্যান্ড ম্যানেজাররা। আর সেই সঙ্গে থাকবে বলিউডের নামী অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মা আর তাঁর জুটি।

পুমা সফ্টওয়্যার, হিরো মোটরসাইকেল, এমআরএপ টায়ার্স, অডি গাড়ি, ফ্যাশন প্ল্যাটফর্ম মন্ত্র, আমেরিকান টুরুস্টার লাগেজ, ভিভো স্মার্টফোন, হাইপারিস ওয়েলনেসের মতো ব্র্যান্ডের সঙ্গে দীর্ঘ দিন ধরে সম্পর্ক বিরাটের। তিনি টেস্ট ক্যাপ্টেন্সি ছাড়লেও এই সব ব্র্যান্ড তাঁকে যে ছাড়ছে না, তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভারতের অন্যতম প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব বিরাট। ৪৬ মিলিয়ন ফলোয়ার টুইটারে। ফেসবুকে ৫০ মিলিয়ন। ইন্সটাতে ১৫০ মিলিয়ন।

বিরাট যে সাম্রাজ্য তৈরি করেছেন, তা অক্ষুন্নই থাকবে। কেরিয়ারের বাকি সময়ে বরং আরও সম্প্রসার হতে পারে, এমনই মনে করছে ওয়াকিবহালমহল।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA