Tokyo Olympics 2020: অলিম্পিকে ছেলেকে ছেড়ে থাকা কঠিন, বলছেন সানিয়া

করোনা (COVID-19) সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে টোকিওতে এ বার অ্যাথলিটদের পরিবারের সদস্যদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। ফলে ছোট্ট ইজহানও থাকতে পারবে না সানিয়ার সঙ্গে।

Tokyo Olympics 2020: অলিম্পিকে ছেলেকে ছেড়ে থাকা কঠিন, বলছেন সানিয়া
Tokyo Olympics 2020: অলিম্পিকে ছেলেকে ছেড়ে থাকা কঠিন, বলছেন সানিয়া

লন্ডন: ২৩ জুলাই শুরু হবে টোকিও অলিম্পিক (Tokyo Olympics)। সেখানে নামলেই নতুন নজির গড়বেন হায়দরাবাদী টেনিস সুন্দরী সানিয়া মির্জা (Sania Mirza)। প্রথম ভারতীয় মহিলা টেনিস প্লেয়ার হিসেবে চতুর্থ বার অলিম্পিকে (Olympics) অংশ নিতে চলেছেন সানিয়া। বর্তমানে উইম্বলডনে (Wimbledon) খেলছেন ৬ বারের গ্র্যান্ড স্লামজয়ী টেনিস তারকা। তবে আজ, বৃহস্পতিবার উইম্বলডনের তাঁর প্রথম ম্যাচের শেষে প্রেস কনফারেন্সে এসে জানালেন, টোকিওতে থাকার সময় ছেলেকে ছেড়ে থাকাটা তাঁর কাছে কঠিন হতে চলেছে।

করোনা (COVID-19) সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে টোকিওতে এ বার অ্যাথলিটদের পরিবারের সদস্যদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। ফলে ছোট্ট ইজহানও থাকতে পারবে না সানিয়ার সঙ্গে। তবে যে সকল অ্যাথলিটদের বাচ্চারা খুব ছোট, তাদের নিজেদের সঙ্গে নিয়ে যেতে পারবেন অ্যাথলিটরা। অলিম্পিকের আয়োজকরা এমন ছাড়পত্র দিয়েছে। ইজহানের বয়স তিন। তাই সে তার মায়ের সঙ্গে যেতে পারবে বলে মনে হয় না। অলিম্পিক চলাকালীন ছেলেকে ছেড়ে থাকার ব্যাপারে সানিয়া বলেন, “আমরা কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি এবং আমাদের এই সময় কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে। তবে যাওয়ার ব্যাপারে আমার মনে কখনও সন্দেহ হয়নি। এই নিয়ে আমি নিশ্চিত ছিলাম।”

উইম্বলডনের ম্যাচের শেষে প্রেস কনফারেন্স চলাকালীন ছোট্ট ইজহান সানিয়ার পাশেই বসেছিল। সানিয়া বলেন, “যে কোনও সময় ওকে ছেড়ে যাওয়াটা আমার কাছে খুব কঠিন। আমি তাও যতটা সম্ভব চেষ্টা করি। কিন্তু আমার কাজ থাকলে সেটা তো করতেই হবে। আমি সেটা করি ও। তবে ওয়ার্কিং মাদার হিসেবে মাঝে মাঝে এটা করতেই হয়।”

টোকিও অলিম্পিকে অঙ্কিতা রায়নার সঙ্গে জুটিতে খেলবেন সানিয়া। তিনি বলেন, “একটানা চারটি অলিম্পিক খেলতে চলেছি। বাচ্চা হওয়ার পরে টোকিও যাচ্ছি, এই জায়গায় থাকতে পেরে আমি সত্যিই কৃতজ্ঞ বোধ করি।”

আরও পড়ুন: Wimbledon 2021: ষষ্ঠ জুটিকে উড়িয়ে উইম্বলডনের যাত্রা শুরু সানিয়াদের

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla